মিমি চক্রবর্তী (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
মিমি চক্রবর্তী (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

২০০ পরিবারকে ইফতারের সামগ্রী পাঠালেন সাংসদ মিমি, জানালেন রমজান শুভেচ্ছা

  • করোনা সংকটে সোনারপুর-রাজপুর অঞ্চলের ২০০টি সংখ্যা লঘু পরিবারের কাছে ইফতারের প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিলেন মিমি।

শনিবার দেশজুড়ে লকডাউনের মেয়াদ ফের বৃদ্ধি হয়েছে। বিশ্বজুড়ে করোনা সংকটের মধ্যেই ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষজন পালন করছেন পবিত্র রমজান মাস। সংকটের এই মুহূর্তে যাদবপুরবাসীর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়ালেন তাদের সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। শনিবার মিমি সোনারপুর-রাজপুর অঞ্চলের ২০০টি সংখ্যা লঘু পরিবারের কাছে পৌঁছে দিলেন ইফতারের প্রয়োজনীয় সামগ্রী। 

গত বছর এই মানুষগুলোর সঙ্গে ইফতার সেরেছিলেন নায়িকা-সাংসদ। এ বছর পরিস্থিতি আলাদা কিন্তু যাদবপুরবাসীর ঘরের মেয়ে মিমি এদিন ফোনে, ল্যাপটপে লাইভ স্ট্রিমিংয়ের মাধ্যমেই একসঙ্গে ইফতার সারলেন এলাকাবাসীর সঙ্গে, কথা বললেন তাঁদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে। ভবিষ্যতেও যে কোনও প্রয়োজনে সোনারপুর-রাজপুর অঞ্চলের এই পরিবারগুলোর পাশে থাকার আশ্বাস দেন সাংসদ।

 

মিমি এদিন জানান, 'আমরা একটা যুদ্ধের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি,কিন্তু আমরা যদি সবাই সরকার ও প্রশাসনের কথা মেনে চলি,তাহলে আমরা এই যুদ্ধে জয় লাভ করতে পারব'। কোনভাবেই যেন লকডাউনের নিময় কেউ লঙ্খন না করেন সে ব্যাপারেও ফের একবার সচেতন করে দেন মিমি চক্রবর্তী। 

করোনা সচেতনতার ক্ষেত্রে শুরু থেকেই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে চলেছেন মিমি। বাড়ি বসেই কখনও মাস্ক তৈরির পদ্ধতি, তো কখনও আবার রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ানোর টিপস দিয়েছেন। দিন কয়েক আগে রাজ্যের তৃতীয় করোনা আক্রান্ত, স্কটল্যান্ড ফেরত হাবরার তরুণীর সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে করোনা নিয়ে সরাসরি আলোচনা করেন মিমি। জনগণকে সচেতন করতেই মনামী বিশ্বাসের করোনা জয়ের কাহিনি প্রকাশ্যে আনলেন মিমি। 

বন্ধ করুন