বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘নুসরতের মতো অবৈধভাবে মা হবেন না’, গর্ভনিরোধক ওষুধের প্রচারে ট্রোলড স্বস্তিকা
নুসরতের নাম নিয়েও স্বস্তিকাকে কটাক্ষ চলল রীতিমতো।
নুসরতের নাম নিয়েও স্বস্তিকাকে কটাক্ষ চলল রীতিমতো।

‘নুসরতের মতো অবৈধভাবে মা হবেন না’, গর্ভনিরোধক ওষুধের প্রচারে ট্রোলড স্বস্তিকা

  • গর্ভনিরোধক প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে কাজ করায় কটাক্ষ স্বস্তিকাকে

নুসরত জাহানের ছেলে ঈশান ঘরে ফিরেছে সম্প্রতি। তবুও অভিনেত্রীকে নিয়ে চর্চা থামার নাম নিচ্ছে না। এবার নুসরতের নাম নিয়ে কড়া সমালোচনা করা হল ছোট পরদার জনপ্রিয় অভিনেত্রী স্বস্তিকা দত্তের। সম্প্রতি এক জনপ্রিয় গর্ভনিরোধক নির্মাতা সংস্থার সেমিনারে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। আর সেখানের কিছু ছবি শেয়ার করেন নিজের সামাজিক মাধ্যমে। যার ‘প্রচার মুখ’ নুসরত জাহান। আর তারপরেই ধেয়ে আসে কটাক্ষ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু মানুষ যেমন স্বস্তিকার এই উদ্যোগকে প্রশংসা করেছেন। নারীদের মধ্যে সচেতনাতা পৌঁছে দিতে তিনি যে কাজ করেছেন তাঁর প্রশংসা করেছেন। তেমনই কেউ কেউ কড়া নিন্দাও করেছেন। তিনি কি বিবাহিত, কেন এলেন এই অনুষ্ঠানে থেকে প্রশ্ন তুলে ‘নুসরতের মতো অবৈধভাবে সন্তান জন্ম’ না দেওয়ারও পরামর্শ দিয়ে ফেলেছেন কেউ কেউ। ব্যক্তিগত আক্রমণ করা হয়েছে খোলাখুলিভাবে।

এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্বস্তিকার বক্তব্য, ‘গর্ভনিরোধক ওষুধ নিয়ে কথা বলতে গেলে অন্তঃসত্ত্বা হতে হয় না। আমি জনপ্রিয়। তাই সহজেই আমার কথা সবার কাছে পৌঁছে যাবে বলে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এর বেশি কিছু না।’ অনুষ্ঠানে আয়োজিত আলোচনাচক্রের সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন পরিচালক-অভিনেতা সুদেষ্ণা রায়। এর আগেও এই সংস্থার হয়ে সঞ্চালনার কুর্সি সামলেছেন তিনি। কিছুদিন আগে নুসরতের সঙ্গে ফেসবুক লাইভেও অংশ নিয়েছিলেন। আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে খ্যাতনামা পরিচালক জানান, ‘একুশ শতকের মাঝামাঝি পৌঁছেও এমন মানসিকতা যাওয়ার নয়। নারী স্বাধীনতার যুগে গর্ভনিরোধক সংস্থার হয়ে মুখ খুললেই ধেয়ে আসে কটূক্তি!’

এভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হলেন স্বস্তিকা।
এভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হলেন স্বস্তিকা।

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কী করে বলব তোমায়’-এ নায়িকা চরিত্রে ক্রুশল আহুজার বিপরীতে কাজ করেছেন স্বস্তিকা ‘রাধিকা’ চরিত্রে। তার আগেও জামাই রাজা-র মতো ধারাবাহিকে তাঁকে দেখা গিয়েছে। ধারাবাহিক শেষ হয়ে গেলেও জনপ্রিয়তা কমেনি। বরং, হট ফোটোশ্যুট থেকে শুরু করে নিজের দিন-প্রতিদিনের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের জন্য। আর সেটা নিয়েও কটাক্ষ হয়েছে, ‘কাজ না পেলে আর কী করবে বলুন!’

বন্ধ করুন