বাড়ি > বায়োস্কোপ > প্রথমবার ছবি প্রযোজনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সুশান্ত,বন্ধুকে দেওয়া কথা রাখলেন না!
সুশান্তের অসম্পূর্ন প্রজেক্ট বন্দে ভারতমের পোস্টার প্রকাশ্যে আনলেন সন্দীপ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সুশান্তের অসম্পূর্ন প্রজেক্ট বন্দে ভারতমের পোস্টার প্রকাশ্যে আনলেন সন্দীপ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

প্রথমবার ছবি প্রযোজনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সুশান্ত,বন্ধুকে দেওয়া কথা রাখলেন না!

  • 'বন্দে ভারতম' বন্ধু সন্দীপ সিংয়ের পরিচালনায় এই ছবিতেই নাকি অভিনয় করার কথা ছিল সুশান্তের। একসঙ্গে এই ছবিটি প্রযোজনাও করতেন সুশান্ত-সন্দীপ। 

মু্ম্বইয়ে স্ট্রাগেলিংয়ের সময় থেকে সুশান্ত সিং রাজপুতের বন্ধু সন্দীপ সিং। টেলিভিশন পেরিয়ে একটা সময় বন্ধু বলিউড তারকা হয়েছে। নিজের মতো চেষ্টা করেছেন সন্দীপও। মেরি কম, আলিগড়,সর্বজিতের মতো ছবির প্রযোজক তিনি। তবে দুই বন্ধু মিলে স্বপ্ন দেখেছিলেন ছবি তৈরির। যে ছবি পরিচালনা করেন সন্দীপ,অভিনয়ে সুশান্ত সিং রাজপুত। আর প্রযোজনার দায়িত্বটাও সামলালেন দুজনে মিলে। কিন্তু সেই কাজ অসম্পূর্ন রয়ে গেল-বন্ধুকে দেওয়া কথা রাখলেন না সুশান্ত! শনিবার নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে নিজেদের এই স্বপ্নের কথাই জানালেন সন্দীপ। শেয়ারও করেন ছবির ফার্স্ট লুক পোস্টার। ছবির নাম ‘বন্দে ভারতম’।

সন্দীপ লেখেন, 'তুই কথা দিয়েছিলি। আমরা দুই বিহারী ভাই একদিন এই ইন্ডাস্ট্রিতে রাজত্ব করব। অনেক উঠতি প্রতিভাদের সমর্থন করব,তাঁদের অনুপ্রেরণা দেব,স্বপ্ন দেখে যাঁরা আমাদের মতো-তাঁদের স্বপ্ন পূরণের কাণ্ডারী হব। তুই কথা দিয়েছিলি আমার পরিচালিত প্রথম ছবির হিরো হবি তুই। রাজ সাণ্ডিল্য তো ছবির কাহিনিও লিখে ফেলেছিল, একসঙ্গে প্রযোজনা করতাম আমরা ছবিটা’। 

সন্দীপ যোগ করেন, তোর বিশ্বাসটা আমার দরকার ছিল,তুই সেটা দেখিয়েছিল, ওটাই আমার শক্তি ছিল। তুই চলে গেলি...আমিও হারিয়ে গেলাম.. এবার পর আমার স্বপ্নটা কে পূরণ করবে? কে আমার হাতটা ধরতে তোর মতো করে? কে আমাকে শক্তি জোগাবে?’

গত রবিবার,১৪ জুন বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ,প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে আত্মহত্যাই করেছেন অভিনেতা। 

সন্দীপ তাঁর পোস্টে জানিয়েছেন, সুশান্ত তাঁর জন্য অনেক স্মৃতি আর এই পোস্টারটি রেখে গিয়েছেন। যদিও তিনি বলেন, এই ছবিটা তিনি তৈরি করবেনই। আমি কথা দিলাম..আমি এই ছবিটা করব! আর এই ছবিটা হবে তোর প্রতি আমার শ্রদ্ধার্ঘ, আমার প্রিয় সুশান্ত যে কিনা কয়েক লক্ষ মানুষকে অনুপ্রাণিত করেছে,তাঁদের স্বপ্ন দেখিয়েছে যে সবকিছুই সম্ভব! স্বপ্ন দেখো আর সেটাকে পূরণ কর!’

এর আগে সুশান্তের প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতার উদ্দেশে এক খোলা চিঠি লিখে আফসোস প্রকাশ করেছিলেন সন্দীপ। লিখেছিলেন, তার বিশ্বাস একমাত্র অঙ্কিতাই পারত সুশান্তকে বাঁচাতে। ইনস্টা পোস্টে সন্দীপ লেখেন, 'প্রত্যেকটা দিন যাচ্ছে, আর এই ভাবনাটা আমাকে তাড়া করে বেড়াচ্ছে বারবার.. যদি..যদি… আমরা আর একটু চেষ্টা করতাম,যদি আমরা ওকে আটকাতে পারতম, আমরা ওর কাছে ভিক্ষা চাইতাম!  সন্দীপ এটাও জানান আজও নাকি অঙ্কিতা নিজের বাড়ির নেমপ্লেট থেকে সুশান্তের নামটা মুছে দেননি। 

বন্ধ করুন