বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘ছিছোড়ে’র জাতীয় পুরস্কার উৎসর্গ করা হল সুশান্তকে; ‘গর্বে বুক ফুলল’ দিদি শ্বেতার
ছিছোড়ে ছবিতে সুশান্ত সিং রাজপুত। 
ছিছোড়ে ছবিতে সুশান্ত সিং রাজপুত। 

‘ছিছোড়ে’র জাতীয় পুরস্কার উৎসর্গ করা হল সুশান্তকে; ‘গর্বে বুক ফুলল’ দিদি শ্বেতার

  • ভাইয়ের ছবি জাতীয় মঞ্চে সেরা ঘোষিত হওয়ার পর থেকেই আবেগে ভাসেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি।
  • ছিছোড়ে পেল জাতীয় পুরস্কার; সুশান্তের দিদি শ্বেতা লিখলেন, ‘গর্বে বুকটা ফুলে উঠল’

সদ্যই অনুষ্ঠিত হয়েছে ৬৭তম জাতীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কার। যেখানে পুরস্কার নিতে হাজির হয়েছিলেন কঙ্গনা, সৃজিতরা। কিন্তু এই মঞ্চেই পুরস্কৃত হল হারিয়ে যাওয়া একটি তারা! যে নিজের সাফল্যের কাহিনি অধরা রেখেই চলে গিয়েছে সবাইকে ছেড়ে।সেরা হিন্দি ফিচার ফিল্ম হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছে ‘ছিছোড়ে’। আর ভাইয়ের ছবি জাতীয় মঞ্চে সেরা ঘোষিত হওয়ার পর থেকেই আবেগে ভাসেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি। 

২০১৯ সালের জুন মাসে রহস্যমৃত্য হয় সুশান্তের। প্রিয় অভিনেতার এভাবে চলে যাওয়া একটা বড় আঘাত ছিল তাঁর অনুরাগীদের কাছে। মেনে নিতে পারেনি সুশান্তের পরিবারও। 'ছিছোড়ে' ছবিটি জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন শ্বেতা। যা দেখে চোখে জল এসেছে সুশান্ত ভক্তদেরও।

শ্বেতা লেখেন, ‘ভাই এই গর্বের মুহূর্তটা আমাদের সকলের সাথেই ভাগ করে নিচ্ছে। ওর আত্মা আমাদের সাথে উপস্থিত আছে জাতীয় পুরস্কারের মঞ্চে। এটা দেখে আমার বুক গর্বে ফুলে উঠল যে এই পুরস্কার উৎসর্গ করা হল আমার ভাইকে। ধন্যবাদ আর শুভেচ্ছা ছিছোড়ে-র গোটা টিমকে।’

টিম ‘ছিছোড়ে’র পক্ষ থেকে এদিন পুরস্কার নিতে উপস্থিত ছিলেন 'ছিছোড়ে' প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালা এবং পরিচালক নিতেশ তিওয়ারি। আর সেই সময় তাঁরা দু'জনেই স্মরণ করেন সুশান্তকে। বলতে শোনা যায়, ‘এই ছবির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ সুশান্ত। ওর জন্য আমরা সবাই গর্বিত। এই পুরস্কার তাই ওকেই উৎসর্গ করছি।’

বন্ধ করুন