বাড়ি > বায়োস্কোপ > 'সুশান্তের পরিবারের মিথ্যা সামনে আসছে',রিয়ার পাশে দাঁড়িয়ে দাবি স্বরা ভাস্করের
রিয়ার পাশে স্বরা ভাস্কর 
রিয়ার পাশে স্বরা ভাস্কর 

'সুশান্তের পরিবারের মিথ্যা সামনে আসছে',রিয়ার পাশে দাঁড়িয়ে দাবি স্বরা ভাস্করের

  • সুশান্ত খুন হয়েছেন এমন কোনও প্রমাণ মেলেনি। অথচ মিডিয়া জোর করে রিয়াকে হেনস্তা করছে, দাবি স্বরার।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত মাদককাণ্ডে গত মঙ্গলবার এনসিবির হাতে গ্রেফতার হন রিয়া চক্রবর্তী। রিয়ার গ্রেফতারির পর অভিনেত্রীর সমর্থনে মুখ খুলেছেন বলিউডে একটা বড় অংশ। দোষ প্রমাণের আগেই রিয়াকে দোষী সাব্যস্ত করছে মিডিয়ার একটা অংশ, এই অভিযোগ এনে রিয়ার পাশে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর ।

সম্প্রতি দ্য উইক ডিজিটাল সংবাদপত্রে স্বরে লিখেছেন , যেভাবে রিয়াকে সবাই মিলে হেনস্থা করছেন , যেভাবে মিডিয়া নিজের স্বার্থে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পূর্বেই রিয়াকে দোষী সাব্যস্ত করে চলেছে তাতে আমার সাহিত্যিক আর্থার মিলারের নাটক দ্য ক্রুসিবলের সেই দৃশ্যের কথা আজকাল খুব মনে পড়ছে , যেখানে ডাইনি অপবাদে , কালো জাদু চর্চার সাথে যুক্ত থাকার সন্দেহে একাধারে কুড়ি জন মহিলাকে মৃত্যু দন্ডে দণ্ডিত করা হয়েছিল । আর এক্ষেত্রে অভিনেতার আকস্মিক মৃত্যুতে দেশবাসীর মনে জমা ক্ষোভ এবং আবেগকেই গণ হিস্টিরিয়াতে সু-কৌশলে রূপান্তরিত করেছে মিডিয়া , যার শাস্তি আজ আইনের চোখে অপরাধী প্রমাণিত হওয়ার আগেই রিয়াকে ভোগ করতে হচ্ছে ।

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে মিডিয়ার ভূমিকা ব্যাখ্যা করে স্বরা লেখেন , প্রথমে নেপোটিজম এবং বলিউডের প্রভাবশালী বিতর্ক নিয়ে কিছুদিন চলছিল । ইতিমধ্যেই রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তকে মৃত্যুপথে ঠেলে দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করলেন অভিনেতার বাবা । সুপ্রিম কোর্ট সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল, আর সাথে সাথে শুরু হয়ে গেলো মিডিয়া ট্রায়াল , যেখানে সমস্ত কিছু ছেড়ে উঠে পরে লাগা হলো শুধু এটা প্রমাণ করতে যে রিয়াই সুশান্তকে হত্যা করেছেন । এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতেও চলতে থাকে পালা করে আক্রমণ । তথাকথিত ন্যায় বিচারের স্বপ্ন দেখা ‘জাস্টিস ফর সুশান্ত ওয়ারিয়রসরা’ অকল্পনীয় ভাবে হেনস্থা করেছেন রিয়াকে ।আর তাঁর পরিবারের সদস্য , কর্মচারী কাউকে পেলেই হিংস্র কুকুরের মতো ঝাঁপিয়ে পড়েছেন নির্লজ্জ মিডিয়াকর্মীরা।

এনসিবি দফতরে হাজিরা দিতে এসে রীতিমতো মিডিয়ার হাতে মবড হয়েছিলেন রিয়া । স্বরার মতে এখনও কোথাও কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি যাতে বলা যেতে পারে রিয়া সুশান্তকে খুন করেছেন । অথচ তাঁর পরিবারের তরফে এখনো পর্যন্ত যা যা দাবিই করা হয়েছে সেগুলো সম্পূর্ণ ঘুরিয়ে নেতিবাচক বা মিথ্যা দাবির মোড়কেই পেশ করেছে আজকের মিডিয়া । কিন্তু উল্টো দিকে অভিনেতার পরিবারেরই সদস্যের হোয়াটস্যাপ চ্যাট প্রকাশ্যে আসায় অন্যরকম সন্দেহ দানা বেঁধেছে , কিন্তু সেই দিককে গুরুত্ব দেওয়ার কোনো প্রয়োজনই মনে করেননি কেউ । আমি মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের ওপর আস্থা রেখে অনুরোধ করবো এই সমস্ত সংবাদ কারবারিদের যেন উপযুক্ত শাস্তি হয়'।

বাইকুল্লা জেলের পথে রিয়া চক্রবর্তী
বাইকুল্লা জেলের পথে রিয়া চক্রবর্তী (PTI)

সম্প্রতি দিল্লির এক সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন পাঠিয়ে সুশান্তকে দিদি প্রিয়াঙ্কা অ্যানসাইটির কিছু ওষুধ খেতে বলেন । এই প্রেশকিপশন জালি এমন দাবি করে রিয়া চক্রবর্তী গত সোমবার সুশান্তের দুই দিদি প্রিয়াঙ্কা সিং ও মীতু সিংয়ের বিরুদ্ধে মুম্বই পুলিশে এফআইআর দায়ের করেন। ইতিমধ্যেই সেই অভিযোগ সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছে মুম্বই পুলিশ। যদিও সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী বিকাশ সিং জানিয়েছেন ওই প্রেসক্রিপশন জাল নয়, এবং এই এফআইআরের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হবে পরিবার। 

মেয়ে বলেই কি দোষ প্রমাণ হওয়ার আগে তাঁকে এত হেনস্থা করা হচ্ছে?, সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই দাবি বলিউড ও বুদ্ধিজীবীদের একাংশের।পুরুষতান্ত্রিক সমাজের গোঁড়ামিকে ভেঙে দেওয়ার বার্তা নিজের টি-শার্টে মঙ্গলবার দিয়েছিলেন রিয়া, সেই বার্তা সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন করিনা কাপুর, দিয়া মির্জা, বিদ্যা বালান সহ আরও অনেকেই।

রিয়ার পাশে দাঁড়িয়ে টুইট করার কারণ জানতে চাওয়া হলে হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানান তিনি কারুর পাশে দাঁড়াননি । তাঁর যেটা অন্যায় , ভুল মনে হয়েছে , বরাবরই সেটাই বলে এসেছেন । দেশের আইন , বিচার ব্যবস্থার প্রতি তাঁর পূর্ণ আস্থা আছে বলেই জানান স্বরা ।

বন্ধ করুন