বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mithai: মিঠাইকে হাতকাটা নাইটি পরাচ্ছে সিদ্ধার্থ, ‘বোল্ড সিনে’ আপত্তি দর্শকদের একাংশের!
মিঠাই ফের ট্রোলিং-এর মুখে

Mithai: মিঠাইকে হাতকাটা নাইটি পরাচ্ছে সিদ্ধার্থ, ‘বোল্ড সিনে’ আপত্তি দর্শকদের একাংশের!

  • পরিবারের সঙ্গে বসে তো আর মিঠাই দেখা যাচ্ছে না'- দাবি মিঠাই হেটার্সদের। ধুয়ে দিল ফ্যানেরা।

ওমির গুলি মৃত্যুর মুখে ঢেলে দিয়েছিল মিঠাই-কে। তবে নায়িকা মরলে তো গল্পই ফুরিয়ে যাবে! তাই একদম সুস্থ হয়ে ‘মনোহরা’য় ফিরেছে মিঠাই। বাড়ির সবার আদরের মিঠাইরানিকে স্বাগত জানাতে কোনও খামতি রাখেনি হল্লা পার্টি তথা উচ্ছেবাবু। মিঠাইয়ের হাসিখুশি মুখ, তাঁর দুষ্টমি দেখতে মুখিয়ে রয়েছে সব্বাই। কিন্তু এর মাঝেই ঘটল বিপত্তি। 

‘মিঠাই’-এর সাম্প্রতিক এপিসোড নিয়ে ধুন্ধুমার কাণ্ড নেটপাড়ায়। মিঠাই অনুরাগীদের মধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে ঝামেলা। আসলে সিরিয়ালকে আরও আকর্ষণীয় করতে প্রতিদিনই নিত্যনতুন চমক দেওয়ার চেষ্টা করেন নির্মাতারা। আসলে সিরিয়াল শুরুর দেড় বছরেরও বেশি সময় পর সেরার আসন ধরে রাখা কি সহজ কথা? 

বউয়ের প্রতি এখন অধিক যত্নশীল উচ্ছে বাবু। ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী এবার দেখা যাবে মিঠাই-কে হাতকাটা নাইট স্যুট পরিয়ে দিচ্ছেন সিদ্ধার্থ। মিঠাই এখনও সঠিকভাবে নিজের হাত নাড়াচাড়া করতে পারছে না, সেটি সাপোর্ট ব্যাগে ঝোলানো রয়েছে যাতে। তাই বউকে পোশাক বদলাতে সাহায্য করছে সিদ্ধার্থ। তবে শাড়ির বদলে মিঠাইকে হাতকাটা নাইটিতে দেখে অনেকেরই চোখ কপালে। 



‘মিঠাই’ হেটার্সরা তো রীতিমতো সমালোচনা জুড়ে দিয়েছেন। তাঁরা বলছেন, ‘মিঠাই তো দুপুর ঠাকুরপো হয়ে যাচ্ছে, ফ্যামিলির সঙ্গে বসে আর দেখা যাবে না’। এতেই ফুঁসে উঠেছেন ভক্তরা। একজন লিখেছেন, ‘মিঠাইয়ের নাইট ড্রেস নিয়ে ট্রল করার কারণ টা বুঝতে পারছি না। ওর হাতে ব্যান্ডেজ। তাই ওকে সিড ঘরের মধ্যে হাত কাটা ড্রেস দিলো। সে নিজেও মিঠাই এর সাথে এখন যথেষ্ট সহজ। তাই স্বামীর কর্তব্য করলো। ও নিশ্চয়ই মিঠাইকে দাদাই, ঠাম্মি বা কাকা, বাবাদের সামনে এমন পোশাকে বার করবে না। একটা মেয়েকে যদি তার স্বামী একটু আধুনিক বানায় এই সুযোগে তাহলে ক্ষতি কি।' অপর এক ফ্যান লেখেন, ‘অসুস্থতার সময় সুবিধানুযায়ী পোশাক সবাই পরে, এতে সমস্যা কোথায়?’

এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘মিঠাই’। এই সিরিয়ালের প্রতিটি বিষয় খুঁটিয়ে দেখে ফ্যানেরা। বলা যায়, আতস কাঁচের নীচে রেখে চলে চুলচেরা বিশ্লেষণ। হাসপাতালে মিঠাই-এর নেইলপলিশ মুছে যাওয়া থেকে মিঠাই-এর পোশাক, সবকিছু নিয়েই হয় আলোচনা। এমনি এমনি কী আর ৫২ সপ্তাহ বাংলা সেরা হওয়া যায়? আর কয়েকঘন্টা পরেই সামনে আসবে টিআরপি রিপোর্ট। গত সপ্তাহের মতো এইবারও কি সেরা হবে মিঠাই? সেটাই এখন দেখবার।



 

 

 

বন্ধ করুন