বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > গুপ্তশত্রু, জ্ঞাতিশত্রু, তন্ত্র-মন্ত্র থেকে বাঁচার পথ! উপায় বাতলে দিলেন সুদীপা
সুদীপা (ছবি ফেসবুক)
সুদীপা (ছবি ফেসবুক)

গুপ্তশত্রু, জ্ঞাতিশত্রু, তন্ত্র-মন্ত্র থেকে বাঁচার পথ! উপায় বাতলে দিলেন সুদীপা

  • স্বামী তথা পরিচালক অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের ডিজাইন করা নতুন ডোকরার সম্ভার নিয়ে হাজির হয়েছেন সুদীপা।

বহুগুণ সম্পন্না মানেই সুদীপা চট্টোপাধ্যায়। একাধারে তিনি সঞ্চালিকা, রেস্তোরাঁর কর্ণধার, কখনও পরিচালক আবার কখনও চিত্রনাট্য লেখিকা; তাঁর গুণের শেষ নেই। সদ্য নিজের নতুন বুটিক চালু করেছেন সুদীপা। সেখানেই যোগ হয়েছে অভিনব সম্ভার। সেই ছবি সামাজিক মাধ্যমেও শেয়ার করেছেন তিনি। 

ফেসবুকে নিজস্ব সম্ভারের বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করে সুদীপা লেখেন, স্বামী তথা পরিচালক অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের ডিজাইন করা নতুন নতুন ডোকরার কিছু সম্ভার হাজির করেছেন তিনি ক্রেতাদের জন্য। যদিও এই সবের মধ্যে তাঁদের একটি পারিবারিক বিশ্বাস জড়িয়ে আছে। 

সুদীপা পোস্টের ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘পুজোয় এ বার মা দুর্গাকে ঘরে নিয়ে যান। ঘর আলো করে থাকবেন। সব বিপদ-আপদে,আপনার পরিবারের রক্ষা করবেন,ও আগলে রাখবেন। আর দশানন রাবণ- আপনার বাড়িতেই দশদিক থেকে আগলে রাখবে। গুপ্তশত্রু, জ্ঞাতিশত্রু, কোনওরকম চক্রান্ত, তন্ত্র-মন্ত্র, কোনওটাই কাজে লাগবে না, যদি এই মুর্তি- প্রবেশদ্বারের একদম মুখোমুখি রাখা যায়। যাতে যেই আপনার বাড়ীতে ঢুকুক- প্রথমেই যেন এই রাবণে নজর যায়। ব্যাস! তাতেই কেল্লাফতে। আর এই মুর্ত্তিটির স্পেশ্যালিটি হল, এটির পিছনেও একটি মুখ আছে, যা আপনাকে গোপন শত্রুর হাত থেকে বাঁচাবে বলে আমাদের বিশ্বাস। এ ছাড়া পাবেন- রামসীতা, গণেশ, শিব, মা কালী, পুরীর গোপাল ও আরও অনেক কিছু। বিশ্বাসে মিলায় বস্তু,তর্কে বহুদুর- এই কথা মাথায় রেখেই,ছবিগুলো শেয়ার করলুম। যার ভালো লাগবে, দেখবেন।’ (অপরিবর্তিত)

আপাতত নিজের শ্যুটিং, সামনে দুর্গাপুজো তাই বাড়ির পুজোর আয়োজন এবং নিজের নতুন ব্যবসা নিয়ে দারুণ ব্যস্ত সুদীপা। সব কিছু সামাল দিয়ে চলছেন তিনি।

 

 

বন্ধ করুন