বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > শরীর থেকে ভেরিকোজ শিরা বাদ দিলেন তাপসী, রশমি রকেটের ট্রেনিং শুরুর আগেই সিদ্ধান্ত
তাপসী পান্নু (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
তাপসী পান্নু (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

শরীর থেকে ভেরিকোজ শিরা বাদ দিলেন তাপসী, রশমি রকেটের ট্রেনিং শুরুর আগেই সিদ্ধান্ত

  • ভেরিকোজ ভেন নিয়ে সমস্যায় ভুগছিলেন তাপসী, তাই শরীর থেকে অস্ত্রোপচার করে বাদ দিয়ে দিলেন পায়ের এই শিরা। শরীরের এই দাগ নাকি ‘ইভেল আই’ হিসাবে কাজ করবে বিশ্বাস তাপসীর। 

নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে বরাবরই দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন তাপসী পান্নু। তথাকথিত গ্ল্যামারাস হিরোইনের তকমা ছেড়ে যে কোনও চরিত্রে ফিট হতে পারার এক অদ্ভূত দক্ষতা রয়েছে ‘পিঙ্ক' তারকা তাপসীর মধ্যে। বেবি কিংবা নাম শাবানায় তাপসীকে পুরোদস্তুর অ্যাকশন পারফর্ম  করতে দেখেছেন দর্শকরা। নিজের আসন্ন ছবি রশমি রকেটের জন্য নিজেকে ফিট হিসাবে মেলে ধরতে কোনও খামতি রাখছেন না তাপসী। প্রতিদিন কড়া পরিশ্রম করছেন জিমে। আর সেই ঝলক উঠে আসছে ৩৩ বছর বয়সী নায়িকার ইনস্টাগ্রামের দেওয়ালে। শুধু জিম নয়, তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলছে কঠিন ডায়েট, নিজেকে পেশিবহুল করে তুলতে বদ্ধ পরিকর তাপসী। 

এই ছবির জন্য প্রচুর পরিশ্রম তো করছেনই, পাশাপাশি তাপসী সম্প্রতি জানালেন তিনি শরীর থেকে বাদ দিয়েছেন ভেরিকোজ ভেন বা শিরা। ট্রেনিং শুরু করবার মাত্র ৬ সপ্তাহ আগেই এই ভেন বাদ দেন তাপসী। সম্প্রতি নিজের বয়ফ্রেন্ড ও বোনের সঙ্গে ছুটি কাটাতে মলদ্বীপ উড়ে গিয়েছিলেন নায়িকা, সেখানেও নিজের ডায়েটিশিয়ানের দেওয়া খাবারের চার্ট মেনে চলছিলেন তিনি। 

সাম্প্রতিক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে নিজের জিম সেশনের ছবি পোস্ট করে তাপসী লেখেন যে শিরা সরিয়ে ফেলবার জন্য তাঁর শরীরে যে দাগ হয়েছে সেটি তাঁকে কুনজর থেকে বাঁচাবে। তিনি লেখেন, ‘যখন আমি এই ছবিটা দেখি আমার মনে পড়ে কীভাবে আমি ভেরিকোজ শিরা অস্ত্রোপচার করে সরিয়ে ফেলেছি ট্রেনিং শুরু করবার মাত্র ৬ সপ্তাহ আগে। এবার এই দাগ গুলো আমাকে কুনজর থেকে বাঁচানোর কাজ করবে’। 

ভেরিকোজ ভেন নামটা খুব চেনা নয় তবে অসুখটা কিন্তু সকলেরই বেশ চেনা। পশ্চিমের দেশে মোট জনসংখ্যার প্রায় ৩০ শতাংশ মানুষ পায়ের এই সমস্যা নিয়ে বিব্রত। ভারতেও এই ক্রনিক রোগের প্রকোপ কম নয়। এই রোগে পায়ের শিরা নীল বা সবজেটে হয়ে ওঠে, এবং তা বাইরে থেকে স্পষ্ট দেখা যায়। জীবনহানির আশঙ্ক্ষা না থাকলেও এটি অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক এবং সময়ের সঙ্গে সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। 

তাপসীর জিম লুকও ইতিমধ্যেই চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। স্পোর্টস ব্রা এবং হল্টার নেক টপে অন্তর্জালে হইচই ফেলছেন নায়িকা। অধিকাংশ সময়ই জিম লুককে পূর্ণতা দিতে কালো বা ধূসর শর্টসে পাওয়া যাচ্ছে তাপসীকে। 

আপতত রমশি রকটে ছাড়াও তাপসীর হাতে রয়েছে- সাবাস মিঠু, হাসিনা দিলরুবার মতো ফিল্ম। এবং উল্লেখযোগ্যভাবে প্রতিটি নারীকেন্দ্রিক ছবি।

বন্ধ করুন