বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মুখ দেখেও চিনতে পারেন না কাউকে! কঠিন রোগে আক্রান্ত শাহিদের নায়িকা

মুখ দেখেও চিনতে পারেন না কাউকে! কঠিন রোগে আক্রান্ত শাহিদের নায়িকা

কঠিন রোগে আক্রান্ত শেহনাজ।

শেহনাজ জানান, তাঁরও মানুষের মুখ চিনতে অসুবিধা হত। কণ্ঠস্বরের সাহায্যে তাদের মনে রাখার চেষ্টা করতেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে নিজের অসুস্থতার কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

কঠিন রোগের শিকার শেহনাজ ট্রেজারি। প্রোসোপ্যাগনোসিয়ায় আক্রান্ত 'ইশক ভিশক' অভিনেত্রী। এই রোগে আক্রান্তরা সহজে কারও মুখ চিনে উঠতে পারেন না।

শেহনাজ জানান, তাঁরও মানুষের মুখ চিনতে অসুবিধা হত। কণ্ঠস্বরের সাহায্যে তাদের মনে রাখার চেষ্টা করতেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে নিজের অসুস্থতার কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী। লেখেন, 'আমার প্রোসোপ্যাগনোসিয়া ২ ধরা পড়েছে। এ বার বুঝতে পারছি, কেন আমি মানুষের মুখ চিনতে পারি না। মুখ দেখে অনেককেই চিনে উঠতে পারতাম না। আমার লজ্জা করত। কণ্ঠস্বর দিয়ে তাদের মনে রাখতাম।'

প্রোসোপ্যাগনোসিয়ার লক্ষণগুলি সম্পর্কে সকলকে অবহিত করেছেন শেহনাজ। জানিয়েছেন, এই রোগে আক্রান্ত হলে পরিবার-পরিজন এবং বন্ধুবান্ধবদের চেনাও কঠিন হয়ে ওঠে। অনেক সময় দীর্ঘ দিন পর কোনও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সঙ্গে দেখা হলেও এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

তিনি লেখেন, 'প্রতিবেশী, বন্ধু, সহকর্মী, ক্লায়েন্ট, সহপাঠী- যারা ভাবে তুমি তাদের চিনবে, তাদেরও চিনতে অসুবিধা হয়। কাউকে চিনতে না পারলে নিজেকে সকলের থেকে বিচ্ছিন্ন মনে হয়। এই সমস্যার কারণে অনেক সময় বন্ধুত্ব টেকে না। সহকর্মীরা ক্ষুণ্ণ হন। আমার সঙ্গেও এগুলি হয়েছে।'

২০০৩ সালে শাহিদ কাপুর এবং অমৃতা রাওয়ের সঙ্গে 'ইশক ভিশক' ছবিতে অভিনয় করেন শেহনাজ। কিন্তু নিজের ছাপ ফেলতে পারেননি বলিউডে। এর পর ভ্লগার হিসেবে কাজ শুরু করেন তিনি। তৈরি করেন ভ্রমণ বিষয়ক নানা ভিডিয়ো।

বন্ধ করুন