বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sovan-Baisakhi: ‘বুড়ো বয়সে ভীমরতি ধরেছে’, ঘোড়ার গাড়িতে হাতে হাত ধরে শোভন-বৈশাখী; ভাইরাল ভিডিয়ো
প্রেম-সফরে ডুব দিলেন শোভন-বৈশাখী
প্রেম-সফরে ডুব দিলেন শোভন-বৈশাখী

Sovan-Baisakhi: ‘বুড়ো বয়সে ভীমরতি ধরেছে’, ঘোড়ার গাড়িতে হাতে হাত ধরে শোভন-বৈশাখী; ভাইরাল ভিডিয়ো

  • ফের ভাইরাল শোভন-বৈশাখীর ভিডিয়ো, এবার ভিক্টোরিার সামনে রোম্যান্সে মজে কপোত-কপোতি। 

বয়স ৫৭ না ১৭ তা বোঝা দায়! প্রেম সাগরে ডুব সাঁতার কাটছেন শোভন-বৈশাখী। পুজো মানেই প্রেমের মরসুম। আর চলতি বছর এই প্রেমের মরসুমে শোভন-বৈশাখী জুটির কাছে ফিকে বাকি সকলে। এখন তাঁদেরই প্রেমের চর্চা সবার মুখে মুখে। কখনও ‘মম চিত্তে' গানে ‘তা তা থৈ থৈ’ করছেন বৈশাখী, আবার কখনও শাম্মী কাপুরের বিখ্যাত হিন্দি সিনেমার গানে শোভনকে ঘিরে ঝড় তুলছেন ক্যামেরার সামনে। আবার কখনও শোভন বান্ধবী বলে উঠছেন, ‘আমার চোখে তো সকলই শোভন’।

ফের ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে শোভন-বৈশাখীর নতুন ভিডিয়ো। যেখানে ভিক্টোরিয়ার সামনে জুড়ি গাড়িতে দেখা মিলল এই কপোত-কপোতির। প্রেম আর ভিক্টোরিয়া মিলে মিশে একাএকার। এবার সেই ভিক্টোরিয়ার সামনেই রোম্যান্সে মজলেন শোভন-বৈশাখী। যদিও তাঁদের এই রসালো রোম্যান্সে মন ভিজছে না নেটপাড়ার। চরম ট্রোলড হচ্ছেন জুটি। একজন জনৈক সেই ভিডিয়ো নিজের ফেসবুকের দেওয়ালে শেয়ার করে লিখেছেন, ‘লোক হাসানোর একটা সীমা থাকা উচিত’। উল্লেখ্য, এক সংবাদ চ্যানেলের বিশেষ অনুষ্ঠান সূত্রেই ভিক্টোরিয়ার সামনে শ্যুটিং সারছিলেন তাঁরা। 

কেউ কমেন্ট বক্সে লিখেছেন- ‘অশোভনী শোভন’, কেউ বলছেন- ‘নাটকের একটা শেষ থাকা উচিত’।কেউ তো সরাসরি লিখেছেন, ‘বুড়ো বয়সে ভীমরতি ধরেছে’।তবে সেই সব নিয়ে কোনও মাথাব্যাথা নেই এই লাভ বার্ডসের। 

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তো ভিক্টোরিয়ার সামনে দাঁড়িয়ে সটান শোভন চট্টোপাধ্যায়কে প্রশ্নই করে বসলেন- ‘তোমার মধ্যে যে এতো রোম্যান্স তা তো বুঝিনি বাবা… বলতো সত্যি করে কলেজে পড়বার সময় কাকে নিয়ে ভিক্টোরিয়ায় প্রেম করতে আসতে?' 

কখনও ভিক্টোরিয়া, কখনও গড়ের মাঠ, কখনও প্রিন্সেপ ঘাট- কলকাতার সমস্ত ‘লাভ-স্পট’-এ ঘুরে ঘুরে হাতে হাতে ধরে গান গাইতেও ওই সাক্ষাত্কারে দেখা যাচ্ছে শোভন-বৈশাখীকে। তাঁদের সাফ বার্তা- ‘কুছ তো লোগ কহেঙ্গে, লোগো কাম হেয় কেহনা'। 

বন্ধ করুন