বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Srabanti-Abhirup: শ্রাবন্তীকে জন্মদিনের আদুরে শুভেচ্ছা চর্চিত প্রেমিক অভিরূপের, কী লিখলেন?

Srabanti-Abhirup: শ্রাবন্তীকে জন্মদিনের আদুরে শুভেচ্ছা চর্চিত প্রেমিক অভিরূপের, কী লিখলেন?

শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও অভিরূপ নাগ চৌধুরী 

এখন শ্রাবন্তীর সবচেয়ে কাছের বন্ধু অভিরূপ নাগ চৌধুরী। প্রেমের কথা মুখে স্বীকার করেননি, কিন্তু তাতে কী? টলিউডের অন্দরে শ্রাবন্তী-অভিরূপের প্রেম এখন ‘ওপেন সিক্রেট’। 

তাঁর রূপের জৌলুসে পাগলপাড়া আট থেকে আশি। শ্রাবন্তীর বয়স যেন কিছুতেই বাড়ে না। তবে শনিবার শ্রাবন্তী পা দিলেন ৩৬-এ। জন্মদিন উপলক্ষ্যে শ্রাবন্তী ফের পাড়ি দিয়েছে বিদেশে। সঙ্গী ছেলে অভিমন্যু, তাঁর গার্লফ্রেন্ড দামিনী আর? শ্রাবন্তীর বিশেষ বন্ধু অভিরূপ আজকাল সবসময়ই শ্রাবন্তীর সফরসঙ্গী হন, এই বিশেষ দিনটাও তিনি সঙ্গে থাকবেন সেটাই স্বাভাবিক।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সবসময়ই লাইমলাইটে থাকেন শ্রাবন্তী। অভিনেত্রীর কাজ নিয়ে যতটা না চর্চা হয়, তার থেকে বেশি চর্চা হয় ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। শ্রাবন্তীর পরপর তিনটে বিয়ে ভেঙেছে তবে আবারও প্রেমে পড়েছেন নায়িকা, সেই গুঞ্জন টলিপাড়ার সর্বত্র। ব্যবসায়ী অভিরূপ নাগ চৌধুরীর সঙ্গে তাঁর প্রেমের চর্চা প্রায় এক বছর ধরে কানে আসছে। নায়িকার ঘনিষ্ঠমহলের কাছে শ্রাবন্তী-অভিরূপের সমীকরণ অজানা নয়, যদিও প্রকাশ্যে অভিরূপকে শুধুই ‘ভালো বন্ধু’ বলে উল্লেখ করেছেন শ্রাবন্তী।

নায়িকার জন্মদিনে কোনওরকম রাখঢাক না রেখেই শুভেচ্ছা বার্তা জানালেন অভিরূপ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্থ ডে গার্লকে নিয়ে কী বার্তা তাঁর?

শ্রাবন্তীর সাম্প্রতিক মলদ্বীপ ভ্রমণের একটি ছবি পোস্ট করে অভিরূপ লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন.. সবসময় এইভাবেই তারকার দ্যুতি ছড়াতে থাকো… তোমার বিরাট ফ্যান’। বন্ধু অভিমন্যু এখানে নিজেকে শ্রাবন্তীর ফ্যান বলেই দাবি করলেন। অভিরূপের এই পোস্টের জবাব দিতেও দেরি করেননি নায়িকা। কমেন্ট বক্স চটপট লিখে ফেলেন, ‘ধন্যবাদ মিস্টার ফ্যান’।

শ্রাবন্তীর জন্য অভিরূপের পোস্ট
শ্রাবন্তীর জন্য অভিরূপের পোস্ট

জি ২৪-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কদিন আগেই শ্রাবন্তী জানিয়েছেন অভিরূপ তাঁর বিশেষ বন্ধু। এমনকী, নিজের পাশে এই ‘স্পেশ্যাল ফ্রেন্ড’ সবসময় থাকে বলেও জানান। অভিরূপের তিনটি ভালো দিক সম্পর্কে বলতে গিয়ে শ্রাবন্তী জানান, ‘মানুষ হিসেবে খুব ভালো, খুব পরিবারের দিকে নজর দেয়, যা আমার সবচেয়ে ভালো লাগে আর বন্ধু হিসেবে ভীষণ ভালো। আমি মনের কথা বলতে পারি। আর যেটা আমার খারাপ লাগে তা হল কাজের পর খুব ল্যাদ খায়। জিম করতে বলি তাও করে না।’ আরও পড়ুন-বিকিনি ব্লাউজ,ট্রান্সপারেন্ট ওড়নায় শ্রাবন্তী! নতুন প্রেমের কথা স্বীকার করলেন

শ্রাবন্তী মেনে নেন এখন তাঁর সঙ্গে শুধু অভিরূপ নন, জড়িয়ে গিয়েছে তাঁর পরিবারও। বলেন, ‘এখন অবশ্যই অভিরূপ, ওর পরিবার, ওর বন্ধুরা পাশে থাকে। আরবানার অনেকে আছে। খুব ভালো একটা গ্রুপ পেয়েছি। এখন খুব ভালো আছি।

আপতত রোশন-শ্রাবন্তীর ডিভোর্স মামলা আদালতে বিচারাধীন। সেই মামলা মিটলে কি ফের ছাদনা তলায় বসবেন শ্রাবন্তী? সেটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।

 

বন্ধ করুন