বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > টিটাগড়ের ৩০০-র ওপর কুষ্ঠরোগী পেলেন টিকা, সৌজন্যে তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী
টিকাকরণ ক্যাম্পে জেলাশাসক সুমিত গুপ্তরসঙ্গে রাজ চক্রবর্তী। ( ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)
টিকাকরণ ক্যাম্পে জেলাশাসক সুমিত গুপ্তরসঙ্গে রাজ চক্রবর্তী। ( ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)

টিটাগড়ের ৩০০-র ওপর কুষ্ঠরোগী পেলেন টিকা, সৌজন্যে তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী

  • প্রায় ৩৩৫ জন কুষ্ঠরোগীকে করোনা টিকাকরণের ব্যাবস্থা করা হয়েছিল। উদ্যোগ নেওয়া থেকে শুরু করে এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী।

এই কঠিন আবহের মধ্যেও যখন করোনা টিকার আকাল শুরু হওয়ার পাশাপাশি প্রকাশ্যে এসেছে ভুয়ো ভ্যাকসিন কান্ড সেইসময় কুষ্ঠরোগীদের জন্য কোভিড টিকাক্যাম্প-এর আয়োজন করা হল। গোটা ব্যাপারে উদ্যোগ নেওয়া থেকে শুরু করে এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন ব্যারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী। গত বৃহস্পতিবার, টিটাগড়ে গান্ধীজী প্রেম নিবাসে কুষ্ঠরোগীদের জন্য করোনা টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ় দেওয়া হয়। প্রায় ৩৩৫ জন কুষ্ঠরোগী টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

ব্যারাকপুর বি,এন,বোস হাসপাতাল এবং টীটাগড় পুরসভার যৌথ উদ্যোগে এই ক্যাম্প আয়োজিত হয়েছিল।এত সহজ ও নির্ঝঞ্ঝাটে করোনা টিকা পেয়ে যাবেন বলে ভাবতে পারেননি কুষ্ঠরোগীরাও। স্বাভাবিকভাবে নিশ্চিন্ত হয়েছেন তাঁরাও। টিকা পেয়ে যারপরনাই খুশি তাঁরা। এই টিকাকরণের কথা নিজের ফেসবুক পেজেও জানিয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক।

এই টিকাকরণ ক্যাম্প প্রসঙ্গে রাজ জানিয়েছেন টিটাগড় এবং ব্যারাকপুর পুরসভা মিলিয়ে প্রায় ৫০% টিকাকরণের কাজ সম্পূর্ণ করা হয়েছে। আর বৃহস্পতিবার এই অঞ্চলে ১০০% কুষ্ঠরোগীকেই টিকা দেওয়ার কাজ শেষ হয়েছে। জানিয়ে রাখা ভালো, এইমুহূর্তে জেলায় করোনা সংক্রমণের হার বেশ তলানিতে।আগের থেকে অনেকটাই জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমছে।তবুও কী করে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের মোকাবিলা করা যায় সে ব্যাপারে জোরদার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক সুমিত গুপ্ত।

এছাড়াও ব্যারাকপুর রামকৃষ্ণ মিশনে করোনা টিকাকরণের আয়োজন করা হয়েছিল। এক্ষেত্রেও নেপথ্যে ছিলেন রাজ। এসডিও অভ্র অধিকারী,জেলাশাসক সুমিত গুপ্তের সঙ্গে মিশনের মহারাজদের সঙ্গে সৌজন্যমূলক সাক্ষাতও সেরে আসেন তৃণমূল বিধায়ক।

 

বন্ধ করুন