বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'হায়দার'-এর সৎ মায়ের রান্নার ছবি পোস্ট করে কী বললেন মীরা রাজপুত?
পরিবারের জন্য নিজের হাতে রান্না করেছিলেন সুপ্রিয়া পাঠক। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
পরিবারের জন্য নিজের হাতে রান্না করেছিলেন সুপ্রিয়া পাঠক। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

'হায়দার'-এর সৎ মায়ের রান্নার ছবি পোস্ট করে কী বললেন মীরা রাজপুত?

  • সম্প্রতি পরিবারের জন্য নিজের হাতে পরিপাটি করে রেঁধেছিলেন সুপ্রিয়া পাঠক।শাহিদের সৎ মায়ের রান্না করা থরে থরে সাজানো সেই খাবারের পদের ছবি তুলে নেটমাধ্যমে পোস্ট করলেন 'শাহিদ-পত্নী' মীরা রাজপুত।

সম্প্রতি পরিবারের জন্য নিজের হাতে পরিপাটি করে রেঁধেছিলেন সুপ্রিয়া পাঠক। যত্ন করে সাজিয়ে গুছিয়ে খাবারের সেইসব পদ প্রত্যেকের থালায় সাজিয়েও দিয়েছিলেন তিনি। তবে পাওয়ামাত্রই সেই খাবার খাননি শাহিদ কাপুরের স্ত্রী মীরা রাজপুত। শাহিদের সৎ মায়ের রান্না করা থরে থরে সাজানো সেই খাবারের পদের ছবি তিনি তুলে রেখেছেন নিজের ফোনে। এরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি পোস্ট করে সুপ্রিয়ার ‘বৌমা’ লেখেন," এটা মোটেই 'হংসা'-র তৈরি 'খিচড়ি' নয়!"

ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা মীরার সেই ছবি। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা মীরার সেই ছবি। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

পাঠকদের ভুরু কুঁচকে ওঠার আগেই জানিয়ে রাখা ভালো সৎ মা হলেও সুপ্রিয়ার সঙ্গে শাহিদের সম্পর্ক যথেষ্ট ভালো। মীরার ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। তবে কেন এরকম বললেন মীরা? আসলে সবটা মজা করেই লিখেছেন তারকা-পত্নী। প্রসঙ্গত, একসময় ছোটপর্দার অন্যতম জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক ছিল 'খিচড়ি'. সেই ধারাবাহিকে এক গুজরাটি মহিলা 'হংসা পারেখ'-এর চরিত্রে অভিনয় করার সুবাদে ভীষণ জনপ্রিয় হয়েছিলেন সুপ্রিয়া পাঠক। তাই তো মজা করে এই 'খিচড়ি' মার্কা ক্যাপশন দিয়েছেন মীরা। অবশ্য তার সঙ্গে হৃদয় ও ভেংচি কাটা মুখের একটি মজাদার স্মাইলিও জুড়তে ভোলেননি তিনি। উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়। এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর এবং 'হায়দার' এর একটি ছবি পোস্ট করে 'খিচড়ি' ধারাবাহিকে 'হংসা'-র বলা একটি বিখ্যাত সংলাপকে ছবির ক্যাপশনে পরিণত করেছিলেন মীরা।

প্রসঙ্গত, বর্ষীয়ান বলিউড অভিনেতা পঙ্কজ কাপুর এবং নীলিমা আজিমের সন্তান শাহিদ। তারকার বয়স যখন মাত্র সাড়ে তিন তখনই তাঁর বাবা-মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরপর সুপ্রিয়া পাঠককে বিয়ে করেন পঙ্কজ। শাহিদের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের রসায়নের প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সুপ্রিয়া জানিয়েছেন ছোট থেকেই তিনি শাহিদকে চেনেন। পঙ্কজের বান্ধবী থাকাকালীনই তাঁর সঙ্গে ছেলের পরিচয় করিয়েছিলেন পঙ্কজ। তাঁর ও শাহিদের পারস্পরিক সম্পর্ক যে একেবারে বন্ধুর মতো সেকথাও জানাতে ভোলেননি সুপ্রিয়া।এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর কথায়," শাহিদকে আমি বড্ড ভরসা করি!"

অন্যদিকে, শাহিদের পরবর্তী ছবি 'জার্সি'-তে তাঁর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন পঙ্কজ কাপুর। 'শানদার' এর পর এই নিয়ে দ্বিতীয়বার পর্দায় একসঙ্গে হাজির হবেন বাবা ও ছেলে। ছবিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে ম্রুণাল ঠাকুরকেও। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ৫ নভেম্বর মুক্তি পাবে 'জার্সি'।

 

বন্ধ করুন