বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মোটেও বিচ্ছেদ হয়নি রণিতা-সৌপ্তিকের! বরং সিঁদুর খেলার আছিলায় এলেন আরও কাছাকাছি
রণিতা-সৌপ্তিক। 
রণিতা-সৌপ্তিক। 

মোটেও বিচ্ছেদ হয়নি রণিতা-সৌপ্তিকের! বরং সিঁদুর খেলার আছিলায় এলেন আরও কাছাকাছি

  • গালে-কপালে এমনকী রণিতার সিঁথিতেও সিঁদুর দেখা গিয়েছে!

বেশ কয়েকদিন ধরেই সৌপ্তিক চক্রবর্তী ও রনিতা দাসের ব্রেকআপের খবর ঘোরাফেরা করছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। শোনা যাচ্ছিল, নতুন সম্পর্কে জড়ানোয় পুরনো প্রেমিককে ছেড়েছেন রণিতা। তবে, সব রটনা যে সত্যি হয় না তা প্রমাণ হল আরও একবার। পুজোয় একফ্রেমে ধরা দিলেন প্রেমিক জুটি। 

২০০৯ সালে স্টার জলসার ধারাবাহিক ‘ধন্যি মেয়ে’ দিয়ে অভিনয় জগতে পথচলা শুরু করেন রণিতা দাস। তবে দর্শকদের কাছে তিনি ‘বাহামণি’ নামেই বেশি পরিচিত। সৌজন্যে বাংলা ধারাবাহিক ‘ইষ্টিকুটুম’। তবে ‘ধন্যি মেয়ে’ সিরিয়ালের সেটেই আলাপ হয় সৌপ্তিক-রনিতার। সেটাই ছিল সৌপ্তিক-রনিতার প্রথম সিরিয়াল। সেখান থেকেই শুরু তাঁদের প্রেম। তারপর কেটে গিয়েছে দশ বছর। কিছুদিন আগে দশ বছর একসাথে থাকা উদযাপন করেছেন তাঁরা। তারপরেই রটে আলাদা হয়ে যাওয়ার খবর।

রণিতা ও সৌপ্তিক।
রণিতা ও সৌপ্তিক।

সৌপ্তিক চক্রবর্তী অভিনয় করেছেন 'জল নূপুর', 'জয়বাবা লোকনাথ' ধারাবাহিকে। তারপর টানা তিন বছর মুম্বইয়ে বিভিন্ন ছবি, ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন সৌপ্তিক। তারপর লকডাউনে কলকাতায় ফিরে ‘ক্লিক’ ওয়েব প্ল্যাটফর্মে নতুন ওয়েব সিরিজ ‘খেলা শুরু’ -র হাত ধরেই পরিচালনায় ডেবিউ করেন সৌপ্তিক। শোনা যায়, সেটে নাকি দু'জনের প্রায়ই ঝামেলা হত। পরিচালক হিসেবে এতটাই কড়া সৌপ্তিক যে মাঝেমধ্যে একটু বেশিই বকাঝকা করে ফেলতেন প্রেমিকা রনিতাকে। সেখান থেকেই নাকি সমস্যার শুরু ও সম্পর্কের অবনতি!

যদিও ওয়েব সিরিজের প্রোমোশনে দু'জনে একসাথেই এসেছিলেন। আর এবার দুর্গা পুজোয় সিঁদুর খেলে রণিতা বুঝিয়ে দিলেন সেসবই ছিল ভুয়ো খবর। গালে কপালে এমনকি সিঁথিতে সিঁদুর পরানো রনিতার সঙ্গে নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করলেন সৌপ্তিকও।

বন্ধ করুন