বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অরিন্দম শীলের হাত ধরে বড় পরদায় ফিরছে ব্যোমকেশ, থাকছে আবীর-সোহিনী, বদলে গেল অজিত

অরিন্দম শীলের হাত ধরে বড় পরদায় ফিরছে ব্যোমকেশ, থাকছে আবীর-সোহিনী, বদলে গেল অজিত

বড় পরদায় ফিরছে ব্যোমকেশ।

এসভিএফের তরফ থেকে ব্যোমকেশ নিয়ে তাঁদের নতুন প্রোজেক্টের ঘোষণা করা হল শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বাঙালিকে আপনি গোয়েন্দা বললেই জবাব আসবে ব্যোমকেশ আর ফেলুদা। বড় পরদায় এই দুই গোয়েন্দাকে দেখার সুযোগ হাতছাড়া করতে রাজি থাকেন না কেউই। তবে বড় পরদা থেকে অনেকদিনই গায়েব আছেন ব্যোমকেশ বক্সী। তবে সুখবর হল অপেক্ষার অবসান। পরিচালক অরিন্দম শীলের হাত ধরে ফিরছে সে!

এসভিএফের তরফ থেকে ব্যোমকেশ নিয়ে তাঁদের নতুন প্রোজেক্টের ঘোষণা করা হল শুক্রবার। ক্যামেলিয়া প্রোডাকশনের সাথে যৌথ উদ্যোগে নিয়ে আসা হচ্ছে সিনেমা। আবীর, সোহিনী আর সুহত্র-র ছবি শেয়ার করে জানানো হল, ‘হলে দর্শকদের সঙ্গে এবার সত্যান্বেষীও ফিরছে!’ 

ছবির পরিচালনার দায়িত্বে থাকছেন অরিন্দম শীল। আবীর আর সোহিনী থাকছেন ব্যোমকেশ আর সত্যবতীর ভূমিকায়। আর অজিত হচ্ছেন সুহত্র মুখোপাধ্যায়। সুহত্রকে এর আগে দেখা গিয়েছিল হইচই-এর ওয়েব সিরিজ ‘গোরা’-তে। 

জানা গিয়েছে এবারে যে গল্প দেখতে পারবেন দর্শক বড় পরদায় তা হল ‘বিশুপতি বধ’। ছবির চিত্রনাট্য লিখছেন পদ্মনাভ দাশগুপ্ত। এই নিয়ে এটা অরিন্দম শীলের চার নম্বর ব্যোমকেশ কাহিনি।

১৯৭১-র প্রেক্ষাপটে এই গল্প লিখেছিলেন শরদিন্দু। যেখানে ব্যোমকেশ থিয়েটারে যান একটি নাটক দেখতে। আর নাটক চলাকালীন স্টেজেই মৃত্যু হয় এক অভিনেতার। ঘটনার তদন্তে নেমে ভালোবাসা, অর্থ, প্রতারণার মতো একের পর এক দিক সামনে আসতে থাকে। 

২০১৫ সালে প্রথম ব্যোমকেশ বানান অরিন্দম ‘হর হর ব্যোমকেশ’। এরপর ২০১৬ সালে আসে ‘ব্যোমকেশ পর্ব’, ২০১৮ সালে ‘ব্যোমকেশ গোত্র’। অরিন্দমের পরিচালনায় আগের তিনটি ছবিই বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করেছে। দর্শকদের মনেও ধরেছে। এখন দেখার নতুন কাহিনি কেমন লাগে সকলের!

বন্ধ করুন