বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sreelekha Mitra: বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন শ্রীলেখা! সেজেগুছে ছবি দিয়ে প্রশ্ন, ‘মেয়ে পছন্দ?’
শ্রীলেখা মিত্র (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
শ্রীলেখা মিত্র (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

Sreelekha Mitra: বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন শ্রীলেখা! সেজেগুছে ছবি দিয়ে প্রশ্ন, ‘মেয়ে পছন্দ?’

  • বিয়ে ভেঙেছে প্রায় ৮ বছর আগে। নতুন সংসার পাততে চাইছেন শ্রীলেখা?

টলিপাড়ায় বিতর্ক আর শ্রীলেখা মিত্র, দুটো সমার্থক শব্দ বলেই বিবেচিত। সোশ্যাল মিডিয়ায় সোজাসাপটা মন্তব্য করে অনেক সময়ই বিতর্কে জড়ান অভিনেত্রী। নো-মেকআপ লুকে ছবি পোস্ট করতে কোনওদিন পিছপা হননি শ্রীলেখা, তবে সোমবার একদম পরিপাটি করে সেজেগুজে সামনে এনেন শ্রীলেখা। পরনের পোশাক নজরে না এলেও সেটা সাবেকি তা বুঝতে অসুবিধা হয় না। খোলা চুল, গলায় পান্না-হিরে দিয়ে সাজানো ভারী নেকপিস, কানে ঝোলা দুল। হাসি মুখে শ্রীলেখার প্রশ্ন, ‘মেয়ে পছন্দ?’

এই ছবিতেই স্পষ্ট কেন এখনও বহু পুরুষের ক্রাশ তিনি। আজকের টলি সুন্দরীদের অনায়াসে টেক্কা দিতে পারেন শ্রীলেখা। কিন্তু আমচকা ফেসবুকে কেন এমন পোস্ট? তবে কি ফের কনে সেজে ছাতনা তলায় বসতে চাইছেন অভিনেত্রী? সত্যি কি তবে বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন শ্রীলেখা? হাসতে হাসতে অভিনেত্রীর জবাব, ‘জানেনই তো, নিজেকে নিয়ে মজা করতে ভালবাসি। সেজেগুজে ছবি তুলেছি। মনে হল সবাইকে দেখাই' এক সাক্ষাত্কারে এমনটাই জানিয়েছেন শ্রীলেখা। পাশাপাশি যোগ করেন, ‘নিজেকে পরখ করে দেখতে দোষ কী?’

অভিনেত্রী আরও জানান, মেয়ে পছন্দ মানে বিয়ের জন্যই পছন্দ করতে হবে তেমন তো কোনও কথা নেই। কেউ নিজের মেয়ে হিসাবেও তাঁকে পছন্দ করতে পারে। আসলে সদ্যই বাবাকে হারিয়েছেন শ্রীলেখা। গত সেপ্টেম্বরে বাবার মৃত্যুর পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন অভিনেত্রী। তাঁর কথায়, এখন তিনি ‘অনাথ’। সেই ভাবনা থেকেই তাঁর আবদার, ‘চাইলে কেউ আমায় দত্তকও নিতে পারেন’। 

সদ্যই বিবাহবার্ষিকী পার করলেন ডিভোর্সি শ্রীলেখা, গত ২০শে নভেম্বর জীবনের ওই বিশেষ দিনের স্মৃতিও শেয়ার করে নিয়েছেন তিনি। ১৮ বছর আগে এই দিনেই শিলাদিত্য সান্যালের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন অভিনেত্রী। তবে ২০১৩ সালে ভেঙে যায় সেই বিয়ে। তারপর থেকে শ্রীলেখা সিঙ্গেল। তাঁর জীবনে জায়গা করে নিতে পারেনি অন্য কোনও পুরুষ। শ্রীলেখা-শিলাদিত্যর এক মেয়ে ঐশী। বাবা-মা দুজনের সঙ্গেই থাকে সে। প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছেন। কোনও তিক্ততা নেই এই দুই প্রাক্তনের সম্পর্কে।

বন্ধ করুন