সোনু সুদ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সোনু সুদ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

100 Hours 100 Stars: মানবিক সোনু সুদ,কোয়ারেন্টাইনে দুঃস্থ মানুষের সেবা করেই সময় কাটাচ্ছেন অভিনেতা

  • মুম্বইয়ের জুহুস্থিত নিজের হোটেলের দরজা আগেই স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য খুলে দিয়েছেন সোনু সুদ। প্রত্যেক দিন কয়েকশো মানুষকে রেশন সামগ্রী পাঠাচ্ছেন অভিনেতা। 

করোনা সংকটে শুরু থেকেই দেশবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছে বলিউড তারকারা। পিছিয়ে নেই অভিনেতা সোনু সুদও। করোনা যুদ্ধে জরুরি পরিষেবায় নিযুক্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের থাকার জন্য নিজের হোটেলের দরজা খুলে দিয়েছেন দাবাং-এর ছেদি সিং। আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে অভিনেতা জানিয়েছিলেন, স্বাস্থ্যকর্মীরাই ‘আসল হিরো’, এই কঠিন পরিস্থিতিতে গোটা দেশের উচিত তাঁদের পাশে দাঁড়ানো। 

প্রত্যেকদিন দুঃস্থ মানুষের খাবার জোগানও দিচ্ছেন সোনু, এই ব্যস্ততার ফাঁকেই ফিভার নেটওয়ার্ক ও হিন্দুস্তান টাইমসের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত 100 Hours 100 Stars অনুষ্ঠানে শামিল হলেন অভিনেতা। 

এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে জরুরি হল সহানুভূতিশীল এবং মানবিক হওয়া। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলেও একে অপরের পাশে দাঁড়ানোটা খুব দরকার, বললেন সোনু।

তিনি জানান, ‘সকাল বেলা ৩-৪ ঘন্টা সময় যায় আমাদের গোটা বিষয়টা কো-অর্ডিনেট করতে। মুম্বইয়ের নানান অংশে দুঃস্থ মানুষদের রেশন সামগ্রী ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস আমরা পাঠাচ্ছি।খাবার এলে,সেগুলো আমরা প্যাক করছি,মানুষ সেগুলো নিতে আসছে। একদিনের কাজ শেষ হলে পরের দিনের কাজে আমরা লেগে পরি। তাই যাঁরা এই কোয়ারেন্টাইনের সময় বাড়ি বসে বোর ফিল করছেন তাঁরা অবশ্যই অন্য মানুষের কাজে লাগতে পারেন। আমি আমার বন্ধুদের বলেছি,আপনাদেরও বলছি নিজের বাড়ির রান্নাঘরে একজন মানুষ বা একটা পরিবারের জন্য অন্তত রান্না করুন,দেখবেন তাহলেই কাউকে খালি পেটে ঘুমতে হবে না। 

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দুঃস্থের পাশে দাঁড়াতেই #100Hours100Stars-র উদ্যোগ নিয়েছে ফিভার নেটওয়ার্ট। দেশের সবচেয়ে বড় ডিজিট্যাল এই ফেস্ট শুরু হয়েছে ২-রা মে। এই উদ্যোগের মাধ্যমে কঠিন সময়ে জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের কুর্নিশ জানানোর পাশাপাশি ১০০ ঘন্টার সুস্থ বিনোদন পৌঁছে দেওয়ায় হচ্ছে দেশবাসীর কাছে। রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থেকে অভিনেতা কিংবা ক্রীড়াবিদ কেমনভাবে কাটছে তাঁদের লকডাউনের দিনগুলো? বাড়ি বসেই ভিডিয়ো কলের মাধ্যমে তাঁর হদিশ দিচ্ছেন তারকারা। এই ক্যাম্পেনের মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ দান করা হবে পিএম কেয়ার্স ফান্ডে।

বন্ধ করুন