বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mithai: এক বছর পূর্তিতে চুলোচুলি সিদ্ধার্থ-মিঠাইয়ের! হু হু করে ভাইরাল ছবি
মিঠাই-সিদ্ধার্থের কাণ্ড
মিঠাই-সিদ্ধার্থের কাণ্ড

Mithai: এক বছর পূর্তিতে চুলোচুলি সিদ্ধার্থ-মিঠাইয়ের! হু হু করে ভাইরাল ছবি

  • মিঠাই আর উচ্ছেবাবুর অভিনব রসায়ন! বয়স বাড়লেও ‘দিল তো বাচ্চা হ্যায়জি’। 

পায়ে পায়ে এক বছর পূর্তি… মঙ্গলবার ৪ঠা জানুয়ারি ‘মিঠাই’ সিরিয়াল সম্প্রচারের এক বছর পূর্ণ হল। স্বভাবতই এদিন মনোহরায় ছিল সেলিব্রেশনের আমেজ। শ্যুটিং তো চলল, তবে তার মাঝে জমিয়ে আনন্দও করলেন সব্বাই, ছিল কেক কাটিং পর্বও। মিঠাই, উচ্ছেবাবুদের জন্য খুব ‘ইস্পেশ্যাল ডে' এটি। মনোহরা লেখা কেক কেটে এই বিশেষ দিন উদযাপন করলেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু, আদৃত রায়-সহ মিঠাই পরিবারের সকল সদস্য। 

এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশনের পয়লা নম্বর সিরিয়াল। রাত আটটা বাজলেই এখন বাঙালির ড্রয়িং রুম জুড়ে একটাই নাম ‘মিঠাই’। টিআরপি তালিকায় মিঠাই রানির আসন টলাবে এমন সাধ্যি কার! একটানা ৩৯ সপ্তাহ টিআরপি তালিকায় এক নম্বর থাকার রেকর্ড এখন মিঠাই রানির দখলে। আর সেই রেকর্ড যে খুব জলদি ভাঙবে না তা নিশ্চিত। 

নতুন বছরে ‘মিঠাই’-এর কাহিনিতেও বড় টুইস্ট আসবে বলে খবর। মনে মনে পরস্পরকে ভালোবাসলেও এখনও ‘ইজহার-এ-মহব্বত’ হয়ে উঠেনি সিদ্ধার্থ বা মিঠাইয়ের। নতুন বছরে সেটাই হবে সবচেয়ে বড় টুইস্ট। কিন্তু সেইসবের মাঝে নিজেদের সাফল্যটা চুটিয়ে এনজন করছেন সৌমিতৃষা-আদৃতরা। মঙ্গলবার মিঠাইয়ের সেট থেকে একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে ফ্যান পেজগুলোতে সেখানে দেখা যাচ্ছে রীতিমতো চুলোচুলি করছেন সৌমিতৃষা ও আদৃত। সেই মারপিটের ছবি দেখে অবাক ফ্যানেরা। তাঁদের কথায়, ‘এক বছরের বাচ্চাদের মতো মারপিট করে এরা’। কেউ লিখেছেন, ‘অফস্ক্রিনেও মিঠাই রানি আর উচ্ছেবাবুর রসায়ন দেখবার মতো’। 

এদিন মোদক পরিবার একজোট হয়ে কেক কাটল। সেলিব্রেশনের সময় করোনাবিধি মেনে চলল সকলেই। সবার মুখ মাস্কে ঢাকা, তবুও জয়ের চাওড়া হাসি সেই মাস্কভেদ করেই আপনি উপলব্ধি করবেন। এদিন উচ্চেবাবু (আদৃত)-কে কেক খাইয়ে মিষ্টি মুখ করালো মিঠাই ওরফে সৌমিতৃষা। সেলিব্রেশনের ছবি শেয়ার করে সৌমিতৃষা লিখেছেন, ‘সেলিব্রেশন.. ভালোবাসা…জার্নিটা এভাবেই চলতে থাকুক’। 

এক বছর পূর্তির দিনে ইউটিউবে একটি ভ্লগও আপলোড করেছেন সৌমিতৃষা। 'আপনাদের সবার ভালোবাসা না থাকলে এমনটা হতো না, সবাই পাশে থাকো এই ভাবেই', বার্তা টেস বুড়ি মানে তন্বীর। সৌমিতৃষা স্পষ্ট জানালেন, ‘আমরা করোনাবিধি মেনে শ্যুট করছি। কেবল কথা বলছি বলেই মাস্ক খুলেছি’। আদৃতের বার্তা, ‘যত বছর মিঠাই চলবে এমনই আনন্দ-ফূর্তি করে দেখবেন।… আর আপনারা যেমনভাবে গত এক বছর ধরে মিঠাই দেখছেন তেমনভাবে দেখলে মিঠাই আরও অনেকদিন চলবে’। 

 

 

বন্ধ করুন