বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sonu Sood: ২০ কোটির আয়কর ফাঁকির অভিযোগের পর নেট-মাধ্যমে খোলা চিঠি সোনুর, ‘কর ভলা হো ভলা’!
সোনু সুদ। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সোনু সুদ। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

Sonu Sood: ২০ কোটির আয়কর ফাঁকির অভিযোগের পর নেট-মাধ্যমে খোলা চিঠি সোনুর, ‘কর ভলা হো ভলা’!

  • তাঁকে ঘিরে ওঠা একাধিক অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন চারদিন পর। 

সোনু সুদের বাড়ি ও অফিসে আয়কর অফিসারদের হানা হয়েছিল আচমকাই বুধবারে। তারপরেই জানানো হয় ২০ কোটি টাকার আয়কর ফাঁকি দিয়েছেন তিনি ও তাঁর সহকর্মীরা। প্রায় তিনদিন ধরে সোনু সুদের অফিস এবং বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে আয়কর দফতরের আধিকারিকরা। তবে সে নিয়ে কোনও মন্তব্য না করলেও সোনু জানিয়ে দিলেন, ফিরছেন জনসেবায়। ফলাও করে টুইটারে ঘোষণা করলেন নিজের ফিরে আসা!

আয়কর দফতরের দাবি, সোনু সুদের এনজিও-র তরফে বিদেশে থেকে প্রায় ২.১ কোটি টাকা অনুদান হিসাবে তোলা হয়েছে বিভিন্ন ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে, যা সরাসরি যা ফরেন কন্ট্রিবিউশন (রেগুলেশন) অ্যাক্টের সরাসরি লঙ্ঘন। ২০২০-র লকডাউন থেকেই করোনা আবহে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সোনুর এনজিও। গোটা দেশের কাছে তিনি ‘মসিহা’। তাই কর ফাঁকি দেওয়ার খবরে অনেকেই নড়েচড়ে বেছিলেন। কারও কারও বিশ্বাসে টালও খেয়েছিল।

তবে, সোমবার টুইট করে সোনু জানালেন, ‘তোমার দিকের গল্প সব সময় ফলাও করে বলার প্রয়োজন পড়ে না। কারণ সময় সেটা করে দেয়। আমি আমার সমস্ত শক্তি আর হৃদয় দিয়ে গোটা ভারতের মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। আমার ফাউন্ডেশনের সমস্ত অর্থ কোনও আর্তের সাহায্যের জন্য খরচ হয়েছে। অনেক ব্র্যান্ডকে আমি অনুরোধ করেছি আমার এনডর্সমেন্ট ফি যেন সোজাসুজি পাঠিয়ে দেওয়া হয় আমার ফাউন্ডেশনে। কারণ একটাই উদ্দেশ্য, সাহায্যের হাত যেন বন্ধ না হয়।’

অভিনেতা আরও লেখেন, ‘গত চারদিন আমার পুরো সময়টা গিয়েছে কিছু অতিথির পাশে থাকার জন্য। কিন্তু আমি আবার ফিরে এসেছি। আবার জনসেবায়, মানুষের প্রাণ বাঁচাতে নিজেকে উৎসর্গ করতে।’ এই খোলা চিঠির সঙ্গে ‘কর ভলা হো ভলা’, ‘জয় হিন্দ’ জুড়ে দিয়েছেন তিনি।

বন্ধ করুন