বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘নাচনে গানেওয়ালি’ বিতর্কে দীপিকা-আলিয়াকে আক্রমণ করায় কঙ্গনাকে মোক্ষম জবাব স্বরার
জুলমি গানে আইটেম নেচেছেন কঙ্গনা 
জুলমি গানে আইটেম নেচেছেন কঙ্গনা 

‘নাচনে গানেওয়ালি’ বিতর্কে দীপিকা-আলিয়াকে আক্রমণ করায় কঙ্গনাকে মোক্ষম জবাব স্বরার

  • আইটেম নাচ তো কঙ্গনাও নেচেছেন, তবে ক্যাটরিনা-আলিয়াদের কটাক্ষ কেন? 

দু-দিন আগেই কঙ্গনা রানাওয়াতকে ‘নাচনে গানেওয়ালি’ বলে আক্রমণ করেন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস বিধায়ক সুখদেব পানসে। এই নিয়ে টুইটারে শুরু হয়ে গিয়েছেন নতুন বিতর্ক। কংগ্রেস বিধায়ক কঙ্গনাকে ‘কুরুচিকর ভাষায়’ আক্রমণ করেছেন তা একবাক্যে অনেকেই মেনে নিয়েছেন। ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নন কঙ্গনাও। তিনিও টুইটারের দেওয়ালে আক্রমণ শানান সুখদেব পানসকে। কিন্তু পালটা জবাব দিতে গিয়ে নতুন বিতর্ক উসকে দিলেন ‘কন্ট্রোভার্সি কুইন’ কঙ্গনা। 

কঙ্গনা টুইটারের দেওয়ালে লেখেন, ‘এই মূর্খ লোকটা জানে না যে আমি দীপিকা, ক্যাটরিনা বা আলিয়া নই। আমি একমাত্র অভিনেত্রী, যে আইটেম গানে নাচিনি, খান-কুমারদের মতো বড় বড় তারকাদের সঙ্গে ছবি রিজেক্ট করেছি। যে কারণে বলিউডের সব পুরুষ এবং মহিলা গুন্ডারা আমার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে পড়েছে। আমি এক জন রাজপুত মহিলা। আমি নিতম্ভ দোলাই না, হাড় ভেঙে দি'। 

সোমবার কঙ্গনার এই টুইটের পালটা জবাব দিলেন স্বরা ভাস্কর। স্বরা-কঙ্গনার সম্পর্ক যে আদায়-কাঁচকলায় সেটা কারুর অজানা নয়।  ২০১৩ সালে মুক্তি পাওয়া কঙ্গনার ছবি রজ্জো-র ‘জুলমি’ গানের লিঙ্ক শেয়ার করে স্বরা লেখেন- ‘ রজ্জো ছবিতে তোমার নাচটা এই আইটেম নম্বরে দারুণ লেগেছে… তুমি খুব ভালো পারফমার, এবং দুর্দান্ত ডান্সার কঙ্গনা… তোমার পরবর্তী নাচের জন্য মুখিয়ে আছি’। ‘জুলমি রে জুমলি’ গানে কঙ্গনাকে একদল পুরুষের মনোরঞ্জনের জন্য কোমর দোলাতে দেখা গিয়েছে। এই ছবিতে ডান্সারের ভূমিকাতেই অভিনয় করেছিলেন কঙ্গনা। 

এর আগে রবিবার স্বরা বলেন, কংগ্রেস এমএএল কঙ্গনার বিরুদ্ধে যে মন্তব্য করেছেন তা নিঃসন্দেহে নিন্দনীয়। তবে পালটা জবাব দিতে গিয়ে কঙ্গনা যেভাবে আলিয়া ভাট, ক্যাটরিনা কাইফ কিংবা দীপিকার নাম নিয়ে টানানটি করছেন সেটাও দুর্ভাগ্যজনক। স্বরা লেখেন, ‘পানসে একটি বোকা বোকা, নারীবিদ্বেষী এবং নক্কারজনক মন্তব্য করেছেন, কঙ্গনা তুমি সেটাকে আরও নীচে নামিয়ে এনেছো!’

কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে পথে নামা কংগ্রেস কর্মীদের উপর সম্প্রতি লাঠিচার্জ করে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। তা নিয়ে শনিবার সকালে জেলাশাসকের কাছে স্মারকলিপি জমা দেন কংগ্রেস বিধায়ক সুখদেব। সেখানেই তিনি বলেন, ‘কঙ্গনার মতো নাচনে-গানেওয়ালি মহিলা কৃষকদের আত্মসম্মানে আঘাত হানলে কিছু হয় না। অথচ কৃষকদের পাশে দাঁড়ানো কংগ্রেস কর্মীদের উপর লাঠি চালানো হয়'। 

বন্ধ করুন