বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যু মামলা : আজ সিবিআইয়ের জেরার মুখে রিয়া চক্রবর্তীর বাবা-মা
ব্রেকিং নিউজ

সুশান্তের মৃত্যু মামলা : আজ সিবিআইয়ের জেরার মুখে রিয়া চক্রবর্তীর বাবা-মা

প্রথমবার সিবিআইয়ের জেরার মুখে রিয়ার বাবা-মা  (PTI)
প্রথমবার সিবিআইয়ের জেরার মুখে রিয়ার বাবা-মা  (PTI)

  • সমন পাঠানো হয়েছে ইন্দ্রজিত্ চক্রবর্তী ও সন্ধ্যা চক্রবর্তীকে। পঞ্চমবার সমন গিয়েছে রিয়ার কাছেও। তবে নতুন তারিখ দেওয়া হবে অভিযুক্তকে।

ইতিমধ্যের চারদিন সিবিআইয়ের ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। মামলার অপর অভিযুক্ত তথা রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে ছয়বার জেরা করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বিশেষ দল। 

রিপাবলিক মিডিয়া সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রিয়া চক্রবর্তী এবং তাঁর ভাই নয়, তাঁদের বাবা-মা'কে জেরা করবে সিবিআই। এদিন সকাল ১১টার সময় ডিআরডিও গেস্ট হাউজে হাজিরা দেওয়ার জন্য সমন পাঠানো হয়েছে সন্ধ্যা চক্রবর্তী এবং ইন্দ্রজিত্ চক্রবর্তীকে। মুম্বইয়ে সিবিআই তদন্তের বারো নম্বর দিন সকালেই রিভিউ মিটিংয়ে বসেছেন সিবিআইয়ের আধিকারিকরা। এই বৈঠক শেষেই রিয়ার পঞ্চম সমনের নতুন দিন জানাবে তদন্তকারী দলের আধিকারকিরা।

সোমবারের পর মঙ্গলবারও সুশান্ত মামলায় হোটেল ব্যবসায়ীকে গৌরব আর্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ইডি। রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে গৌরবের বেশকিছু হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সামনে এসেছে, যেখানে ড্রাগ ডিলিংয়ের কথা উঠে এসেছে।

সোমবার একটানা চতুর্থদিনের জন্য সিবিআইয়ের ম্যারাথন জেরার মুখে পড়েন রিয়া। এদিন প্রায় ৯ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্তকে। এদিনও সিবিআইয়ের জেরার পর নিজের অ্যাপার্টমেন্টের নীচে পৌঁছেই গাড়ি ঘুরিয়ে ফের সান্তাক্রুজ পুলিশ থানায় হাজির হন রিয়া। এবং অভিযোগ জানান নিজের বিল্ডিংয়ের সামনে জড়ো হওয়া সংবাদমাধ্যমের ভিড় সম্পর্কে।

সোমবার ডিআরডিও গেস্ট হাউজে রিয়া চক্রবর্তী (ANI)
সোমবার ডিআরডিও গেস্ট হাউজে রিয়া চক্রবর্তী (ANI)

সূত্রের খবর সোমবার সিবিআইয়ের আধিকারিকরা রিয়ার থেকে সুশান্ত মৃত্যু মামলার আর্থিক দিকগুলো নিয়ে প্রশ্ন করেন রিয়াকে। এদিন ডিআরডিও গেস্ট হাউজে হাজির হয়েছিলেন সুশান্তের ব্যাঙ্কের আধিকারিকরা। অন্যদিকে এইদিনই সুশান্ত মৃত্যু মামলায় এনসিবির তরফে দায়ের করা মামলার দায়িত্বভার দেওয়া হয়েছে ডিআরআইয়ের জয়েন্ট ডিরেক্টরকে। এদিন আইপিএস সমীর ওয়াংখেড়ে যোগ দিলেন তদন্তে, ডিরেক্টরেট অফ রেভেনিউ ইন্টালিজেন্সের যৌথ ডিরেক্টরের এই মামলায় যোগ দেওয়ার সঙ্গেই একটা দিক স্পষ্ট, বলিউডের ড্রাগ ব়্যাকেটের তল পর্যন্ত পৌঁছতে চায় তদন্তকারীরা। 

বন্ধ করুন