বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > আমাজন প্রাইম কর্তৃপক্ষ ও মির্জাপুর নির্মাতাদের নোটিশ ধরালো সুপ্রিম কোর্ট
এবার বিতর্কে কালীন ভাইয়ারা
এবার বিতর্কে কালীন ভাইয়ারা

আমাজন প্রাইম কর্তৃপক্ষ ও মির্জাপুর নির্মাতাদের নোটিশ ধরালো সুপ্রিম কোর্ট

  • উত্তর প্রদেশের শহর মির্জাপুরের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে এই সিরিজ, এমন অভিযোগ এনে শীর্ষ আদালতে দাখিল হয়েছে পিটিশন। 

ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ উঠেছে আমাজন প্রাইমের সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব'-এর বিরুদ্ধে। চাপের মুখে পড়ে নতিস্বীকারও করে নিয়েছেন নির্মাতারা। এবার নিশানায় একই ওটিটি প্ল্যাটফর্মের অপর ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর ২’। আগেই দায়ের হয়েছিল এফআইআর, এবার সরাসরি সুপ্রিম কোর্ট জবাবদিহি চাইল টিম মির্জাপুর টু ও ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আমাজন প্রাইমের কাছে। 

উত্তর প্রদেশের মির্জাপুর শহরের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে এই সিরিজের মাধ্যমে এমন দাবি জানিয়ে শীর্ষ আদালতে দায়ের হয়েছে পিটিশন। কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে সিরিজের নির্মাতা এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মকে। এই মামলাতেই তাঁদের কাছ থেকে জবাব চেয়ে নোটিশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট, জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই। 

অন্যদিকে মির্জাপুর কোটওয়ালি (দেহাত) পুলিশ থানায় মির্জাপুর ২-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন অরবিন্দু চতুর্বেদী নামের এক ব্যক্তি। এফআইআরের কপিতে নাম রয়েছে আমাজন প্রাইম সহ মির্জাপুর প্রযোজক রীতেশ সিধওয়ানি, ফারহান আখতার, ভূমিকা গোন্দালিয়ার। ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৫ এ, ৫০৪, ৫০৫-এর ধারা সহ তথ্য-প্রযুক্তি আইনের উপযুক্ত ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে মির্জাপুর-২ এর প্রযোজকদের বিরুদ্ধে। ২৯৫ এ, ৫০৪, ৫০৫-এই তিন ধারায় ধর্ম ও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, উস্কানিমূলক কথাবার্তা বলে জনগণের শান্তিভঙ্গ করা ও জনতাকে বেআইনি কাজে উৎসাহিত করাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গণ্য করা হয়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত প্রতিবেদনে মির্জাপুতের পুলিশ সুপারকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে- ‘অরবিন্দ চতুর্বেদীর অভিযোগ ওই ওয়েব সিরিজে আপত্তিজনক বিষয়বস্তু ও অবৈধ সম্পর্ক তুলে ধরা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রযোজক এবং প্ল্যাটফর্ম (আমাজন প্রাইম)-এর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে’।

গত বছর অক্টোবরে মুক্তি পেয়েছে মির্জাপুরের দ্বিতীয় সিজন। মির্জাপুরের স্থানীয় ডন কালীন ভাইয়া (পঙ্কজ ত্রিপাঠী) ও তাঁর কলো সাম্রজ্যকে ঘিরেই মির্জাপুর-২ এর কাহিনি। সিরিজে অভিনয় করেছেন আলি ফজল (গুড্ডু পন্ডিত), মুন্না (দিব্যেন্দু) সহ আরও অনেকে।

বন্ধ করুন