বাড়ি > বায়োস্কোপ > ‘ভাই তুই যেখানেই আছিস, ভালো আছিস’, সুশান্তকে আবেগঘন অন্তিম বিদায় দিদি শ্বেতার
সুশান্তকে শ্রদ্ধার্ঘ দিদির, বললেন-চিরকাল এভাবেই ভালোবাসব (ছবিফেসবুক)
সুশান্তকে শ্রদ্ধার্ঘ দিদির, বললেন-চিরকাল এভাবেই ভালোবাসব (ছবিফেসবুক)

‘ভাই তুই যেখানেই আছিস, ভালো আছিস’, সুশান্তকে আবেগঘন অন্তিম বিদায় দিদি শ্বেতার

  • 'আমরা তোকে চিরকাল এমনিভাবেই ভালোবেসে যাব',ফেসবুকের দেওয়ালে লিখলেন শ্বেতা সিং কৃতী। 

সুশান্ত সিং রাজপুতেক আবেগঘন বিদায় সংবর্ধনা জানালেন তাঁর দিদি শ্বেতা সিং কৃতী। সুশান্তের স্মরণ সভার একটি ছবি শেয়ার করে ফেসবুকের দেওয়ালে সুশান্তের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া নিবাসী এই দিদি লেখেন, ভালোবাসা এবং পসেটিভিটিতে ভরপুর একটা অন্তিম বিদায় জানানো হল আমার ছোট্ট ভাইকে। আশা করছি তুই যেখানেই আছিস, ভালো আছিস…আমরা তোকে চিরকাল এমনিভাবেই ভালোবেসে যাব'।

পরিবারের সবচেয়ে ছোট সন্তান সুশান্ত, চার দিদির কোলে আদরের একমাত্র ভাই। তাঁর এই অকাল মৃত্যু নিঃসন্দেহে নাড়িয়ে দিয়েছে গোটা পরিবারকে। তবুও একে অপরের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন তাঁরা। সুশান্তের মৃত্যুর পরেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কয়েকটি পোস্ট করেছিলেন শ্বেতা। যদিও ১৯শে জুন আচমকাই নিজের ফেসবুক,ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ডি-অ্যাক্টিভেট করে দিয়েছিলেন শ্বেতা। অবশেষে সোমবার এই পোস্টের সঙ্গেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় ফিরলেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা। 

শ্বেতার ফেসবুক পোস্টে সুশান্তের জন্য ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা উজাড় করে দিয়েছেন তাঁর অসংখ্য গুণমুগ্ধ ভক্তরা। ছবিতে দেখা গেল সুশান্তের ছবির চেয়ারে সামনে বসে রয়েছেন তাঁর বাবা কেকে সিং। এবং নীচে বসে প্রার্থনায় ব্যস্ত শ্বেতা ও পরিবারের অন্য সদস্যরা। সুশান্তের আত্মার শান্তি কামনায় এর আগেও গায়েত্রী মন্ত্রী জপ করতে দেখা গিয়েছে শ্বেতা সিং কৃতীকে। সেই ভিডিয়োও প্রকাশ্যে এসেছে। 

শ্বেতার ফেসবুকে সুশান্তের মৃত্যুর পরবর্তী অন্য সকল পোস্ট থাকলেও, ভাইকে লেখা শেষ খোলা চিঠিটি ডিলিট করে দিয়েছেন শ্বেতা। সুশান্তের মৃত্যুর তিনদিন পর, ১৭ জুন ফেসবুক পোস্টে শ্বেতা লিখেছিলেন- 'আমার সোনা,আমার বাবু, আমার বাচ্চা..হয়ত শারীরিকভাবে আমাদের সঙ্গে নেই এটা ঠিক এবং হ্যাঁ সেটা ঠিক আছে...আমি জানি তুই অনেক কষ্টের মধ্যে ছিলিস,এবং তুই লড়াই করছিলিস,কারণ তুই একজান যোদ্ধা। ক্ষমা করে দে সোনা...ক্ষমা করে দে যে তোকে ওতো কিছুর মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে..যদি তোর থেকে আমি সব যন্ত্রণাগুলো নিয়ে নিতে পারতাম এবং আমার আনন্দগুলো তোকে দিতে পারতাম...।

সুশান্তের দিদির ডিলিট করে দেওয়া ফেসবুক পোস্ট
সুশান্তের দিদির ডিলিট করে দেওয়া ফেসবুক পোস্ট

সুশান্তের মৃত্যুর সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রই ছিলেন স্বেতা। গত ১৬ই জুন মার্কিন মুলুক থেকে ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা দেন শ্বেতা। ১৭ জুন রাতে পাটনা পৌঁছান তিনি। পরের দিন সুশান্তের অস্থি বিসর্জনেও অংশ নেন শ্বেতা। 

বন্ধ করুন