বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Akshay-Shefali: অক্ষয়ের চেয়ে ৫ বছরের ছোট হয়েও মায়ের ভূমিকায়! ‘ওয়াক্ত’কে ফিরে দেখলেন শেফালি শাহ
ছেলের চেয়ে ছোট মা!

Akshay-Shefali: অক্ষয়ের চেয়ে ৫ বছরের ছোট হয়েও মায়ের ভূমিকায়! ‘ওয়াক্ত’কে ফিরে দেখলেন শেফালি শাহ

  • কেন বয়সে অনেকখানি ছোট হয়েও মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শেফালি শাহ? অকপটেই জানালেন অভিনেত্রী। 

বলিউডের অন্যতম ভার্সেটাইল অভিনেত্রী শেফালি শাহ। মাত্র ২০-র কোঠাতেই মায়ের চরিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি। একথা অনেকেরই অজানা ২০০৫ সালে ওয়াক্ত ছবিতে ৩৭ বছর বয়সী অক্ষয় কুমারের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শেফালি। তখন তাঁর বয়স সবে ২৮! শেফালি অভিনীত চরিত্র, সুমিত্রা ঠাকুর ছিল অমিতাভ বচ্চনের স্ত্রী। ওতো কম বয়সেই মাঝ বয়সী মহিলার চরিত্রে অভিনয় করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন শেফালি। এবং সেই নিয়ে কোনও আফসোস নেই তাঁর। 

শেফালির ব্যক্তিগতভাবে মোটেই মনে হয় না এই বিষয়টি নিয়ে কোনও অভিনেতার মধ্যে ছুতমার্গ থাকা উচিত, অভিনেত্রীর কথায় ওই চরিত্রটি এবং ছবির চিত্রনাট্য তাঁর মনে ধরেছিল সেই কারণেই অক্ষয় কুমারের মা হতে অনায়াসে রাজি হয়ে যান তিনি। 

পিঙ্কভিলাকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি জানান, অভিনেতা হওয়ার সবচেয়ে সেরা পাওনা হল তুমি যা নও তা হওয়ার সুযোগ পাও। এক্ষেত্রে জাতি,ধর্ম,বর্ণ,বয়স কোনওটাই বাধা নয়। আর আমার কাছে সেটাই ছিল সবচেয়ে উত্তেজনামূলক ব্যাপার, আমি যা নই সেই বিষয়টা পর্দায় ফুটিয়ে তোলবার একটা সুযোগ পেয়েছিলাম। 

আর এই ছবিতে কাজ করবার এক্সট্রা তাগিদের কারণ ছিল নিঃসন্দেহে অমিতাভ বচ্চন। এই ছবির পরিচালক বিপুল শাহ-কেই পরবর্তীকালে বিয়ে করেন অভিনেত্রী। তাঁর কথায়, আমি সত্যি চিত্রনাট্যটার প্রেমে পড়েছিলাম। চরিত্রটা দারুণ পছন্দ হয়েছিল। আমি তো হসরতে ছবিতেও অভিনয় করেছিলাম মাত্র ২০ বছর বয়সে। ওই সময়ও আমাকে ৩৫ বছর বয়সী একজনের চরিত্রে অভিনয় করতে হয়েছিল’।

বর্তমানে পঞ্চাশ ছুঁইছুঁই এই নায়িকা জানান এখন সমবয়সী চরিত্র পর্দায় ফুটিয়ে তোলবার উপরই জোর দিতে চান তিনি। নিজেকে পর্দায় কম বয়সী চরিত্রে একেবারেই দেখতে চান না শেফালি শাহ। আগামিতে তাঁকে দেখা যাবে বিদ্য বালানের ‘জলসা’ ছবিতে। প্রযোজক আলিয়া ভাটের প্রথম ছবি ‘ডার্লিং’ এবং আয়ুষ্মান খুরানার ‘ডক্টর জি’ ছবিতেও অভিনয় করছেন শেফালি।

বন্ধ করুন