বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Durnibar-Oindrila: মীনাক্ষী অতীত! দু-বছর পর ফের বিয়ের পিঁড়িতে দুর্নিবার, পাত্রী টলিপাড়ার চেনা মুখ

Durnibar-Oindrila: মীনাক্ষী অতীত! দু-বছর পর ফের বিয়ের পিঁড়িতে দুর্নিবার, পাত্রী টলিপাড়ার চেনা মুখ

মার্চে বিয়ে করছেন দুর্নিবার-ঐন্দ্রিলা 

Durnibar-Oindrila: প্রেমের কথা জানাজানি হয়েছিল গত বছরই। এবার নতুন জীবন শুরু করছেন দুর্নিবার। আগামী মার্চেই আবারও বিয়ের পিঁড়িতে গায়ক। পাত্রী ‘ইন্ডাস্ট্রি’র কাছের মানুষ। 

নতুন বছরের শুরুতেই টলিপাড়ায় বাজতে চলেছে বিয়ের সানাই। দু-বছর পর আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন সঙ্গীতশিল্পী দুর্নিবার সাহা। গত বছর জুন মাসেই দুর্নিবার-মীনাক্ষীর দাম্পত্যে ফাটলের খবর শোনা গিয়েছিল। বিচ্ছেদের কারণ হিসাবে উঠে আসে দুর্নিবারের নতুন প্রেমের খবর। মাস ঘুরতেই নতুন প্রেমের খবরে শিলমোহর দিয়েছিলেন গায়ক, আর নতুন বছরে দিলেন দ্বিতীয় বিয়ের খবর। 

 মাস কয়েক ধরেই প্রেম সম্পর্কে আবদ্ধ দুর্নিবার এবং ঐন্দ্রিলা (মোহর) সেন। মোহর ইন্ডাস্ট্রির অতি পরিচিত নাম, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের ব্যক্তিগত জনসংযোগ আধিকারিক তিনি। আগামী ৯ই মার্চ সাত পাক ঘুরবেন দুজনে। এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন টলিপাড়ার এই প্রেমিক যুগল। ঐন্দ্রিলা-দুর্নিবারের প্রেমের শুরুটা কবে? এই সময়কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রসেনজিৎ-এর নিজস্ব জনসংযোগ আধিকারিক জানান, ‘২০২১-এর ডিসেম্বরে সামপ্লেস এলসে একটা শো শুনতে গিয়েছিলাম, সেখানেই আলাপ। ফোন নম্বর চালাচালি হয়,তবে কথা হয়নি। এরপর দু-মাস পর এক ট্রেলার লঞ্চ ইভেন্টে দেখা। তখন আমি ওকে জিজ্ঞাসা করি পার্কস্ট্রিটের সেই পাবে যাবে কিনা, ও আমার কাছে জানতে চায় লক্ষ্মীছাড়ার শো শুনতে যাব কিনা'। 

এই ‘লক্ষ্মীছাড়া’র শো'ই দুর্নিবার আর ঐন্দ্রিলার জীবনে সেতুবন্ধন করে দেয়। শো'তে পৌঁছাতে দেরি হচ্ছিল ঐন্দ্রিলার, তাই ফোন করে তাঁকে গান শোনানো শুরু করেন দুর্নিবার। তাঁর কথায়, ‘আমরা দু’জনেই দুজনের প্রতি একটা টান অনুভব করেছিলাম, সেই পথেই হাঁটা শুরু করি'। 

ভালোবেসেই মীনাক্ষীকে বিয়ে করেছিলেন দুর্নিবার। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে গাঁটছড়া বাঁধলেও ২০১৭ সালে আইনি মতে বিয়ে সেরে ফেলেছিলেন তাঁরা। ভাঙা সম্পর্ক এবং ফের প্রেমে পড়া নিয়ে কী ভাবনা গায়কের? দুর্নিবার জানান, ‘কিছু সম্পর্ক যে ঠিক নয়, তা বোঝার পর একটা জায়গায় এসে মনে হল এতদিনে আমার হাতটা শক্ত করে ধরে রাখছে কেউ। মোহর আমার জীবনের সেই মানুষটা। …. সম্পর্কে এতটা ঠিক নিজেকে কোনওদিন মনে হয়নি’। 

মোহরের কাছে বিয়ে মানে ‘রঙিন অনুষ্ঠান’। ধুমধাম করেই বিয়ের পরিকল্পনা রয়েছে দুজনের। বিয়ের প্লে-লিস্টও ঠিক করে ফেলেছেন জুটি। মোহরের তরফে থাকছে বিয়ের সানাই আর দুর্নিবারের গাওয়া রবীন্দ্রসঙ্গীত। অন্যদিকে পাত্রের পছন্দ জ্যাজ মিউজিক। দুজনেরই এখন ‘মনটা আহারে’। দুর্নিবার গতিতে এগিয়ে চলেছে এই সম্পর্ক। 

গত বছর জুলাই মাসে দুর্নিবারের সঙ্গে প্রেম সম্পর্ককে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা (মোহর)। ফেসবুক পোস্টে দুর্নিবারকে জড়িয়ে ধরা ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছিলেন, 'জীবনটা সুন্দর যখন তুমি আশেপাশে থাকো। ধন্যবাদ আমার জীবনে আসবার জন্য এবং আমার পৃথিবীটা এতো সুন্দর করে তোলবার জন্য। হ্যাঁ, তোমাকে ভালোবাসি!' প্রেমের কথা আগেই জানা গিয়েছিল, এবার তার প্রেক্ষাপটও স্পষ্ট। 

 

 

বন্ধ করুন