বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘সুশান্তের নাম ভাঙিয়ে খাচ্ছে অঙ্কিতা’, অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতার দিদি
অঙ্কিতার পাশে দাঁড়ালেন শ্বেতা
অঙ্কিতার পাশে দাঁড়ালেন শ্বেতা

‘সুশান্তের নাম ভাঙিয়ে খাচ্ছে অঙ্কিতা’, অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতার দিদি

  • সুশান্তের মৃত্যু পরবর্তী সময়ে ‘বেচারি সেজে প্রচারের আলোয় থাকার চেষ্টা চালাচ্ছে অঙ্কিতা’! নেটিজেনদের অভিযোগের জবাব দিলেন প্রয়াত অভিনেতার দিদি, শ্বেতা সিং কীর্তি। 

প্রয়াত সুশান্ত সিং রাজপুতের নাম ভাঙিয়ে জনপ্রিয়তা লুটবার চেষ্টা করছেন প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখান্ডে, মাস কয়েক ধরেই এমন অভিযোগ নেটপাড়ায়। সুশান্ত ভক্তদের একটা বড় অংশ আরও বেশি করে অঙ্কিতার বিরুদ্ধে বিষোদগার করছেন পবিত্র রিসত ২-এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পর থেকে। এই বিতর্ক নিয়ে বহুবার ট্রোলারদের সোজাসাপটা জবাবও দিয়েছেন অঙ্কিতা। এবার এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি।

একজন সুশান্ত ভক্ত সরাসরি সোশ্যাল মিডিয়ায় শ্বেতার কাছে প্রশ্ন রাখে, কেন তুমি অঙ্কিতাকে সমর্থন কর? সুশান্তের সঙ্গে মিথ্যা প্রেমের কাহিনি রটিয়ে নিজের প্রচার চালাচ্ছে অঙ্কিতা, সুশান্তের নাম ব্যবহার করছে, সুশান্ত মামলার অন্যতম সন্দেহভাজনের (সন্দীপ সিং) সঙ্গে পার্টি করে বেড়াচ্ছে'। 

এই প্রশ্নের জবাবে শ্বেতা স্পষ্ট জানান, সুশান্তের মৃত্যুর পরেও কীভাবে প্রাক্তন প্রেমিকের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন অঙ্কিতা, এবং সম্পর্কে থাকাকালীন সুশান্তের কেমনভাবে দেখভাল করেছেন। শ্বেতা লেখেন, ‘আমি জানি না সত্যিটা কী…কিন্তু আমি এটা এড়িয়ে যেতে পারি না অঙ্কিতা কীভাবে আমার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে ভাইয়ের মৃত্যুর পর। আমি নিজের চোখে দেখেছি ও কীভাবে ভাইয়ের খেয়াল রাখত। একবার আমি মুম্বইয়ে এসেছিলাম, ভাইয়ের সেই সময় পাকস্থলীতে খুব যন্ত্রণা হচ্ছিল… আমি সামনে থেকে দেখেছি ডাক্তার ডাকা থেকে শুরু করে, ভাইয়ের ওষুধপত্র, খাওয়া-দাওয়া সবকিছুর কতটা যত্ন নিত অঙ্কিতা, সেই ভালোবাসাটা আমি ভুলতে পারব না। এটাই প্রমাণ করে অঙ্কিতা কত ভালো মনের মানুষ’। 

বিশাল সিং কীর্তি, শ্বেতা সিং কীর্তি, অঙ্কিতা,প্রিয়াঙ্কা সিং ও সুশান্ত (বাঁ দিক থেকে) 
বিশাল সিং কীর্তি, শ্বেতা সিং কীর্তি, অঙ্কিতা,প্রিয়াঙ্কা সিং ও সুশান্ত (বাঁ দিক থেকে) 

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে পবিত্র রিসতার সেটে শুরু হয়েছিল সুশান্ত-অঙ্কিতার প্রেম কাহিনি। দীর্ঘ সাত বছর প্রেম সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন তাঁরা। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে বিয়ের বাঁধনে বাঁধা পড়বার কথাও ছিল তাঁদের, কিন্তু সেই বছরের গোড়ার দিকেই ভেঙে যায় সম্পর্ক। ব্রেক-আপের পর সুশান্তের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ ছিল না অঙ্কিতার। তবে প্রাক্তনের পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেননি তিনি। 

শ্বেতার জবাব
শ্বেতার জবাব

সুশান্তের মৃত্যু মামলার তদন্ত নিয়ে  শ্বেতা জানান সিবিআইয়ের প্রতি তাঁর পূর্ণ আস্থা রয়েছে, এবং সত্যিটা সামনে আসবার অপেক্ষা রয়েছেন তিনি। ‘আমি ভগবানের কাছে প্রতি মুহূর্তে প্রার্থনা করছি যাতে সত্যিটা প্রকাশ্যে আসে, আমি তাঁর চেয়ে বড় ক্ষমতা আর কারুর হাতে নেই। বিশ্বাস রাখো, মন শক্ত কর’, জবাবের শেষে লেখেন সুশান্তের মার্কিন মুলুক-নিবাসী দিদি। 

গত বছর ১৪ জুন বান্দ্রার কার্টার রোডের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের দেহ। গত বছর অগস্টে এই মৃত্যু মামলার তদন্তভার যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে। গত মাসে সুশান্তের মৃত্যুবার্ষিকীতেও সিবিআই স্পষ্ট জানায় সঠিকপথে এই তদন্ত চলছে, এবং এখনও পর্যন্ত সুশান্তের মৃত্যুর কোনও সম্ভাবনাই খারিজ করেনি তদন্তকারীরা। 

বন্ধ করুন