বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত: পুলিশি জেরার মুখে অভিনেতার মনোবিদ,উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য
জেরা করা হল কেশরি চাবড়াকে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
জেরা করা হল কেশরি চাবড়াকে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত: পুলিশি জেরার মুখে অভিনেতার মনোবিদ,উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

  • গত এক বছরে পাঁচজন মনোচিকিত্সকের পরামর্শ নিয়েছেন সুশান্ত।সূত্রের খবর গত বছর অক্টোবর মাসে ডিপ্রেশনের চিকিত্সার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হন অভিনেতা।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর কেটে গিয়েছে এক মাসেরও বেশি সময়। তবুও পর্দার ধোনির আচমকা চলে যাওয়াটা মেনে নিতে পারছেন না দেশবাসী। এই মামলায় লাগাতার সিবিআই তদন্তের দাবি জানাচ্ছেন সুশান্ত ভক্তরা,অন্যদিকে সুশান্তের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে তদন্ত জারি রেখেছে মুম্বই পুলিশ। শুক্রবার এই মামলায় পুলিশের জেরার মুখে পড়লেন সুশান্তের সাইকিয়াট্রিস্ট, করসি চাবড়া। 

পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছে মৃত্যুর মাস ছয়েক আগে থেকেই ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন সুশান্ত। সেই সময় একাধিক মনোরোগ বিশেষজ্ঞপ পরামর্শ নিয়েছেন তিনি। যার মধ্যে অন্যতম মুম্বইয়ের এই প্রখ্যাত মনোবিদ। শুক্রবার বান্দ্রা থানায় তলব করা হয়েছিল তাঁকে। সুশান্তের মানসিক অবস্থা, তাঁর ডিপ্রেশন সম্পর্কে খোঁজ নিতেই পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করল করসি চাবড়াকে। এদিন আরও এক চিকিত্সকে জেরা করে মুম্বই পুলিশ,তবে তাঁর পরিচয় প্রকাশ্যে আসেনি। সূত্রের খবর,পুলিশি জেরায় উঠে এসেছে গত বছর অক্টোবর মুম্বইয়ের এক হাসপাতালে ডিপ্রেশনের চিকিত্সার জন্য ভর্তি হয়েছিলেন সুশান্ত। গত এক বছরে প্রায় ৫ জন মনোবিদের পরামর্শ নিয়েছেন তিনি। 

পুলিশ সূত্রে খবর জেরায় চিকিত্সকরা জানিয়েছেন, ডিপ্রেশন, ট্রমা এবং টেনশনে ভুগছিলেন সুশান্ত। রাতে ঘুম হত না অভিনেতার, তাঁর ভিতর সবসময় একটা অ্যানসাইটি ডিসঅর্ডার ছিল এবং কোন বিষয় নিয়ে সবসময় সন্দেহ কাজ করত তাঁর মনে। মনোবিদদের সঙ্গে কাউন্সিলিংয়ের সময় সঙ্গে থাকতেন বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীও। সুশান্তের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বেশ কিছু তথ্য পুলিশকে দিয়েছেন চিকিত্সকরা,তবে সেই নিয়ে এখন স্পিকটি নট মুম্বই পুলিশ।

দুই চিকিত্সকের পাশাপাশি সুশান্তের অপর তিন চিকিত্সকদের বয়ানও রেকর্ড করবে পুলিশ। সেইসব তথ্য যাচাই করে দেখা হবে,ফের কথা বলা হবে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও। অন্যদিকে সুশান্তের আত্মহত্যার তদন্তে শনিবার বয়ান রেকর্ড করা হল আদিত্য চোপড়ার। 

বন্ধ করুন