বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Arpita Mukherjee: পুরো ভ্রান্তিবিলাস! নাম বিভ্রাটে হেনস্থার শিকার গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়
নাম বিভ্রাটের জর্জরিত গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়

Arpita Mukherjee: পুরো ভ্রান্তিবিলাস! নাম বিভ্রাটে হেনস্থার শিকার গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়

  • ‘আমি সেই মহিলা নই যাকে ইডি গ্রেফতার করেছে’, পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা ভেবে বসছে গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। চরম বিপাকে মুম্বইনিবাসী বাঙালি গায়িকা!

কথায় বলে, ‘নামের আমি, নামের তুমি- নাম দিয়ে যায় চেনা’। অথচ এই নামই এখন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের জীবনে ডেকে এনেছে চরম বিভ্রাট! গত কয়েক ঘন্টায় সংবাদমাধ্যম থেকে পাড়ার রক- সর্বত্র আলোচনার একটাই বিষয় পার্থ-ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। সার্চ বাটনে ক্লিক করে তাঁর জীবন বৃত্তান্ত জেনে ফেলবার আগ্রহ মানুষের মধ্যে। আর এর জেরেই বহু মানুষ, এমনকী সংবাদমাধ্যমের একটা বড় অংশও বিরাট গণ্ডোগোল করে ফেলেছেন। এর জেরে অতিষ্ঠ গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়!

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি ২০ লক্ষ নগদ টাকা, এবং ৭৯ লক্ষ টাকার সোনার গয়নার হদিশ মেলার পর থেকেই অর্পিতাকে নিয়ে লোকজনের আগ্রহের শেষ নেই। নাম এবং পদবী এক হওয়ার দরুন গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে অনেকেই গুলিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী-মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। এর জেরে বিনা দোষে অভিযোগের আঙুল উঠছে তাঁর দিকে, এই বাঙালি গায়িকাকে অনেকেই দোষারোপ করছেন। জানলে অবাক হবেন একাধিক জাতীয় স্তরের সংবাদমাধ্যম এই ঘটনায় পার্থ ঘনিষ্ঠ হিসাবে গায়িকা অর্পিতার ছবি ব্যবহার করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এর তীব্র প্রতিবাদ জানালেন মুম্বই নিবাসী বাঙালি গায়িকা অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। ধৈর্য্যের বাঁধ ভাঙতে তিনি লেখেন, ‘সবটা পরিষ্কার করে বোঝানো খুব দরকার। আমি সঙ্গীতশিল্পী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। সেই অর্পিতা নয় যাকে ইডি তলব করেছে। আমার সঙ্গে এই কেসের কোনও সম্পর্ক নেই। যেই অর্পিতাকে ইডি গ্রেফতার করেছে সে কলকাতার টলিউডের একজন অভিনেত্রী। আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি যে মানুষজন আমার সঙ্গে উনাকে গুলিয়ে ফেলছে যেখানে দুজনের মধ্যে কোনও মিল নেই।’ 

এরপর অর্পিতা আরও লেখেন, ‘এটাই সোশ্যাল মিডিয়ার সমস্যা, মানুষজন কোনওরকম তথ্য যাচাই না করেই সিদ্ধান্তে পৌঁছে যায়। এবং কারুর চরিত্র নিয়ে টানাটানি করতে এক মিনিট সময় নষ্ট করে না। এই পোস্টটা সেই সকল মানুষদের উদ্দেশে’। 

এরপরেও জাতীয় স্তরের একাধিক সংবাদ চ্যানেলে খবর পরিবেশনের সময় পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা হিসাবে গায়িকার ছবি ব্যবহার করা হয়। স্বভাবতই রাগে ফুঁসছেন গায়িকা। কেন তথ্য যাচাই না করেই এইভাবে সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে? প্রশ্ন তোলেন তিনি। এই ঘটনায় তাঁর সম্মানহানি হয়েছে, তাঁর চরিত্র কালিমালিপ্ত হয়েছে- তাই প্রকাশ্যে ওই সকল চ্যানেলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনার দাবি তুলেছেন অর্পিতা। না হলে আইনিপথে হাঁটবেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন