বাড়ি > বায়োস্কোপ > ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সীর জন্য ১ কোটি টাকা পেয়েছিলেন সুশান্ত,তবে YRF এর সঙ্গে পূরণ হয়নি তিন ছবির চুক্তি
ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সীর জন্য ১ কোটি টাকা পেয়েছিলেন সুশান্ত (MINT_PRINT)
ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সীর জন্য ১ কোটি টাকা পেয়েছিলেন সুশান্ত (MINT_PRINT)

ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সীর জন্য ১ কোটি টাকা পেয়েছিলেন সুশান্ত,তবে YRF এর সঙ্গে পূরণ হয়নি তিন ছবির চুক্তি

  • চুক্তি অনুযায়ী দ্বিতীয় ছবির জন্য ৬০ লক্ষ টাকা পাওয়ার কথা ছিল সুশান্তের। তবে অতিরিক্ত ৪০ লক্ষ টাকা কেন দেওয়া হয়েছিল তা এখনও পরিষ্কার নয়। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার তদন্তে নেমে প্রয়াত অভিনেতার সঙ্গে ইন্ডাস্ট্রির পেশাগত বিদ্বেষের দিকটি খতিয়ে দেখছে মুম্বই পুলিশ। সুশান্তের মৃত্যুর পর বলিউডের একটা নির্দিষ্ট শ্রেণির দিকে বারবার অভিযোগের আঙুল তুলেছেন সুশান্ত ভক্তরা। এই মামলার তদন্তে নেমে যশ রাজ ফিল্মসের কাছ থেকে সুশান্তের চুক্তিপত্রের কপি চেয়ে পাঠিয়েছিল মুম্বই পুলিশ। গত সপ্তাহেই যশ রাজ ফিল্মসের তিন জন প্রাক্তন ও বর্তমান আধিকারিককে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ করে বান্দ্রা পুলিশ। 

২০১২ সালে যশরাজ ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট কম্পানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন সুশান্ত। তাঁদের সঙ্গে দুটি ছবিতে কাজও করেন তারকা-প্রয়াত অভিনেতার কেরিয়ারের দ্বিতীয় ছবি শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স (২০১৩) এবং ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সী (২০১৫)। এছাড়াও সুশান্তের সঙ্গে 'পানি' প্রজেক্টটিও করবার কথা ছিল যশরাজ ফিল্মসের। তবে ২০১৫-র শেষের দিকে আচমকাই পরিচালক শেখর কাপুরের এই প্রজেক্ট থেকে সরে আসে যশরাজ ফিল্মস। সেই বছর ডিসেম্বরের যশ রাজের সঙ্গে চুক্তি বাতিল হয় সুশান্তের।

সুশান্তের সেই চুক্তি সংক্রান্ত আরও কিছু তথ্য এবার প্রকাশ্যে এল। পুলিশ সূত্রে খবর শুদ্ধ দেশি রোম্যান্সের জন্য যশ রাজের তরফে ৩০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছিল সুশান্তকে। চুক্তিতে উল্লেখ ছিল প্রথম ছবি হিট হলে পরের ছবির জন্য ৬০ লক্ষ টাকা পাবেন অভিনেতা। এবংর তৃতীয় ছবির জন্য ১ কোটি টাকা দেওয়া হবে। ছবি হিট হয়েছে না ফ্লপ-তা ঠিক করবে প্রযোজনা সংস্থা। যদিও দ্বিতীয় ছবি ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সীর জন্যই ১ কোটি টাকা দেওয়া হয় সুশান্তকে। চুক্তিপত্রে ৬০ কোটির কথা উল্লেখ কথা সত্ত্বেও কেন ৪০ লক্ষ টাকা অধিক দেওয়া হয় অভিনেতাকে সেই বিষয়টি এখন পরিষ্কার নয়। 

যশ রাজ ফিল্মসের প্রাক্তন আধিকারিক, এবং বর্তমানে নেটফ্লিক্স ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর (অরিজিন্যাল ফিল্মস) আশিস সিং-কে জিজ্ঞাসাবাদ করল মুম্বই পুলিশ (ANI)
যশ রাজ ফিল্মসের প্রাক্তন আধিকারিক, এবং বর্তমানে নেটফ্লিক্স ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর (অরিজিন্যাল ফিল্মস) আশিস সিং-কে জিজ্ঞাসাবাদ করল মুম্বই পুলিশ (ANI)

গত শুক্রবার যশ রাজের দুই প্রাক্তন উচ্চ পদস্থ আধিকারিককে জিজ্ঞাসাবাদ করে মুম্বই পুলিশ। যশ রাজের প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট (প্রোডাকশন) আশিস সিং এবং অপর প্রাক্তন আধিকারিক আশিস পাতিলকে জেরার মুখে পড়তে হয়। ২০১২ সালে যশ রাজের সঙ্গে সুশান্তের স্বাক্ষরিত চুক্তিপত্রে সুশান্তের পাশাপাশি এই দুজনের স্বাক্ষর রয়েছে।

শনিবার বান্দ্রা থানায় শানু শর্মা 
শনিবার বান্দ্রা থানায় শানু শর্মা 

সুশান্তের যশ রাজ ফিল্মস ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে ইন্ডিয়া টুডে'কে আশিস সিং জানান, আমি এই নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলতে পারব না,তবে চুক্তিতে সব উল্লেখ রয়েছে। উভয় পক্ষের সহমত হয়েই সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এবং তার পরেও আমাদের যোগাযোগ ছিল। আমরা একসঙ্গে দুটো ছবি করেছি। হ্যাঁ, কিছু প্রজেক্ট,কিছু ছবি হয়ত হয়নি। পাঁচ বছর আগে ও যশ রাজ ছেড়েছে তবুও সম্পর্ক বজায় ছিল। ওর আত্মার শান্তির জন্য আমাদের প্রার্থনা করা উচিত'।

এছাড়াও গত শনিবার যশ রাজ ফিল্মসের কাস্টিং ডিরেক্টোর শানু শর্মাকে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়। 

বন্ধ করুন