বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Superstar Singer: স্প্যাস্টিক দিদির দায়িত্ব কাঁধে, হর্ষিতার গানে কেঁদে উঠল হিমেশ

Superstar Singer: স্প্যাস্টিক দিদির দায়িত্ব কাঁধে, হর্ষিতার গানে কেঁদে উঠল হিমেশ

সুপারস্টার সিঙ্গারে প্রতিোগীর গান শুনে হিমেশের কান্না। 

সোনি টিভির এই মিউজিক রিয়েলিটি শো বর্তমানে চর্চায়। একের পর এক জাদু মাখানো পারফরমেন্স জমিয়ে রাখছে দর্শকদের টিভির সামনে। 

গত সপ্তাহ থেকেই সোনি টিভিতে শুরু হয়ে গিয়েছে সুপারস্টার সিঙ্গার সিজন ২। ১৫ বছরের নীচের প্রতিযোগীরা ভিড় জমাতে শুরু করেছেন এই শোয়ে। এর মধ্যেই কিছু পারফরমেন্স মন কেড়ে নিয়েছে দর্শকদের। সেই তালিকায় যোগ হল গুয়াহাটি অসমের হর্ষিতা ভট্টাচার্য।

হর্ষিতাকে ‘সুপারস্টার সিঙ্গার ২’ শো-তে এনেছেন ক্যাপ্টেন সায়লি কাম্বলে। সায়লি জানান, হর্ষিতা মাত্র ১১ বছর বয়সেও খুব ম্যাচিওর। এমনকী, দিদির খেয়াল যেভাবে রাখে তা ভাবাই যায় না। এরপর বিচারক হিমেশ রেশামিয়া, অলকা ইয়াগনিক ও জাভেদ আলির অনুরোধে সে মঞ্চে নিয়ে আসে দিদিকে। হর্ষিতার দিদি স্প্যাস্টিক। মাংসপেশিজনিত কিছু সমস্যা আছে তাঁর। তাই দিদির খেয়াল রাখে ১১ বছরের হর্ষিতা। আরও পড়ুন: জন্মদিনের কেক সবার আগে পবনদীপ খাওয়ালো অরুণিতাকে, কে দিল ‘Mr. & Mrs’ খেতাব?

‘তেরা মুঝসে হে পহেলে সে নাতা কোয়ি’ গানটি গাইতে শোনা যায় হর্ষিতাকে। যা শুনে ফুঁপিয়ে কেঁদে ওঠেন হিমেশ। বারবার চোখের জল মুছতে দেখা যায় এই সুরকার-সংগীত পরিচালককে। গান শেষ হতেই মঞ্চে ছুটে আসেন বাদবাকি ক্যাপ্টেনরা-- অরুণিতা, পবনদীপ, সলমন, দানিশরা। হর্ষিতাকে জড়িয়ে ধরে আদর করে অলকাও।

দেশের নানা প্রান্ত থেকে ক্যাপ্টেনরা বাছাই করে নিয়ে এসেছেন প্রতিযোগীদের। প্রথম সিজনের বিজেতা হয়েছিল কলকাতার প্রীতি ভট্টাচার্য। প্রায় দু' বছরের বিরতির পর ছোট পরদায় ফিরছে ‘সুপার সিঙ্গার সিজন ২’।

হর্ষিতা জানায়, ‘তেরা মুঝসে…’ গানটি তার দিদির খুব পছন্দের। প্রতি রবিবার পরিবারের সকলে মিলে গানটি গায় ওরা। সঙ্গে জানান, শুধু এখন নয়, পরেও দিদির এভাবেই খেয়াল রাখবে সে। যা মন কেড়ে নেয় সেটে উপস্থিত সকলের।

 

বন্ধ করুন