বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ভোটে হার,নগরীর নটী বিতর্ক ভুলে ছেলে ও হবু বউমার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন শ্রাবন্তী!
অভিমন্যু আর দামিনীর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন শ্রাবন্তী
অভিমন্যু আর দামিনীর সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন শ্রাবন্তী

ভোটে হার,নগরীর নটী বিতর্ক ভুলে ছেলে ও হবু বউমার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন শ্রাবন্তী!

  • টলিউডে ফের শক্ত মাটি খুঁজতে মরিয়া শ্রাবন্তী। আপতত পরিবারের সঙ্গেই কাটছে সময়। 

শ্রাবন্তীর ব্যক্তিগত জীবন হামেশাই থেকেছে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে। এক বছর যেতে না যেতেই ভেঙেছে শ্রাবন্তীর তৃতীয় বিয়ে। রোশনের সঙ্গে আইনি পথে হেঁটে এখনও ডিভোর্স না নিলেও গত বছর অক্টোবর থেকেই আলাদা থাকছেন এই জুটি। এর মাঝেই আচমকাই প্রকাশ্য রাজনীতির ময়দানে পা রাখেন শ্রাবন্তী। তাও ১৮০ ডিগ্রী ঘুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী যোগ দেন বিজেপিতে। মিলেছিল নির্বাচনী টিকিটও, তবে বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে গো-হারা হারেন শ্রাবন্তী।

বিজেপির তুরুপের তাস হিসাবে ধরা হয়েছিল যে শ্রাবন্তীকে, তিনি পার্থর কাছে হেরেছেন ৫০ হাজার ৮৮৪ ভোটে। নির্বাচনী হার নিয়ে সেভাবে মুখ খুলতে দেখা যায়নি শ্রাবন্তীকে, তবে সুর নরম করে মমতাকে পিসি বলে কটাক্ষ নয়, বরং দিদি বলে সম্বোধন করে জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এমনকি দলীয় সহকর্মী তথাগত রায়ের নগরীর নটী বিতর্কেরও কড়া জবাব দিয়েছেন। এর মাঝেই ছেলে আর হবু বউমা দামিনীর সঙ্গে সময় কাটাতে দেখা গেল শ্রাবন্তীকে। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শ্রাবন্তী পুত্র অভিমন্যু ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে মা ও প্রেমিকার সঙ্গে একটি ছবি আপলোড করেন। ছবিতে ফ্লোরাল প্রিন্টেট ড্রেসে পাওয়া গেল বছর ৩৪-এর নায়িকাকে, অন্যদিকে তাঁর হবু বউমার পরনে ছিল কালো গ্লিটারি ড্রেস।ক্যাজুয়াল জিনস, সাদা টি-শার্ট আর জ্যাকেটে দেখা মিলল অভিমন্যুর। মা ও প্রেমিকা জাপটে ধরে রয়েছে তাঁকে। উল্লেখ্যে ভোটের প্রচারেও শ্রাবন্তীর পাশে দেখা গিয়েছিল অভিমন্যু ও দামিনীকে। 

হার ভুলতে ছেলের সহায় শ্রাবন্তী? 
হার ভুলতে ছেলের সহায় শ্রাবন্তী? 

ভোটে হেরে কী বার্তা শ্রাবন্তীর? তিনি, নির্বাচনের অংশ হতে গর্বিত হওয়ার কথা লেখেন টুইটারে, ধন্যবাদ জানান বেহলাবাসীকে। আর মমতার উদ্দেশে লেখেন- ‘অভিনন্দ দিদি এবং প্রত্যেক তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীকে, তাঁদের জয়ের জন্য। আশা করছি এই জয় আমাদের সমাজে আরও উন্নয়ন নিয়ে আসবে’। টুইটে মমতা ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগও করেন শ্রাবন্তী। 

অন্যদিকে তথাগত রায়ের কটাক্ষের পালটা জবাব দিয়ে বলেছেন- ‘আপনার কাছে কি প্রমাণ আছে, আমরা ভোটের টাকায় বেড়িয়েছি বা কেলি করেছি! যদি থাকে, তা হলে প্রমাণ দিয়ে তবেই কথা বলুন।’

বন্ধ করুন