বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাড়িতে কুমারী পুজো পালন শিল্পার, দুঃস্থ শিশুকন্যাদের খাওয়ালেন নিজের হাতে
এইভাবেই মা গৌরীর আরাধনা করলেন শিল্পা শেট্টি 
এইভাবেই মা গৌরীর আরাধনা করলেন শিল্পা শেট্টি 

বাড়িতে কুমারী পুজো পালন শিল্পার, দুঃস্থ শিশুকন্যাদের খাওয়ালেন নিজের হাতে

  • মেয়ে শমিসার প্রথম নবরাত্রি উপলক্ষ্যেই কুমারী পুজোর আয়োজন করলেন শিল্পা। 

চলতি বছরেই মেয়ের মা হয়েছেন শিল্পা শেট্টি কুন্দ্রা। রাজ-শিল্পার কোল আলো করে এসেছে শমিসা। নবরাত্রির পুন্যতিথিতে মা গৌরীর বন্দনায় লীন করেন নায়িকা। এদিন বাড়িতে কুমারী পুজো সারলেন শিল্পী শেট্টি কুন্দ্রা। নিজের মেয়ে সহ আট শিশুকন্যাকে নিয়ে এদিন এই বিশেষ পুজো সারলেন অভিনেত্রী। অনুরাগীদের সঙ্গে এই বিশেষ মুহূর্তের ভিডিয়ো শেয়ার করে নিয়েছেন তিনি। 

ভিডিয়োতে দেখা গেল ভগবানের আরতি সেরে পুজোর কুমারি পুজোয় ব্রতী হন নায়িকা। প্রথম মেয়ে শমিসাকে দেবীরূপে বরণ করে দেন শিল্পা। এদিন শমিসা একদম সাবেকি সাজে পাওয়া গেল। এরপর অপর আট শিশুকন্যার পা ধুয়ে দিলেন শিল্পা, তাদের আরতি করে দেবীরূপে বরণ করে দিলেন এবং সবশেষে পাত পেরে নিজের হাতে পরিবেশন করে খাওয়ালেন। এদিনের পুজোয় শামিল হয়েছিলেন শিল্পার বোন অভিনেত্রী সমিতা শেট্টিও।

টুইটারে এই ভিডিয়ো শেয়ার করে শিল্পা লেখেন- ‘অষ্টমীর এই পুন্য তিথিতে আমরা খুব সৌভাগন্যবান এবং গর্বিত আমাদের নিজেদের দেবী শমিসাকে পেয়ে, ওর প্রথম নবরাত্রি-তাই কুমারী পুজার আয়োজন করেছিলাম ওকে ও আরও আট কন্যাকে নিয়ে।ওদের সকলকে সবরকম সুরক্ষাবিধি মেনে স্বাগত জানালাম’।

ফেব্রুয়ারি মাসে সারোগেসির মাধ্যমে জন্ম হয়েছে শামিসার। মুম্বই মিররকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে শিল্পা জানান- আমাকে প্রাইভেট জেটে করে শমিসাকে নিয়ে আসতে যেতে হয়েছিল কারণ নির্ধারিত সময়ের তিন সপ্তাহ আগেই ওর জন্ম হয়েছে। আর এইরকম একটা পরিস্থিতিতে (করোনা) মাস্ক পরে ওকে আনা কোনওভাবেই সম্ভবপর ছিল না। ওর জন্মের কয়েক দিনের মধ্যেই দেশব্যাপী লকডাউন শুরু হওয়ায় একটা জিনিস অন্তত ভালো হয়েছে যে আমি পুরো সময়টা ওকে দিতে পেরেছি- তা না হলে অভিনেত্রী হিসাবে কোনওদিনই আমার পক্ষে সেটা সম্ভব হত না'।

২০০৯ সালে ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন শিল্পা। ২০১২ সালের মে মাসে জন্ম নেয় তাঁদের প্রথম সন্তান বিহান। এরপর ২০২০-র ১৫ ফেব্রুয়ারি জন্ম হয় শমিসার। শিল্পা জানিয়েছেন বরাবরই কন্য সন্তানের মা হতে চেযেছেন তিনি। শমিসা আসায়- তাঁর পরিবার পূর্ণ হয়েছে।

বন্ধ করুন