বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Saheber Chithi: পর্দার সঙ্গে মিলে গেল বাস্তব! বাড়ি-বাড়ি ঘুরে চিঠি বিলি করলেন দেবচন্দ্রিমা
চিঠি পৌঁছে দিলেন দেবচন্দ্রিমা।

Saheber Chithi: পর্দার সঙ্গে মিলে গেল বাস্তব! বাড়ি-বাড়ি ঘুরে চিঠি বিলি করলেন দেবচন্দ্রিমা

  • অভিনব উদ্যোগ স্টার জলসার। চিঠি লেখার প্রায় ভুলতে বসা অভ্যাসকে ফিরিয়ে আনার ভাবনা চ্যানেল কর্তৃপক্ষের।

শেষ কবে কাউকে চিঠি লিখেছেন? সেই চিঠির উত্তর পাওয়ার আশায় উতলা হয়ে অপেক্ষা করে থেকেছেন?

প্রশ্নগুলি শুনে ভ্যাবাচ্যাকা খেতেই পারেন। কারণ ওয়াটসঅ্যাপে চটজলদি 'পিং' আর 'রিপ্লাই'-এর যুগে হাতে-কলমে চিঠি লেখা তো শুধুই স্মৃতি। সেই নস্টালজিয়াই ফিরছে আবার। সৌজন্যে 'সাহেবের চিঠি' এবং স্টার জলসা।

ব্যাপারটা আরেকটু স্পষ্ট করে বলা যাক।

অভিনব উদ্যোগ স্টার জলসার। চিঠি লেখার প্রায় ভুলতে বসা অভ্যাসকে ফিরিয়ে আনার ভাবনা চ্যানেল কর্তৃপক্ষের। তাই বাংলার নানা অঞ্চলে পৌঁছে গিয়েছে চ্যানেলের ক্যান্টর ভ্যান। তাতে রয়েছে অসংখ্য 'সাহেবের চিঠি' পোস্ট কার্ড আর চির পরিচিত সেই লাল রঙের পোস্ট বাক্স।

প্রচুর মানুষ চিঠি লিখেছেন তাঁদের প্রিয়জনের উদ্দেশে। কেউ কাগজে-কলমে ভালোবাসা জানিয়েছেন বন্ধুকে, কেউ আবার স্বামীকে। আবেগে অনেকের চোখেই জল। যেন হারানো দিন ফিরে পাওয়া! এই সব চিঠি বাড়ি-বাড়ি ঘুরে বিলি করবে চিঠি অর্থাৎ দেবচন্দ্রিমা সিংহ রায়।

স্টার জলসায় সদ্য শুরু হওয়া 'সাহেবের চিঠি'-কে আরও বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছে দিতেই এই পদক্ষেপ।

২৭ জুন থেকে শুরু হয়েছে ধারাবাহিকটি। মুখ্য চরিত্রে প্রতীক সেন এবং দেবচন্দ্রিমা। বিখ্যাত সংগীতশিল্পী সাহেবের জীবন কী ভাবে বদলে যাবে মধ্যবিত্ত চিঠির আগমনে? সেই প্রশ্নেরই উত্তর দেবে 'সাহেবের চিঠি'।

এক মাস অতিক্রম করেও ধারাবাহিকটির নাম নেই টিআরপি তালিকায় সেরা দশে। তবে আশাবাদী দেবচন্দ্রিমা। তাঁর কথায়, 'আমাদের ধারাবাহিকটি সবে শুরু হয়েছে। সেটিকে সময় দিতে হবে। মানুষ ঠিকই আমাদের ভালোবাসবেন। 'সাঁঝের বাতি'র ক্ষেত্রেও তাই দেখা গিয়েছিল।'

বন্ধ করুন