বাড়ি > বায়োস্কোপ > ১১ ঘন্টার ম্যারাথন পুলিশি জেরার মুখে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী
 বান্দ্রা থানায় রিয়া চক্রবর্তী  (ANI )
 বান্দ্রা থানায় রিয়া চক্রবর্তী  (ANI )

১১ ঘন্টার ম্যারাথন পুলিশি জেরার মুখে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী

  • বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ বান্দ্রা থানায় হাজির হন রিয়া। প্রায় ১১ ঘন্টা ধরে পুলিশি জেরার মুখে পড়েন সুশান্তের বান্ধবী।

কেন আত্মহত্যা করলেন সুশান্ত সিং রাজপুত? সুইসাইড নোট মেলেনি,তাই এই বলিউড তারকার মৃত্যুর জট খুলতে ঘুম ছুটছে মুম্বই পুলিশের। সুশান্ত সিং রাজপুতের চর্চিত বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে এদিন থানায় তলব করেছিল তদন্তকারী অফিসাররা। সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ এদিন বান্দ্রা পুলিশ স্টেশনে হাজির হন রিয়া। পরেন সাদা কুর্তা,মাস্কে মুখ ডাকা। গাড়ি থেকে নেমে সোজা থানার ভিতরে। এরপর দিনভর দফায় দফায় রিয়া চক্রবর্তীকে জেরা করে পুলিশ, প্রায় ১১ ঘন্টা ধরে চলে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ। রাত সাড়ে দশটা পুলিশ স্টেশন থেকে বেরিয়ে যান রিয়া। এদিন রিয়ার সঙ্গে তাঁর বাবা-মা'ও পুলিশ স্টেশনে হাজির ছিলেন। সাংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়লেও কোনও কথা বলেননি রিয়া। হাত জোড় করে সেখান থেকে বেরিয়ে যান।

গত দেড় বছর ধরে রিয়ার সঙ্গে সুশান্তের প্রেম সম্পর্কের খবর ঘোরাফেরা করছে বি-টাউনের অন্দরে। অন্যদিকে নভেম্বরেই নাকি বিয়ে করবার কথা ছিল সুশান্তের,জানিয়েছেন প্রয়াত অভিনেতার তুতো ভাই। পাশাপাশি পরিচালক রোমি জাফরি অভিনেতার মৃত্যুর পর সাংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন তাঁর পরবর্তী ছবিতে একসঙ্গে কাজ করবার কথা ছিল সুশান্ত-রিয়ার। এই রোম্যান্টিক কমেডি ছবির কাজ শুরুর কথা ছিল মে মাসে,যদিও করোনার জেরে কাজ স্থগিত হয়ে যায়। এই পরিস্থিতিতে সুশান্তের আত্মহত্যার রহস্য জট খুলতে শুরু থেকেই পুলিশের নজরে রয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। 

বুধবারই সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি দিল বেচারার পরিচালক তথা বন্ধু মুকেশ ছাবড়ার বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই এই মামলার তদন্তে নেমে প্রায় ১১ জনের বয়ান রেকর্ড করেছে মুম্বই পুলিশ,যার মধ্যে রয়েছে সুশান্তের পরিবার, ঘটনার দিন তারকার ফ্ল্যাটে হাজির তিন হাউজ হেল্প,বন্ধু , দুই ম্যানেজার এবং বেস্ট ফ্রেন্ড মহেশ শেট্টি। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে নেবে কোনও উল্লেখযোগ্য সূত্র এখনও অধরা পুলিশের। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট বলছে আত্মহত্যা করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত। নির্দিষ্ট প্যাটার্ন মেনেই চলছে এই মামলার তদন্ত, সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছে মুম্বই পুলিশের এক সূত্র। ব্যক্তিগত জীবনের কোনও সমস্যা নাকি পেশাগত বিদ্বেষ? সব দিক খতিয়ে দেখছে মুম্বই পুলিশ। টাইমস অফ ইন্ডিয়া সূত্রে খবর, সুশান্তের আত্মহত্যার মামলায় বেশ কয়েকটি বড় প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গেও কথা বলবে পুলিশ। এই হাই প্রোফাইল কেসে পেশাগত বিদ্বেষের বিষয়টিকে জোর দিয়েই তদন্ত করছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসাররা। 

সুশান্ত যে ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন তা নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তাঁর অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয়েছে ওষুধ,প্রেসক্রিবশন। যা ঘেঁটে দেখা গিয়েছে গত ছয় মাসে বেশ কয়েকজন চিকিত্স পাল্টেছেন অভিনেতা। তাঁদের সকলের সঙ্গে কথা বলে সুশান্তের মানসিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত তথ্য নিতে চায় পুলিশ। ইতিমধ্যে দু-এক জন চিকিত্সকের সঙ্গে প্রাথমিক পর্যায়ে কথাও বলেছেন তাঁরা। পাশাপাশি সুশান্তের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে তাঁর ব্যক্তিগত পাঁচটি ডায়রিও উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেগুলো নিয়ে চলছে কাঁটাছেড়া,পাশাপাশি অভিনেতার ফোন, ল্যাপটপও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

রিয়া চক্রবর্তী
রিয়া চক্রবর্তী (ANI)

প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবার পাটনায় সুশান্তের অস্থি বিসর্জন করে তাঁর পরিবার। অনুরাগীদের কাছে তাঁর ভায়ের আত্মার শান্তির জন্য প্রার্থনার আবেদন জানিয়েছেন দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি। 

বন্ধ করুন