বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সুশান্তের দিদি প্রিয়াঙ্কার দাবি ভাই আত্মহত্যা করেনি: ‘রিয়া ওর জীবন নষ্ট করেছে’
রিয়ার নামে ফের বিস্ফোরক সুশান্তের দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং। 

সুশান্তের দিদি প্রিয়াঙ্কার দাবি ভাই আত্মহত্যা করেনি: ‘রিয়া ওর জীবন নষ্ট করেছে’

  • ২০২০ সালের ১৪ জুন মারা যান সুশান্ত। সিবিআই নানা দিক থেকে এই মামলা খতিয়ে দেখছে। আলাদা তদন্ত করছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোও (NCB)। রয়েছে ইডি। 

২০২০ সালে নিজের বাড়িতেই ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ। এখনও এই ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ। প্রথমে অভিনেতার মৃত্যু আত্মহত্যা বলে ঘোষণা করা হয়েছিল, যা নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় তুলেছিল ভক্তরা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতার দিদি প্রিয়াঙ্কা জানালেন, তিনি প্রথম যখন ভাইয়ের মরদেহ দেখেন তখনই নিশ্চিত ছিলেন এটা আত্মহত্যা হতেই পারে না। 

২০২০ সালের ১৪ জুন মারা যান সুশান্ত। সিবিআই নানা দিক থেকে এই মামলা খতিয়ে দেখছে। আলাদা তদন্ত করছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোও (NCB)। 

India News-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা সিং জানান, ‘আমি নিজে একজন ক্রিমিনাল লইয়ার। আমি নিজে অনেক পনের জন্য আত্মহত্যা বা অন্যান্য ভয়নক মৃত্যু দেখেছি। এসব ক্ষেত্রে বড় হয়ে যা, জিভ বেরিয়ে আসে। আমার ভাইয়ের মধ্যে সেরকম কোনও লক্ষণই ছিল না। আমি কয়েকদিন পর সেই ঘরে ঢুকেছিলাম। আর দেখেই বুঝেছিলাম এটা আত্মহত্যা হতেই পারে না। যেখানে গলায় দড়ি দিয়েছিল বলে বলা হচ্ছে, সেখানে ফ্যান আর খাটের মধ্যে ব্যাবধান সুশান্তের উচ্চতারও নয়।’ আরও পড়ুন: গাঁজা কিনে এনে তা সুশান্ত সিং রাজপুতকে দিত রিয়া চক্রবর্তী, চার্জশিটে দাবি NCB-র

প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘২০১৯ সাল থেকে সুশান্তের জীবন বদলে যেতে থাকে, যবে থেকে রিয়া ওর জীবনে এসেছিল। প্রথমবারের জন্য ভাইয়ের সঙ্গে আমার ঝগড়া হয়েছিল। তার ৬ দিনের মধ্যে এসব হয়ে গেল।’ প্রিয়াঙ্কাকে যখন প্রশ্ন করা হয় তিনি কি মনে করেন কেউ রিয়াকে ইচ্ছে করে সুশান্তের জীবনে পাঠিয়েছিল? উত্তর আসে, ‘হ্যাঁ অবশ্যই’।

আপাতত সিবিআই, ইডি আর এনসিবি তদন্ত করছে সুশান্তের মৃত্যু মামলার। দিন কয়েক আগেই এনসিবির চার্জ শিট সামনে এসেছে, যেখানে লেখা আছে মাদক কিনতেন রিয়া, মাদক পাচারকারীদের টাকাও দিতেন এবং তা পৌঁছে দিতেন সুশান্তের কাছে। মাদক কেনা-বেচায় জড়িত ছিলেন রিয়ার ভাই সৌভিকও।

বন্ধ করুন