বাড়ি > বায়োস্কোপ > 'মিথ্যে বলা বন্ধ করুন',প্রযোজকদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক গ্যাংস অফ ফিল্মিস্তান ছেড়ে আসা শিল্পা শিন্ডে
প্রযোজক সংস্থার সঙ্গে শিল্পার বিরোধ চরমে 
প্রযোজক সংস্থার সঙ্গে শিল্পার বিরোধ চরমে 

'মিথ্যে বলা বন্ধ করুন',প্রযোজকদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক গ্যাংস অফ ফিল্মিস্তান ছেড়ে আসা শিল্পা শিন্ডে

  • প্রযোজকের দাবিকে উড়িয়ে ব্যক্তিগত স্ক্রিনশট শেয়ার করলেন গ্যাংস অফ ফিল্মিস্তান ছেড়ে আসা শিল্পা শিন্ডে। 

সম্প্রতি অভিনেতা সুনীল গ্রোভারের সাথে বিবাদের কারণ দর্শিয়ে টেলি তারকা শিল্পা শিন্ডে গ্যাংস অফ ফিল্মিস্তান অনুষ্ঠানের মঞ্চ পরিত্যাগ করেছেন । এছাড়াও চুক্তির বাইরে গিয়ে দীর্ঘক্ষণ শ্যুটিং ফ্লোরে কাটানোর পাশাপাশি কোভিড-১৯ প্রোটোকল সেটে বিন্দুমাত্র মেনে চলা হতো না বলেও দাবি করেছিলেন অভিনেত্রী । এবার প্রযোজকের সাথে ই-মেল এবং ব্যক্তিগত চ্যাটের কথোপকথনের স্ক্রিন শট শেয়ার করে বিতর্ককে বেশ ভালো মতোই উস্কে দিলেন শিল্পা।

শো এর প্রযোজক প্রীতি এবং নীতি সিমোইস অভিনেত্রীর করা অভিযোগকে অসত্য বলে দাবি করলে এই স্ক্রিনশট গুলি শেয়ার করে শিল্পা লেখেন ‘ মিথ্যা কথা বলা বন্ধ করুন ‘। শঙ্কিত অভিনেত্রী জানান দীর্ঘ সময় করোনা সুরক্ষাবিধি না মেনে ফ্লোরে কাটানোয় এখন তাঁর শরীরেই কিছু উপসর্গ দেখা দিয়েছে। এই প্রসঙ্গে গত মাসের ২৯শে অগস্টের একটি মেলের স্ক্রিনশট পোস্ট করে অভিনেত্রী দাবি করেছেন ওই দিনই আমরা যৌথ আলোচনার ভিত্তিতে মধ্যস্থতায় পৌঁছেছিলাম এবং তিক্ততা না বাড়িয়ে সরে যেতেই চেয়েছিলাম। সংস্থার পক্ষ থেকে আমার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে ফুল উপহার দিয়ে বিদায়ী মেলও পাঠানো হয়েছিল। কাজেই বর্তমানে অহেতুক বিষয়টিকে ভ্রান্ত দাবি করাটা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক । 

আপাতত তিনি অসুস্থ হলে তাঁর দায়ভার কেউই নেবেন না,কিন্তু অহেতুক বিতর্ক না বাড়িয়ে তাঁকে শান্তিতে থাকতে দেওয়ার অনুরোধ জানান শিল্পা । নিজের পোস্টে লেখেন , ‘ আসলে পুরুষতান্ত্রিক ইন্ডাস্ট্রিতে আমার সমস্যাটা আজ কৌতুকের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভবিষ্যতে আপনাদের সঙ্গে আর কোনও কমেডি শো এর অংশ হওয়ার আগে আমায় অনেকবার ভেবে দেখতে হবে’।

এছাড়াও প্রযোজকের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত চ্যাট শেয়ার করেনা অভিনেত্রী । দেখা যায় মিডিয়ার সামনে প্রচার না করে আগে তাঁদের সাথে কেন কথা বলেননি, এই অভিযোগ করেন প্রযোজক। এমনকি টিম প্লেয়ার হিসেবে শিল্পা অনুপযুক্ত,এমন কথা বলতেও ছাড়েননি তিনি। জানিয়ে দেন আগে এপিসোডের অন্তিম কাট দেখে তারপরেই মন্তব্য করা উচিৎ ছিল শিল্পার ।

পূর্বে পিঙ্কভিলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শিল্পা জানান ‘আমি ভিড়ে দাঁড়িয়ে হাততালি দেওয়ার জন্য এতদিন বাদে কামব্যাক করছি না । সুনীলের পাশে একজন দুজন সুন্দরী মহিলা থাকেন কারণ তিনি তাঁদের প্রপ হিসেবে ব্যবহার করেন । যাবতীয় লাইম লাইট ওনার ওপরেই থাকে , আমাদের কোনো অস্তিত্বকেই গুরুত্ব দেওয়া হয় না’।

যদিও শিল্পার দাবি খণ্ডন করে স্পটবয়কে দেওয়া একটি সাক্ষাত্কারে প্রীতি বলেছিলেন, 'এটি একটি লাইভ স্টেজ সেট আপ এবং সাধারণ দৈনিক ধারাবাহিক নয় যা আপনি লাইন টু লাইন অনুসরণ করবেন।আমি তো বলব বাকি অভিনেতারা যথেষ্ট পেশাদার, যাঁরা এত বছর ধরে এখানে অভিনয় করছেন । আমার কখনোই মনে হয়নি শিল্পা নিজের চরিত্র নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন '। তবে এপিসোডের টেলিকাস্ট না দেখেই অভিনেত্রীর বিতর্ক সৃষ্টি করাকে বাৎসল্যসুলভ আচরণ বলেই কটাক্ষ করেন প্রযোজক ।

বন্ধ করুন