বাড়ি > বায়োস্কোপ > 'নেপোটিজমের বিরুদ্ধে আমার লড়াইয়ে একমাত্র সুশান্তই পাশে ছিল',দাবি কঙ্গনার
একমাত্র সুশান্তই আমার পাশে ছিল,দাবি কঙ্গনার
একমাত্র সুশান্তই আমার পাশে ছিল,দাবি কঙ্গনার

'নেপোটিজমের বিরুদ্ধে আমার লড়াইয়ে একমাত্র সুশান্তই পাশে ছিল',দাবি কঙ্গনার

  • বলিউডের স্বজনপোষণের বিরুদ্ধে দীর্ঘসময় ধরেই লড়াই চালাচ্ছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। অভিনেত্রী জানালেই এই যুদ্ধে একমাত্র তারকা হিসাবে সুশান্তই তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। 

বলিউডে নেপোটিজমের উপস্থিতি নিয়ে কঙ্গনা রানাওয়াতের অভিযোগ ও লড়াই নতুন নয়।তবে সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার খবর সামনে আসার পর থেকে নেপোটিজম বিতর্ক নতুন মাত্রা পেয়েছে।  সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডের একাংশ ও সংবাদ মাধ্যমের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। ফের একবার রণংদেহী অবতারে পাওয়া গেল পর্দার ঝাঁসির রানিকে। রিপাবলিক টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে কঙ্গনা জানিয়েছেন, হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একমাত্র অভিনেতা হিসাবে নেপোটিজম বিতর্ক যিনি তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি সুশান্ত সিং রাজপুত। বলিউড ইন্ডাস্ট্রির ভিতরে ঘটে চলা বহু বিষয় নিয়ে এই সাক্ষাত্কারে বিস্ফোরক মন্তব্য রাখেন কঙ্গনা।

কঙ্গনা জানান, সুশান্ত বলেছিলেন কঙ্গনা মন খুলে নিজের মনের কথা বলেন,কিন্তু সুশান্ত ইন্ট্রোভার্ট তাই মনের কথা মনেই রেখে দেন ‘দিল বেচারা’ অভিনেতা। বলিউড ইন্ডাস্ট্রি কীভাবে কঙ্গনার ফিল্মি কেরিয়ার বরবাদ করে দেওয়ার চেষ্টা করেছে সেই নিয়েও নিজের মতামত রাখেন পর্দার ‘কুইন’। জানান বলিউডের কিছু নামী ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে কঙ্গনার আইনি লড়াই চলাকালীন একাধিক ব্র্যান্ড তাঁকে বাদ দেয়,চুক্তি বাতিল করে। সাধারণ মানুষের সামনে তাঁর ইমেজ নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়। তাঁকে খারাপ ব্যক্তি,খুব নিষ্ঠুর হিসাবে প্রোজেক্ট করার চেষ্টা করে বলিউডের একটা অংশ। 

কঙ্গনা এত জানান একটা সময় চাপে পড়ে ফিল্ম কেরিয়ার ছেড়ে দেওয়ার কথা পর্যন্ত ভেবেছিলেন তিনি। কঙ্গনা বলেন, তাঁর কাছে টাকা-পয়সা কোনও বিষয় নয়,কারণ ছোটবেলা থেকে গ্রামের মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় হয়ে উঠা কঙ্গনার কাছে ‘ইজ্জত’ টাই সবচেয়ে বড় সম্পদ।

এই সাক্ষাত্কারে কঙ্গনা দাবি করেছেন, সুশান্তের মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি যে অভিযোগ এনেছেন তা প্রমাণে ব্যর্থ হলে পদ্মশ্রী সম্মান পর্যন্ত ফিরিয়ে দিতে রাজি তিনি। পাশাপাশি এই মামলায় মুম্বই পুলিশ তাঁকে শমন পাঠিয়েছে সে কথাও জানান অভিনেত্রী। কঙ্গনা বলেন, আমাকে মুম্বই পুলিশ শমন পাঠিয়েছে, জবাবে আমি জানিয়েছি এই মুহূর্তে আমি মানালিতে রয়েছি।তাই আমার এখানে যে কাউকে পাঠিয়ে বয়ান রেকর্ড করতে। তারপর এখনও পর্যন্ত আমি কোনও জবাব পাইনি। আমি আপনাদের জানিয়ে দিচ্ছি আমি যা কিছু বলেছি, যদি আমি সেগুলো প্রমাণ করতে না পারি বা সেইগুলো পাবলিক ডোমেনে উপস্থিত নেই-সেটা যদি হয় তাহলে আমি পদ্মশ্রী সম্মান ফিরিয়ে দিতে রাজি’, বললেন কঙ্গনা রানাওয়াত। তিনি আত্মপক্ষ সমর্থনে বলেন,'আমি এমন মানুষ নই যে বিনা প্রমাণে কারুর উপর অভিযোগ লাগাব আর সেটা হলে আমি পদ্মশ্রী সম্মানের যোগ্য নই'।

বন্ধ করুন