বাড়ি > বায়োস্কোপ > ‘সোনু নিগমের সব অভিযোগ সত্যি,আমাদের সঙ্গেও ঘটেছে’,বিস্ফোরক সেলিম মার্চেন্ট
সেলিম মার্চেন্ট (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সেলিম মার্চেন্ট (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

‘সোনু নিগমের সব অভিযোগ সত্যি,আমাদের সঙ্গেও ঘটেছে’,বিস্ফোরক সেলিম মার্চেন্ট

  • বলিউড মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে নির্দিষ্ট কিছু মিউজিক লেবেলের মাফিয়া রাজ চলছে বলেই দাবি সেলিম মার্চেন্টের। সোনুর আনা অভিযোগকে সত্যি, মন্তব্য সেলিমের।

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার ঘটনার পর এক বিস্ফোরক ভিডিয়ো বার্তায় সোনু নিগম বলিউড মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতেও স্বজনপোষণের কথা উল্লেখ করে বলেন এখানে আরও বড় ‘মাফিয়া রাজ’ চলে। সোমবার আরও একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করে সোনু নিগম রীতিমতো উল্লেখ করে টি-সিরিজ কর্ণধার ভূষণ কুমারকে সতর্ক করেন। সোনুর এই অভিযোগের জেরে দুভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে বলিউড মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি। এই বিতর্কে সোনু নিগমের পাশে দাঁড়ালেন মিউজিক কম্পোজার জুটি সেলিম-সুলেমানের সেলিম মার্চেন্ট। তাঁর দাবি, ‘সোনুর সব অভিযোগই সত্যি’।

সেলিম মার্চেন্ট বলেন,শুধু গায়করাই নন কম্পোজাররাও কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। রেকর্ড লেবেল কিছু নির্দিষ্ট মিউজিক ডিরেক্টর এবং সঙ্গীত শিল্পীদের নিয়েই কাজ করে। তাঁদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ কিছু নির্দিষ্ট শিল্পী রয়েছে। অবশ্যই এখানে স্বজনপোষণ রয়েছে,কিছু নির্দিষ্ট গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালকদের জন্য’। তিনি যোগ করেন, আমার মতোন বহু কম্পোজার আছেন যাঁরা একটি ছবিতে একটি গান করা পছন্দ করেন না। কিন্তু অনেকেই রেকর্ড লেবেলর এই শর্তের সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছে। সোনু ভুল কথা কিছুই বলেনি। পুরোটাই সত্যি। অনেক গায়কদের দিয়েই গান গাওয়ানো হয় এবং তারপর বাদ দেওয়া হয়। পরিচালক-প্রযোজকরা আমাদের মতো সঙ্গীত পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করতে চান কিন্তু মিউজিক লেবেলের কাছে সেই কথা পৌঁছানো মাত্র তাঁদের নিজেদের শর্ত চাপানো শুরু হয়ে যায় এবং আমারা বাদ পড়ি’।

সেলিম-সুলেমান কি কখনও কোনও গায়কের গান বাদ দিয়েছেন? জবাবে সেলিম মার্চেন্ট বলে, না আমাদের কখনও সেটা করতে হয়নি। তবে পরিচালক বা প্রযোজকদের ফিডব্যাকের কথা আমরা মাথায় রেখেছি।যেমন ধরুন ব্যান্ড বাজা বারাত (২০১০) ছবির অ্যাঁভেই অ্যাঁভেই লুট গায়া গানটি প্রথমে মাস্টার সেলিম রেকর্ড করেছিলেন তবে আদিত্য চোপড়া রণবীরের কন্ঠশিল্পী হিসাবে একটু হালকা আওয়াজ খুঁজছিলেন। তাই আমি গানটি রেকর্ড করি। সেটাই ছবিতে রাখা হয়। কিন্তু আমরা গোটা বিষয়টি ওঁনাকে জানিয়েছিলাম এবং এন্ড ক্রেডিটে মাস্টার সেলিমের গানও যোগ করেছিলাম।

মিউজিক লেবেলের দাদাগিরির জন্য তাঁদের কী কাজ হারাতে হয়েছে? সেলিম মাচেন্ট বলেন, আমি আর সুলেমা একটা প্রজেক্টে কাজ করেছিলাম। মিউজিকটা দুর্দান্ত হয়েছিল, যার জেরে সেই প্রজেক্টে একজন বড় মাপের অভিনেতা কাজ করতেও রাজি হলেন। কিন্তু মিউজিক লেবেলের কাছে পৌঁছানো মাত্রই কম্পোজার পাল্টাতে বাধ্য করা হল। আমাদের বিরুদ্ধে সেই কোম্পানির কোনও ব্যক্তিগত এজেন্ডা আছে মনে হয়। কেন জানি না! সময়ের অপেক্ষা, মানুষ ধীরে ধীরে সবই জানতে পারবে'।

বন্ধ করুন