বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যু তদন্ত: মুম্বই পুলিশের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন নয়,বিজেপিকে তোপ মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধবের
নীরবতা ভাঙলেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে 
নীরবতা ভাঙলেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে 

সুশান্তের মৃত্যু তদন্ত: মুম্বই পুলিশের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন নয়,বিজেপিকে তোপ মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধবের

  • মুম্বই পুলিশের উপর আস্থা রাখুন, বার্তা মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে প্রশ্নের মুখে মুম্বই পুলিশ ও মহারাষ্ট্র সরকার। গত কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় মুম্বই পুলিশের তদন্ত নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে সুশান্ত ভক্তরা। মুম্বই পুলিশে আস্থা নেই সুশান্তের পরিবারের তাও স্পষ্ট। সুশান্তের পরিবারের তরফে পাটনা পুলিশের কাছে এই মামলার এফআইআর দায়ের হওয়ার পর বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের নির্দেশে মুম্বইয়ে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পাটনা পুলিশের একটি বিশেষ তদন্তকারী দল। তাতেই বেশখানিকটা চাপে উদ্ধব ঠাকরে সরকার। দুই রাজ্যের মধ্যে এই মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে বাকযুদ্ধ আগেই শুরু হয়ে গিয়েছিল, শুক্রবার রাতে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে নীরবতা ভাঙলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

এদিন স্বাভাবিকভাবেই মুম্বই পুলিশের হয়ে ব্যাট ধরলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। তিনি বলেন, মুম্বই পুলিশ সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত করতে এক্কেবারে সক্ষম এবং যোদ্ধাদের মতো তাঁরা অতিমারী করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করছে। তাঁর কথায়, ‘মুম্বই পুলিশের প্রতি আস্থা না করা মানে তাঁদের অপমান করা। আমি সুশান্তের অনুরাগীদের বলতে চাই তাঁরা মুম্বই পুলিশের প্রতি ভরসা রাখুন এবং এই মামলা সংক্রান্ত যা কিছু তথ্য আপনাদের কাছে আছে,দয়া করে দিন’। এই মৃত্যু নিয়ে নোংরা রাজনীতি না করার আর্জিও রাখেন মুখ্যমন্ত্রী। 

এদিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা দেবেন্দ্র ফাডনবিশ মন্তব্যকে কটাক্ষ করেন উদ্ধব ঠাকরে। পাঁচ বছর মুখ্যমন্ত্রী থাকার পরেও মুম্বই পুলিশের যোগ্যতা নিয়ে কীভাবে প্রশ্ন তুললেন দেবেন্দ্র ফাডনবিশ? হয়রান উদ্ধব। শুক্রবার এই মামলায় মুম্বই পুলিশের তদন্ত নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ফাডনবিশ।

এই মামলায় সিবিআই তদন্তের ভার ক্রমেই জোরালো হচ্ছে। পাটনা পুলিশ এই মামলায় হস্তক্ষেপের সেই সম্ভাবনা আরও বেড়ে গিয়েছে। অন্যদিকে গত তিন-চারদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগাতার ট্রেন্ড হচ্ছে #ShameOnMumbaiPolice, সুশান্তের পরিবারের আইনজীবীও প্রশ্ন তুলেছেন মুম্বই পুলিশের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে। তাঁর দাবি এই মামলা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রিয়া চক্রবর্তীকে পাচার করছে মুম্বই পুলিশের অন্দরের কেউ। 

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত যেন বিহার ও মহারাষ্ট্রের সম্পর্কে চিড় না ধরায় সেকথাও বলতে শোনা গেল মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীকে। গত ১৪ই জুন বান্দ্রার কার্টার রোডের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার করা হয় বিহারের ভূমিপুত্র,তথা বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ। 

মহারাষ্ট্র  সরকারের তরফে সিবিআই তদন্তের দাবি বারবার খারিজ করা হলেও ইতিমধ্যেই স্বতঃপ্রণোদিতভাবে রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে আর্থিক তছরূপের মামলা দায়ের করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা,এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। পাটনা পুলিশের কাছে সুশান্তের বাবার দায়ের করা এফআইআরের ভিত্তিতেই এনফোর্টমেন্ট কেস ইনফরমেশন রিপোর্ট বা ECIR দায়ের করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহেই ডেকে পাঠানো হবে রিয়া ও তাঁর পরিবারকে। 

বন্ধ করুন