বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Tiyasha-Suban: ডিভোর্সের গুঞ্জনের মাঝে সুবানহীন তিয়াসার জন্মদিন, তবে ‘কৃষ্ণকলি’ বলছেন…
মন্দরমণিতে বন্ধুদের সঙ্গে জন্মদিনের উদযাপন তিয়াসার

Tiyasha-Suban: ডিভোর্সের গুঞ্জনের মাঝে সুবানহীন তিয়াসার জন্মদিন, তবে ‘কৃষ্ণকলি’ বলছেন…

  • 'দূরে দূরে থাকলে ভালবাসা বেড়ে যায়।’, মন্দারমণিতে বন্ধুদের সঙ্গে জন্মদিন সেলিব্রেট করলেন তিয়াসা। হাজির ছিলেন না স্বামী সুবান রায়। 

গত সপ্তাহেই ফ্যানেদের সঙ্গে জন্মদিনের আগাম উদযাপন সেরে ফেলেছিলেন ‘কৃষ্ণকলি’ তিয়াসা রায়। সোমবার আরও একটা বসন্ত পার করে ফেলেছেন বাংলা টেলিভিশনের এই মিষ্টি নায়িকা। তিয়াসার জন্মদিন এবছর একটু অন্যরকমভাবে কেটেছে। শহুরে কোলাহল থেকে দূরে সমুদ্রের পারে মন্দারমণিতে এই বিশেষ দিনটা উদযাপন করলেন তিয়াসা, সঙ্গী বন্ধুরা। 

বিলাসবহুল রিসর্টেই জন্মদিনটা সেলিব্রেট করেছেন তিয়াসা। অনুরাগীরা আগেই উপহারে ভরিয়ে দিয়েছিল, বন্ধুরাও একের পর এক সারপ্রাইজ দিয়েছে। তিন রকমের কেক কেটে চলছে উদযাপন পর্ব। প্রত্যেকবার কেক কাটবার জন্য আলাদারকমভাবে সেজেছিলেন বার্থ ডে গার্ল। কালো রঙা শর্ট গাউনে বার্থ ডে সেলিব্রেশনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতেও পোস্ট করেছেন তিয়াসা। তবে তিয়াসার জন্মদিনের এই সেলিব্রেশনে শামিল হননি স্বামী সুবান রায়। গত কয়েক মাস ধরেই সুবান-তিয়াসার বিবাহ-বিচ্ছেদের জল্পনা তুঙ্গে, এর মাঝেই তিয়াসার এই বিশেষ দিনেও পাশে থাকলেন না সুবান। স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে একঝাঁক। কিন্তু তিয়াসার মুখে অবশ্য অন্য সুর। 

তিয়াসা এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে শ্যুটিংয়ে কাজে ব্যস্ত সুবান। সেই কারণেই এই বিশেষ দিনে তিয়াসার পাশে থাকতে পারেননি সুবান। তবে সুবান পাশে না থাকায় মন খারাপ হয়নি পর্দার শ্যামার। তিনি বলছেন, ‘ওর সঙ্গে তো অনেক জন্মদিন কাটিয়েছি। দূরে দূরে থাকলে ভালবাসা বেড়ে যায়।’

২০১৭ সালের অক্টোবরে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন সুবান-তিয়াসা। সুবানের হাত ধরেই টেলিভিশন দুনিয়ায় পা রেখেছিলেন তিয়াসা। দু'জনের মনোমালিন্যের খবর দিন কয়েক আগে হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকেও জানিয়েছিলেন সুবান। তিনি বলেন, ‘ঝগড়া-অশান্তি হতেই পারে, কিন্তু তাই বলে দুম করে ডিভোর্স হয়ে যাবে এটাতে আমি বিশ্বাসী নই। বিয়ের সম্পর্কটা খুব পবিত্র বলে আমি বিশ্বাস করি, এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সেটা টিকিয়ে রাখবার চেষ্টা আমি করব।

তিয়াসার জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ত্রীকে কোনওরকম শুভেচ্ছা বার্তা দেননি সুবান। তাই মুখে দুজনে যাই বলুন না কেন, দুজনের সম্পর্কের সমীকরণ যে আগের মতো নেই, তার আভাস মিলছে। 

বন্ধ করুন