বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বহু স্মৃতি উস্কে মুক্তি পেল সৌমিত্র অভিনীত তাঁর শেষ ছবির ট্রেলার
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

বহু স্মৃতি উস্কে মুক্তি পেল সৌমিত্র অভিনীত তাঁর শেষ ছবির ট্রেলার

  • এই ছবিতে সৌমিত্রর নামের আগে ‘লেট’ বসাতে রাজি নন পরম। কারণ তিনি মানতেই পারেন না, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আর নেই।

দূরে থেকেও তিনি যেন আমাদের মধ্যেই রয়েছেন। তাঁর বিশাল কর্মযজ্ঞের মধ্যে দিয়ে। অভিনয়, আবৃত্তি, তাঁর লেখা--- এই সবের মাঝে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বেঁচে রয়েছেন। থাকবেনও। তার উপর আবার তাঁর স্মৃতি আরও একটু উস্কে দিয়ে মুক্তি পেল  তাঁর অভিনীত শেষ ছবি ‘অভিযান’র ট্রেলার। কিছু দিন আগে তাঁর জন্মদিনে মুক্তি পেয়েছিল এই ছবিটির টিজার। টিজারের মতোই ট্রেলারের শুরুতেও থাকছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের গলার স্বর ‘গ্রো ওল্ড অ্যালং উইথ মি, দ্য বেস্ট ইজ ইয়েট টু বি’।

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবন নিয়ে তৈরি পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের নতুন ছবি। তাঁর জীবনের ওঠা-পড়া, টানাপোড়েন, সংগ্রাম, সাফল্য, তাঁর রাজনৈতিক জীবন, প্রেম সবটাই ফ্রেমবন্দি করার চেষ্টা করেছেন পরম। রূপোলি পর্দায় সেটির নাম ‘অভিযান’। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের অভিযান।

এই ছবির ট্রেলার মুক্তির পরই মন খারাপ সৌমিত্র অনুরাগীদের। এই মানুষটাকে রূপোলী পর্দায় আর দেখতে না পাওয়ার অদ্ভূত যন্ত্রণা। পর্দায় তরুণ সৌমিত্রের ভূমিকায় রয়েছেন যিশু সেনগুপ্ত। আর প্রবীণ অভিনেতার ভূমিকায় সৌমিত্র নিজে। যিশু সেনগুপ্ত ছাড়াও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, কিউ, বাসবদত্তা চট্টোপাধ্যায়, সোহিনী সেনগুপ্তরা রয়েছেন। 

ট্রেলারের সংলাপেই ফুটে ওঠে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বিশাল কর্মজীবনের কথা। পরমব্রতকে বলতে শোনা যায়, ‘আপনি তো শুধু অভিনেতা নন, আপনি কবি, আপনি নাট্যকার, অলসো আ পলিটিকাল অ্যাক্টিভিস্ট।’  এই ছবির হাত ধরে সৌমিত্রর জীবনে অনেক অজানা কথা জানতে পারবেন তাঁর অনুরাগীরা। বাণিজ্যিক ছবি হিসেবে এটিকে একেবারেই তৈরি করেননি পরম। বলছিলেন, ‘এই ছবির মধ্য দিয়েই অচেনা সৌমিত্রকে চিনবেন দর্শকরা। কিংবদন্তীর জীবনের ছোট ছোট ঘটনাগুলোই থাকবে গোটা ছবি জুড়ে।’  এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেছেন, ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনের অভিযানকে এই ছবিতে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। সেখানে অভিনয় জীবন রয়েছে, অ্যাডভঞ্চার রয়েছে, ব্যক্তিগত জীবন রয়েছে.. এই যাত্রাটা খুব উত্তেজনাপূর্ণ। সেই কারণেই ছবির নাম অভিযান।’

ট্রেলার মুক্তির অনুষ্ঠানে সাংবাদিক সম্মেলনে পরমব্রত বলে দিয়েছেন, ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের নামের আগে লেট কথাটি বসাব না। তিনি নেই এটা মানতে পারি না। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, লেট শব্দটি ব্যবহার না করার।’ ট্রেলারটি শেষ হয়েছে সৌমিত্রর কিছু ডায়লগ দিয়েই, যা চোখে জল এনে দেয়, ‘আমিই যদি না থাকি.. আর তো এই কথাগুলো বলা হবে না।’

বন্ধ করুন