বাড়ি > বায়োস্কোপ > মুম্বই পৌঁছাল সুশান্তের পরিবার, অভিনেতার শেষকৃত্য আজ
মুম্বই পৌঁছেছে সুশান্তের পরিবার 
মুম্বই পৌঁছেছে সুশান্তের পরিবার 

মুম্বই পৌঁছাল সুশান্তের পরিবার, অভিনেতার শেষকৃত্য আজ

  • রবিবার বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে 'শকড' গোটা দেশ। সান্ত্বনা জানানোর ভাষা নেই তাঁর পরিবারকে। কেকে সিংয়ের একমাত্র পুত্র সুশান্ত সিং রাজপুত। মায়ের মৃত্যু হয়েছে ১৮ বছর আগে,পরিবারের ছোটছেলে সুশান্ত,তাঁর চার দিদি রয়েছে। ভাইয়ের মৃত্যুতে সকলেই 'হতভম্ব'। রবিবার দুপুরে সুশান্তের আত্মহত্যার খবর সামনে আসার পর থেকেই কার্যত তোলপাড় গোটা দেশ। এদিন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় সুশান্তের দেহ। প্রাথমিক তদন্তের পরেই পুলিশ জানায় 'আত্মহত্যা করেছেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত।..তার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়নি কোনও সুইসাইড নোট'।

রবিবার রাতেই সুশান্তের শেষকৃত্যের জন্য পাটনা থেকে মুম্বই পৌঁছায় তাঁর পরিবার। কিন্তু এখনও সুশান্তের দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। রবিবার সুশান্তের দেহের ময়নাতদন্ত করা হয় জুহুর কুপার হাসাপতালে। সুশান্তের এক দিদি মু্ম্বইতেই থাকতেন,রবিবার কুপাল হাসপাতালে দেখা মিলেছিল তাঁর। 

ময়নাতদন্তের জন্য অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হচ্ছে সুশান্তের মৃতদেহ (ছবি সৌজন্য সতীশ বাটে/হিন্দুস্তান টাইমস)
ময়নাতদন্তের জন্য অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হচ্ছে সুশান্তের মৃতদেহ (ছবি সৌজন্য সতীশ বাটে/হিন্দুস্তান টাইমস)

 ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট বলছে সুশান্তের মৃত্যুর কারণ ‘হ্যাংগিং’, খবর এনডিটিভি সূত্রে। অর্থাত্ ঝুলে পড়বার কারণেই মৃত্যু হয়েছে অভিনেতা। জানা গিয়েছে সুশান্তের বেশ কিছু অঙ্গের নমুনা পাঠানো হয়েছে কালিনা ফরেনসিক ল্যাবে। তাঁর শরীরেরর কোনও অঙ্গে বিষ রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করা হবে। রবিবার কুপার হাসপাতালের মর্গেই রাখা ছিল সুশান্তের দেহ। সুশান্তের শেষকৃত্য কোথায় হবে সেই নিয়ে এখনও কোনও তথ্য মেলেনি, তবে করোনা সংকটের কারণে পরিবারের খুব অল্প সংখ্যক সদস্যকেই শেষযাত্রায় থাকার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 

সুশান্তের দিদি মিতু সিং ও প্রযোজক সন্দীপ সিং, রবিবার কুপার হাসপাতারে বাইরে
সুশান্তের দিদি মিতু সিং ও প্রযোজক সন্দীপ সিং, রবিবার কুপার হাসপাতারে বাইরে (PTI)

ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে সুশান্তের মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই উল্লেখ করা হলেও, সেই অটোপসি রিপোর্ট মানতে পারছে না পরিবার। তাঁর মামা আরপি সিংয়ের অভিযোগ, ‘এটা আত্মহত্যা নয়, এটা ঠান্ডা মাথায় করা খুন। আমি চাই গোটা বিষয়ের পূর্ণ তদন্ত হোক। সুশান্ত আত্মহত্যা করতে পারে না'। সুশান্তের জামাইবাবু ওপি সিং,যিনি হরিয়ানা পুলিশের অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল তিনিও সুশান্তের মৃত্যুর মধ্যে অস্বাভাবিকতা খুঁজে পেয়েছেন এবং বিষয়টির পূর্ণ তদন্ত দাবি করেছেন,খবর আইএএনএস সূত্রে।

বন্ধ করুন