বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পাল্লা দিয়ে চলছে হাউজফুল, বাড়ছে ভিড়, সামাল দিতে ভোর ৪ঃ৩০-য়ে শুরু ‘সূর্যবংশী’!
'সূর্যবংশী' ঘিরে পাল্লা দিয়ে আগ্রহ বাড়ছে দর্শকের। (ছবি সৌজন্যে -টুইটার)
'সূর্যবংশী' ঘিরে পাল্লা দিয়ে আগ্রহ বাড়ছে দর্শকের। (ছবি সৌজন্যে -টুইটার)

পাল্লা দিয়ে চলছে হাউজফুল, বাড়ছে ভিড়, সামাল দিতে ভোর ৪ঃ৩০-য়ে শুরু ‘সূর্যবংশী’!

  • শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে বহু প্রতীক্ষিত ছবি 'সূর্যবংশী'।অক্ষয়-ক্যাটের এই অ্যাকশন থ্রিলার ঘিরে পাল্লা দিয়ে চাহিদা বাড়ছে দর্শকদের।

শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে বহু প্রতীক্ষিত ছবি 'সূর্যবংশী'। ছবিতে দুই মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন অক্ষয় কুমার এবং ক্যাটরিনা কাইফ। গত বছরের মার্চে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল এই ছবি। তবে করোনা অতিমারির সুবাদে দু' দুবার তারিখ ঘোষণা করেও পিছিয়েছিল ছবির মুক্তি।করোনা পরবর্তী সময়কালে মুক্তি পেতেই বক্স অফিসে আশার আলো জাগিয়েছে এই ছবি। রোহিত শেট্টি পরিচালিত এই ছবি দীপাবলির মরশুমে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতেই প্রথমদিনে বিশ্বজুড়ে মোট ২৬ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে। শুধু তাই নয়, 'সূর্যবংশী' ছবি নিয়ে এতটাই আগ্রহ জন্মেছে মনে যে সারা রাত হলে এই ছবি চালানোর পরেও ভোর সাড়ে চারটে নাগাদও দর্শকদের চাপে পড়ে ফের শুরু করতে হল এই ছবি!

অক্ষয়-ক্যাটের এই অ্যাকশন থ্রিলার ঘিরে দর্শকের প্রত্যাশা কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে তা এই একটিমাত্র উদাহরণেই পরিষ্কার। শুরু থেকেই শুরু করা যাক গোটা ঘটনাটি। একে করোনা পরবর্তী সময় তার ওপর অ্যাকশন থ্রিলার। সঙ্গে রোহিত শেট্টি এবং অক্ষয়ের ধামাকা জুটি। মানে এককথায় বিনোদনের সমস্ত মশলা মজুদ। আশায় বুক বেঁধেছিল দর্শককুল। এই আলোর উৎসবে তাই ভরে উঠেছে সিনেমা হলের আসনও। এতটাই চাহিদা বাড়ছিল যে মুম্বইয়ের বোরিভেলি অঞ্চলের ম্যাক্সাস সিনেমা হল এই সময়ে দাঁড়িয়েও গতকাল অর্থাৎ ৫ নভেম্বর রাত ১১:৪৫ নাগাদ শেষ শো চালায়। ঘটনার শেষ এখানেই নয়। শেষ শো হলেও বাইরে বাড়তে থাকে টিকিটের চাহিদা। বাধ্য হয়েই টিকিট কাউন্টার খুলতে হয় হল মালিককে। শুধু তাই নয়, এরপর পরপর চলতে শুরু করে 'সূর্যবংশী'-র শো। ১২:৩০, ১:১৫ এবং ২:০০!

তাতেও থামানো যায়নি দর্শকদের। বাধ্য হয়ে ঘণ্টা আড়াইয়ের বিরতি ঘোষণা করে এদিন অর্থাৎ শনিবার ৬ নভেম্বর ভোর সাড়ে চারটে থেকে ফের 'সূর্যবংশী'-র শো চালু করতে হয় হল মালিককে। জানা গেছে সবকটি শো ছিল হাউজফুল নতুবা বেঁচে ছিল মাত্র হাতে গোনা কয়েকটি আসন! ভায়ান্ডার অঞ্চলের ম্যাক্সাস সিনেমা হলের ছবিতে খানিকটা একরকম। রাত ১২:৩০-য় দর্শকদের চেইপ পড়ে হল মালিককে ঝাঁপ খুলতে হয়েছিল। জানা গেছে, টিকিটের বিক্রি হয়েছিল ভালোই। চেম্বুরের মুভি টাইমস-এর হলেও চুটিয়ে 'সূর্যবংশী'-র টিকিট বিক্রি হয়েছে রাত ১২:৩০ টার শো-এর! শেষ পাওয়া খবরে জানা গেছে, গতকালের এহেন সাড়া পেয়ে আজও একই শো-টাইমিং রেখেছেন হল মালিকেরা।

প্রসঙ্গত, প্রথম দিনেই বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করেছে ‘সূর্যবংশী'। হলিউড ছবি ইটারনালস (Eternals)-ও মুক্তি পেয়েছ ৫ নভেম্বর। তাই প্রথম থেকেই সিনেমা সমালোচকদের কাছে ‘সূর্যসংশী’কে উঠেছিল প্রশ্ন । বিশ্বজুড়ে ৬৬টা দেশে মোট ১৩০০ স্ক্রিনে মুক্তি পেয়েছে সূর্যবংশী। যদিও ভারতে কতগুলো স্ত্রিনে চলছে এই ছবি তা এখনও বাণিজ্য বিশেষজ্ঞদের দ্বারা ভাগ করা হয়নি।

বন্ধ করুন