বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বক্সার ডিঙ্কো সিংয়ের প্রয়াণে সমবেদনা শাহিদের, জানালেন বায়োপিকে অভিনয়ে আগ্রহী
বক্সার ডিঙ্কো সিংয়ের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ শাহিদের। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
বক্সার ডিঙ্কো সিংয়ের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ শাহিদের। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

বক্সার ডিঙ্কো সিংয়ের প্রয়াণে সমবেদনা শাহিদের, জানালেন বায়োপিকে অভিনয়ে আগ্রহী

প্রয়াত হয়েছেন প্রখ্যাত ভারতীয় বক্সার ডিঙ্কো সিং। ডিঙ্কোর মৃত্যুর খবরে টুইট করে সমবেদনা জানিয়েছেন শাহিদ কাপুর। অদূর ভবিষ্যতে ডিঙ্কোর বায়োপিকে যে তাঁকেই মুখ্য ভূমিকায় দেখা যাবে সেকথাও জানিয়েছেন শাহিদ।

সম্প্রতি, প্রয়াত হয়েছেন প্রখ্যাত ভারতীয় বক্সার ডিঙ্কো সিং। দীর্ঘ দিন ধরে শরীরে বাসা বাঁধা ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। শেষমেশ গত ১০ জুন সেই লড়াইয়ের 'লাস্ট রাউন্ড' শেষ হলো। বয়স হয়েছিল মাত্র ৪২ বছর। বৃহস্পতিবার মণিপুরের সেকটা গ্রামে নিজের বাড়িতেই প্রয়াত হন ভারতের অন্যতম সফল বক্সার।১৯৯৮ সালে ব্যাঙ্কক এশিয়ান গেমসে কিংবদন্তি বক্সার সোনা জিতেছিলেন। ২০১৩ সালে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন। পেয়েছেন অর্জুন পুরস্কারও ।ডিঙ্কোর মৃত্যুতে টুইটে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং।

ডিঙ্কোর মৃত্যুর খবরে টুইট করে সমবেদনা জানিয়েছেন শাহিদ কাপুরও। সেই টুইট বলি-তারকা লিখেছেন, 'পদ্মশ্রী প্রাপক ডিঙ্কো সিং শুধুমাত্র একজন দেশের অন্যতম সেরা একজন বক্সারই ছিলেন না। পাশাপাশি বহুবার আন্তর্জাতিক খেতাবে সম্মানিত হয়ে দেশকে গৌরান্বিতও করেছিলেন। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে যে তিনি অন্যতম প্রেরণার উৎস হয়ে থাকবেন এতে কোনও সন্দেহ নেই। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করছি। রইল তাঁর পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা।'

২০১৯ সালে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারেই শাহিদ জানিয়েছিলেন ১৯৯৮ সালের এশিয়ান গেমসে সোনজয়ী এই বক্সারের বায়োপিকের স্বত্ব রয়েছে তাঁর কাছে। তিনি যে এই বায়োপিকে নামভূমিকায় অভিনয় করতে চান সেকথাও জানিয়েছিলেন 'কবীর সিং'। শাহিদ বলেছিলেন,' আমি ভীষণভাবে আগ্রহী ডিঙ্কো সিংয়ের বায়োপিক তৈরির ব্যাপারে। এবং আমি বানাবোই এই ছবি। তবে কবে ও কখন তা এখনই বলতে পারছি না।'

শাহিদ কাপুর। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
শাহিদ কাপুর। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

অক্ষয় কুমার অভিনীত 'এয়ারলিফট' ছবি খ্যাত পরিচালক রাজা কৃষ্ণ মেননকে 'ডিঙ্কো সিং'-এর বায়োপিকের দায়িত্ব দিয়েছেন শাহিদ। সেই পরিচালকও বক্সারের আকস্মিক মৃত্যুর খবরে শোকপ্রকাশ করেছেন। তাঁর গভীর আক্ষেপ ডিঙ্কোর জীবিতকালে এই বায়োপিক তৈরি করা গেল না। বিভিন্ন কারণে এই ছবির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ যে আটকে রয়েছে,সেকথাও জানালেন এই পরিচালক। তবে ছবি যে তৈরি হবেই তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই তাঁর। 'এই ছবির গল্প উৎসাহ যোগাবে প্রচুর মানুষকে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মও উদ্বুদ্ধ হবে ডিঙ্কোর জীবন সংগ্রামের গল্প জানতে পারলে। এমনকি ডিঙ্কো নিজেও চাইতো দ্রুত তৈরি হোক তাঁর বায়োপিক। কিন্তু কোনওদিন একটিবারের জন্যও নিজে থেকে আমাদের তিনি তাগাদা দেননি কিংবা জানতে চাননি কেন এই ছবি তৈরি হতে দেরি হচ্ছে।'

 

বন্ধ করুন