বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘বয়স্ক অভিনেতাদের প্রতিও মানুষ অসংবেদনশীল’, বিস্ফোরক তারক মেহতার নট্টু কাকা
ঘনশ্যাম নায়েক
ঘনশ্যাম নায়েক

‘বয়স্ক অভিনেতাদের প্রতিও মানুষ অসংবেদনশীল’, বিস্ফোরক তারক মেহতার নট্টু কাকা

  • ‘সবার একদিন বয়স হবে, সবাই অসুস্থ হবেন', কটাক্ষের বিরুদ্ধে সরব হয়ে বললেন অভিনেতা ঘনশ্যাম নায়েক।

শারীরিক অসুস্থতার কারণে ‘তারক মেহেতা কা উলটা চশমা’র নট্টু কাকা তথা ঘনশ্যাম নায়েক বেশ কিছুদিন শ্যুটিং থেকে বিরতি নিয়েছিলেন। ডিসম্বের ১০ তারিখ গুরুতর অসুস্থতার কারণে তিনি শ্যুটিং বন্ধ করেন। এরপর একটি এপিসোডের শ্যুটিং করার পরই নানা ট্রোলের মুখে পড়তে হয় তাঁকে। অসুস্থতাকে লুকোনোর চেষ্টা করছেন তিনি, অনেকেই তাঁকে কটাক্ষ করেন। 

সেই সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘সবার একদিন বয়স হবে। সবাই অসুস্থ হবেন। ভগবানের দয়ায়, আমি এখন ক্যানসার মুক্ত, চিকিৎসায় আমার দেহ সাড়া দিচ্ছে। আমি ডিসেম্বরের ১০ তারিখ ‘তারক মেহেতা কা উলটা চশমা’র শেষ শ্যুটিং করি তবে এখনো শো-র অংশ আমি। এটা সবটাই ঈশ্বরের কৃপায় এবং আমার প্রোডিউসার অসিত কুমার ও পরিবারের সমর্থনে করতে পেরেছি’।

জেঠালালের সঙ্গে নাথুকাকা
জেঠালালের সঙ্গে নাথুকাকা

শো-এর পরিপ্রেক্ষিতে লোকে তাঁকে নিয়ে ট্রোল করেন, তিনি দুর্বল দেখতে লাগছেন। সেই সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘কিছু মানুষ প্রবীন অভিনেতাদের প্রতি অসহানুভূতিশীল। আমি তাঁদের কাছে আবেদন করছি নেতিবাচকতা-না ছড়ানোর জন্য। যদিও আমি সেই অংশের জন্য সঠিক নির্বাচন না হতাম, তবে আমার প্রোডিউসার আমাকে কখনোই কাস্ট করত না। আমি একজায়গায় পড়লাম লোকে আমার জামাকাপড় নিয়েও সমালোচনা করছে। যাঁদের কোনো কাজ নেই তাঁরাই এসব নেতিবাচক, সমালোচনা করতে পারে। আমি এসব গায়ে লাগাইনা। কারণ আমার বয়সে আমি খুব খুশি। আমি কাজ করছি এবং যতদিন আমার শরীরে দেবে ততদিন কাজ করে যাব। সমালোচকদের পাশাপাশি আমাকে কিছু মানুষ সমর্থন করে, ভালবাসে আমার কাজের জন্য। ঈশ্বরের আশীর্বাদে আমি আরো কাজ করতে চাই এবং যতদিন পারব দর্শকদের হাসি-ঠাট্টা এবং বিনোদন জুগিয়ে যাব জেঠালালের সঙ্গে এই শো-এর মধ্যে’। 

নায়েক জানান, ‘আমার চরিত্র নাথুকাকা ২০০৮ সাল থেকে শুরু করার পর দর্শকদের কাছে খুব জনপ্রিয় হয়েছে। নট্টু কাকার ভূমিকায় কাজ করা একটি বিশেষ সুযোগ’।

বন্ধ করুন