বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > তৈমুর-জেহকে বাড়িতে একাজ করতে দেন না সইফ-করিনা! ফাঁস করলেন শর্মিলা মিডিয়ায়
সিনেমা দেখার অনুমতি নেই জেহ আর তৈমুরের। 
সিনেমা দেখার অনুমতি নেই জেহ আর তৈমুরের। 

তৈমুর-জেহকে বাড়িতে একাজ করতে দেন না সইফ-করিনা! ফাঁস করলেন শর্মিলা মিডিয়ায়

  • সইফ আলি খান আর করিনা কাপুর বাড়িতে দুই ছেলেকে যে কাজ একদম করতে দেন না! নিজের নতুন ছবি ‘গুলমোহর’ প্রসঙ্গে জানালেন শর্মিলা ঠাকুর। 

করিনা কাপুর আর সইফ আলি খানের দুই ছেলে তৈমুর আর জেহ সবসময়তেই থাকে খবরে। আর হবে নাই বা কেন, ফিল্মি পরিবারে বেড়ে ওঠা। তবে, মা-বাবা যতই ব্যস্ত থাকুন না কেন নিজেদের কাছে, বাড়িতে কিছু কড়া নিয়ম আছে যা মানতে হয় তৈমুর আর জেহকে। সেগুলোর মধ্যে একটা মিডিয়ায় ফাঁস করলেন শর্মিলা ঠাকুর। 

২০১০ সালে ‘ব্রেক কে বাদ’ সিনেমায় শেষ দেখা মিলেছে শর্মিলার। তবে খুব জলদি ফিরছেন ফ্যামিলি ড্রামা ‘গুলমোহর’ নিয়ে। ক্যামেরার সামনে ফেরা নিয়ে স্বভাবতই উৎসাহে টগবগিয়ে ফুটছেন শর্মিলা। তাই তাঁকে যখন প্রশ্ন করা হয় তাঁর নতুন সিনেমা নিয়ে কী বলছে নাতি-নাতনিরা, শর্মিলা জানিয়ে দেন ইতিমধ্যেই ‘শুভেচ্ছা’ বার্তা পেয়ে গিয়েছেন ইনায়ার থেকে।  যদিও সেটা ওকে মা সোহাই শিখিয়ে দিয়েছেন। আর তা শুনে শর্মিলার জবাব, ‘দাঁড়া ছবি রিলিজ করুক। আমরা তো জানি না দর্শকদের কেমন লাগবে ছবিখানা।’ আরও পড়ুন: দার্জিলিং-এ মুগ্ধ করিনা! সুজয় ঘোষের ওয়েব সিরিজের সেট থেকে শেয়ার করে চলেছেন ছবি

সঙ্গে শর্মিলা জানিয়ে দেন, ছেলের ঘরের দুই নাতি অর্থাৎ করিনা-সইফ-পুত্রদের অনুমতি নেই সিনেমা দেখার। বর্ষীয়ান অভিনেত্রী জানান, ‘‘তৈমুর আর জেহ-র এখনও সিনেমা দেখার অনুমতি নেই। তবে ওরা যখন দেখবে আমাকে পরদায় তখন তা একটা দারুণ ব্যাপার হবে। আর সারা-ইব্রাহিম তো বড় হয়ে গেছে। ওরা ছবিটা দেখবেও। সঙ্গে ওদের কাছে প্রশংসা করা ছাড়া আর কোনও রাস্তা খোলা নেই। ওদের বলতেই হবে ‘ওয়েল ডান’।’’

‘কাশ্মীর কি কলি’ অভিনেত্রী জানিয়ে দেন এতদিন লাইম লাইট থেকে দূরে বেশ ভালোই ছিলেন তিনি। ব্যস্ত ছিলেন UNISEF-র কাজ আর নিজের ট্রাস্ট নিয়ে। 

 

বন্ধ করুন