বাড়ি > বায়োস্কোপ > নভেম্বরেরই বিয়ের পরিকল্পনা ছিল সুশান্তের,দাবি তুতো ভাইয়ের
নভেম্বরেই বিয়ের পরিকল্পনা তবুও কেন ফাঁকি দিয়ে চলে গেলেন সুশান্ত! (PTI)
নভেম্বরেই বিয়ের পরিকল্পনা তবুও কেন ফাঁকি দিয়ে চলে গেলেন সুশান্ত! (PTI)

নভেম্বরেরই বিয়ের পরিকল্পনা ছিল সুশান্তের,দাবি তুতো ভাইয়ের

  • বাবা কেকে সিংয়ের সঙ্গে নাকি বিয়ে নিয়ে কথাও হয়েছিল সুশান্তের।করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই পরিবারের সদস্যদের মুম্বই যাওয়ার পাকা কথাও হয়ে গিয়েছিল।

রবিবার যে ছেলের আত্মঘাতী হওয়ার খবরে গোটা দেশ হতবাক,সেই সুশান্ত সিং রাজপুতই নাকি বিয়ের পরিকল্পনা সেরেছিলেন,অন্তত তেমনটাই দাবি পরিবারের। সুশান্তের এক তুতো ভাই তেমনটাই দাবি করেছেন সংবাদমাধ্যমের কাছে। বাবা কেকে সিংয়ের সঙ্গে নাকি বিয়ে নিয়ে কথাও হয়েছিল ৩৪ বছর বয়সী এই অভিনেতার। ছেলের বিয়ে নিয়ে রাজিও ছিলেন তিনি। করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই পরিবারের সদস্যদের মুম্বই যাওয়ারও পরিকল্পনা ছিলও বিয়ের তোড়জোড় শুরু করবার জন্য। তেমনই কথা হয়েছিল সুশান্তের সঙ্গে।

সূত্রের খবর, সুশান্তের কাছের বন্ধুরা পুলিশকে জানিয়েছে ব্যক্তিগত জীবন টালমাটাল চলছিল সুশান্তের। বিয়ের পাকা কথা হয়ে গিয়েছিল যে মেয়ের সঙ্গে তাঁর সঙ্গেই নাকি সম্পর্কে চিড় ধরেছিল তারকার। যদিও কার সঙ্গে বিয়ের কথা চলছিল? সেই মেয়ের নাম প্রকাশ্যে আনেনি সুশান্তের ঘনিষ্ঠরা। 

রবিবার দুপুর ১টা নাগাট বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ। গত ছয়মাস ধরেই নাকি মাসনিক অবসাদে ভুগছিলেন অভিনেতা। তাঁর ফ্ল্যাট থেকে নাকি বেশ কিছু মেডিক্যাল রিপোর্ট উদ্ধার করেছে পুলিশ, কিন্তু মেলেনি কোনও সুইসাইড নোট। সুশান্তের ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট ইতিমধ্যেই পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। রিপোর্টে সুশান্তের মৃত্যুর কারণ হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে ‘ঝুলে পড়বার কারণে দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু’,জানিয়েছে পুলিশ।

সুশান্তের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ডিটেলসও খতিয়ে দেখছে পুলিশ,তবে সেখানে প্রাথমিকভাবে কোনও অসঙ্গতি চোখে পড়েনি তদন্তকারী অফিসারদের। পরিবার,বন্ধু,প্রেম সম্পর্ক-সবদিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে এখনও ধন্দে তাঁরা।  

এই গোটা বিষয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে বারবার উঠে আসছে সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর নাম। সুশান্তের সঙ্গে এই বাঙালি অভিনেত্রীর প্রেম সম্পর্কের জল্পনা ইন্ডাস্ট্রিতে বহুদিনের। জানা গিয়েছে শেষ কয়েকদিন ধরে নাকি সুশান্তের অ্যাপার্টমেন্টেই থাকছিলেন রিয়া।যদিও নিজেদের সম্পর্কে কোনওদিনই আনুষ্ঠানিক শিলমোহর দেননি দুজনেই। মিডিয়ার সামনে তাঁদের বক্তব্য ছিল আমরা শুধুই ভালো বন্ধু।

আনু্ষ্ঠানিকভাবে কোনওদিন সম্পর্কে স্ট্যাম্প না দিলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় দুজনের পিডিএ কারুই নজর এড়াতো না। চলতি বছর জানুয়ারিতে সুশান্তের জন্মদিনে ভালোবাসায় মাখা শুভেচ্ছাবার্তা দিয়ে খুল্লমখুল্লা ভালোবাসার ঘোষণাটা প্রায় সেরেই দিয়েছিলেন রিয়া । সুশান্তের সঙ্গে দুটো রোম্যান্টিক ছবি পোস্ট করে রিয়া লিখেছিলেন, ‘শুভ জন্মদিন মানব সভ্যতার সবচেয়ে সুন্দর, সবচেয়ে বিশাল ব্ল্যাক হোল। এ ভাবেই এগিয়ে যাও সুশান্ত। সোনা দিয়ে মোড়া তোমার মন’। জবাবে সুশান্ত জানিয়েছিলেন ‘থ্যাঙ্ক ইউ মাই রকস্টার’।

২০০৮ সালে বালাজি টেলিফ্লিমসের কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিলের সঙ্গে অভিনয় কেরিয়ার শুরু করেন সুশান্ত সিং রাজপুত। প্রথমবার লিড রোলে দর্শক তাকে দেখেছে একতা কাপুরের পবিত্র রিসকা ধারাবাহিকে।এরপর ২০১৩ সালে কাই পো ছে ছবির সঙ্গে রুপোলি সফর শুরু করেন সুশান্ত।এরপর শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স,এম এস ধোনি দ্য আনটোল্ড স্টোরি, রাবতা,সোনচিড়িয়া,কেদারনাথের মতো ছবিতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।  বক্স অফিসে সুশান্তের শেষ ছবি ছিল ছিঁছোড়ে। যদিও নেটফ্লিক্সের ছবি ড্রাইভে শেষবার দেখা মিলেছে সুশান্ত সিং রাজপুতের।

ইতিমধ্যেই পাটনা থেকে মুম্বইতে পৌঁছেছে সুশান্তের পরিবার, সোমবার মায়ানগরীতেই অনুষ্ঠিত হবে প্রয়াত অভিনেতার শেষকৃত্য। 

বন্ধ করুন