ছবি- বনির ফেসবুক পেজ থেকে।
ছবি- বনির ফেসবুক পেজ থেকে।

লকডাউনের অলস দুপুরে, জমিয়ে আড্ডা বনির সঙ্গে...

‘বরবাদ’ থেকে জার্নিটা শুরু, আজ পর্যন্ত যে ক’টা ছবিতে বনিকে দেখা গিয়েছে প্রত্যেকটিতেই রয়েছে ওঁর নিজস্বতার ছাপ। পাশের বাড়ির ছেলে মার্কা ইমেজেই বাজিমাত করে সোজা ঢুকে পড়েছে বাঙালির অন্তরমহলে। টলিউডের এই মোস্ট প্রমিসিং হিরো অবিরাম লকডাউনের ফাঁকে আড্ডা জমালেন HT Bangla-র সঙ্গে...

এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করতে আপনার তরফ থেকে কোনও বিশেষ উদ্যোগ?

বনি--- অনেক মানুষই এগিয়ে এসেছেন। যাঁর যেমন সামর্থ সেই মত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আমিও আমার সাধ্যমত সাহায্য করছি। মানুষের পাশে সব সময় আছি। ভবিষ্যতেও থাকব। এই সময় অনেক অনেক অর্থের প্রয়োজন, তাই সকলের কাছে অনুরোধ করছি এগিয়ে আসুন। ইতিমধ্যেই মিডিয়া এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা দেখেছি অনেকেই করোনা মোকাবিলায় আর্থিক সাহায্য করেছেন, আবার এমন অনেক মানুষ আছেন যাঁরা নেপথ্যে থেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন, তাঁদের কথা কিন্তু আমরা জানতেও পারিনা। আমি সেই সব মানুষকে ধন্যবাদ জানাই যাঁরা এই চরম বিপদের দিনে মানুষের জন্য কাজ করছেন।

সবই তো বন্ধ, সময় কাটছে কেমন করে?

বনি--- এরকম পরিস্থিতি আগে কখনও দেখিনি! বাড়িতে বন্ধ হয়ে থাকা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই, সারাদিন অঢেল সময়। সিনেমা দেখছি, এক্সারসাইজ করছি, ইচ্ছেমত ঘুমোচ্ছি... এই সবই।

লকডাউনের আগে কোন কোন ছবির কাজ চলছিল?

বনি--- কয়েকটা ছবির শুটিং চলছিল, সেগুলো তো অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ হয়ে গেল। তার মধ্যে রানাদা-সুদেষ্ণাদির একটি ছবি এবং রাজা চন্দর একটি ছবি, এই দু’টি ছবির শুটিং সদ্য শেষ হয়েছিল। পোস্ট প্রোডাকশন শুরু হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু এখন তো সবই আটকে গেল। দেখা যাক লকডাউন শেষ হওয়ার পর পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হয়! তার ওপর সব নির্ভর করছে।

মুক্তির অপেক্ষায় কোন কোন ছবি?

বনি--- বেশ কয়েকটা ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। 'লাভ স্টোরি', 'আজব প্রেমের গল্প', 'স্টুপিড' এবং 'বিয়ে ডট কম'। তবে এখন সবই বেশ কিছুদিন পিছিয়ে যাবে।

আসন্ন ছবি গুলির জন্য আমাদের HT Bangla-র তরফ থেকে শুভকামনা রইল। মানুষের উদ্দেশে কোনও বার্তা?

বনি--- এই করোনা আতঙ্ক এবং এই লকডাউন আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে গেল। ইনফ্যাক্ট এখনও আরও অনেক কিছু শিখতে হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে অনেকটা সময় লাগবে। মানুষ কিন্তু ভয় পেয়েছে। এবার থেকে আমরা অনেক বেশি সচেতন হব। লকডাউন শেষ হওয়ার পর আমরা আশা করতেই পারি যে মানুষের মধ্যে একটা আমূল পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। আশা করা যায় মানুষ অনেক ধৈর্যশীল হবে। যে কোনও বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করবে। আর সব শেষে বলব, এই সময় বাড়িতে থাকুন, সুরক্ষিত থাকুন, সচেতন হোন।

বন্ধ করুন