বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বসন্ত বিলাস মেসবাড়ি: স্যান্ডির সঙ্গে ঝগড়া, সেট ছাড়ে শ্রীতমা, বন্ধ হয় শ্যুট
সেটে ঝগড়া হল স্যান্ডি আর শ্রীতমার। 

বসন্ত বিলাস মেসবাড়ি: স্যান্ডির সঙ্গে ঝগড়া, সেট ছাড়ে শ্রীতমা, বন্ধ হয় শ্যুট

  • বসন্ত বিলাস মেসবাড়ি-র সেটে ঝগড়া হল স্যান্ডি সাহা আর শ্রীতমা ভট্টাচার্যর। কথা কাটাকাটির জেরে ঘণ্টাখানেক বন্ধ রাখতে হয় শ্যুটিং। 

স্যান্ডি সাহা পা রেখেছেন ছোট পরদায়। 'বসন্ত বিলাস মেসবাড়ি'-তে দেখা মিলছে এই ইউটিউবারের। তবে দিনকয়েক যেতে না যেতেই ঝামেলায় জড়ালেন স্যান্ডি শ্যুটিং ফ্লোরে। ব্যাপারটা এতদূর গড়ায় যে মাঝে কিছুটা সময় শ্যুটও বন্ধ রাখতে হয়।

শ্রীতমা ভট্টাচার্যের সঙ্গে ঝগড়া বাধে স্যান্ডির। পরদার ভাই-বোন তাঁরা এখন। খোঁজ নিয়ে জানা গেল, দু'জনের সম্পর্ক ভালোই। তবে সোমবার যেন একটু তাল কেটেছে। সময়মতো পৌঁছে তৈরি ছিলেন শ্রীতমা। দেরি করে আসে স্যান্ডি। তারপরেও ঠকঠাকই চলছিল। মেকআপ রুমেও রিল ভিডিয়ো বানান একসাথে। তবে ফ্লোরে এসে স্যান্ডির কাছে যখন দেরি হওয়ার কারণ জানতে চাওয়া হয় তখন শ্রীতমাকে নিয়ে রসিকতা করেন তিনি। আর এতেই খচে যান অভিনেত্রী। বেরিয়ে যান সেট ছেড়ে। দু'জনের কথা কাটাকাটির জেরে ঘণ্টাখানেক বন্ধ থাকে শ্যুটিং। তারপর প্রোডাকশন ব্যাপারটায় হস্পক্ষেপ করলে আবারল কাজ শুরু হয়।

এই সময়-এর এক প্রতিবেদন অনুসারে শ্রীতমা জানিয়েছেন, ‘একসঙ্গে থাকতে গেলে ঝগড়া তো হতেই পারে। তবে ফ্লোরের একটা ডেকরাম থাকে। আমি সেটা মেনটেইন করি। ও তো জানে না, নতুন এসেছে। আর ও একটু ছেলেমানুষ। সারাক্ষণ মজা করছে, ইয়ার্কি মারছে। কিন্তু কাজের জায়গায় তো এটা সবসময় চলে না। ওকে সেটা বুঝতে হবে। নয়তো ভবিষ্যতে কাজ পেতে ওরই সমস্যা হবে।’

আর ঝগড়া নিয়ে স্যান্ডির মত, ‘সেটে আমার সঙ্গে শ্রীতমার সম্পর্ক ভালো। ও আমার সঙ্গে মজা করে। আমিও করি। আমাকে দিনকয়েক আগে একটা সানগ্লাসও উপহার দিয়েছে। এখানে সিনিয়র জুনিয়ারের কোনও ব্যাপার নেই। অনেকসময় কারও কোনওদিন মুড অফ থাকে। সেটা তো আগে বোঝা যায় না। আমিও ইয়ার্কি মারার আগে ব্যাপারটা বুঝিনি। আর আমার সাথে কেউ রুক্ষ্মভাবে কথা বললে, আমিও সেটাই ফিরিয়ে দেই।’

বন্ধ করুন