বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মিমির সঙ্গে ছবি তুলতে অনীহা! ‘ক্রাশ’ শুভশ্রীকে জড়িয়ে পোজ দিল আদিদেব
মিমিকে না-পসন্দ আদিদেব-এর! 
মিমিকে না-পসন্দ আদিদেব-এর! 

মিমির সঙ্গে ছবি তুলতে অনীহা! ‘ক্রাশ’ শুভশ্রীকে জড়িয়ে পোজ দিল আদিদেব

  • মিমি না-পসন্দ, ‘প্রথম ভালোবাসা’ শুভশ্রীকে আদরে ভরিয়ে দিল আদিদেব। 

চাইলেও কী প্রথম ভালোবাসাকে এড়িয়ে চলা যায়? এক্কেবারেই না। তাই খুদে আদিদেবও কাছে পেয়েই জড়িয়ে ধরল তাঁর প্রথম ভালোবাসা, তাঁর ক্রাশ শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে। মা সুদীপা চট্টোপাধ্যায় সম্প্রতি ফাঁস করেছেন একরত্তি ছেলের এই ভালোবাসার গল্প। লাল ধুতি, ঘিয়ে রঙা পাঞ্জাবিতে সেজে শুভশ্রীর সঙ্গে দিব্যি পোজ দিচ্ছেন সুদীপা ও অগ্নিদেব পুত্র আদিদেব, কিন্তু মিমির সঙ্গে ছবি তুলতে গিয়েই মুখ বেজার তাঁর। সেই ছবিও যেমন, ছবির ক্যাপশন আরও ‘ভয়ঙ্কর’ সুন্দর। ছেলের কীর্তির বিস্তর ফিরিস্তি দিয়েছেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায়।  

ইনস্টাগ্রামে এই দুটি ছবি পোস্ট করে সুদীপা চট্টোপাধ্যায় ক্যাপশনে রসিকতা করে লেখেন, ছোট্ট আদিদেব ভীষণরকমভাবে বিশ্বস্ত ওর ‘প্রাণ দিতে চাই’ ক্রাশ, বলা যায় ওর প্রথম ক্রাশ শুভশ্রীর প্রতি। শুভশ্রীর প্রতি এতই মুগ্ধ যে সুন্দরী মিমির সঙ্গে ঠিক করে একটা ছবি তুলল না। এই বিষয়টার জেরে ও আফসোস করবে বড় হয়ে, তা আমি নিশ্চিত। কিন্তু প্রথম প্রেমের প্রতি আমার ছেলে খুব বেশি বিশ্বস্ত এটা মানতেই হবে'। 

মূলত পরিণীতার মেহুল চরিত্রের জেরেই শুভশ্রীর প্রেমে পড়েছে তা স্পষ্ট করে দিল সুদীপার পোস্ট। তবে মিমির উপর থেকে কেন মুখ ফিরিয়ে নিল সে,তা পরিষ্কার নয়। আদিদেবের সঙ্গে তোলা ছবিতে হলুদ সালোয়ার কামিজে লেন্সবন্দি হয়েছেন শুভশ্রী, অন্যদিকে মিমিকে গেল রুপোলি গাউনে। 

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে সাত পাকে বাঁধা পড়েন সুদীপা ও পরিচালক অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়। ২০১৮ সালের ১২ নভেম্বর সুদীপার কোল আলো করে আসে আদিদেব। 

বন্ধ করুন